প্রধান মেনু খুলুন

ইউকি ভাম্ব্রি

ভারতীয় টেনিস খেলোয়াড়

ইউকি ভাম্ব্রি (হিন্দি: यूकी भांबरी, জন্ম: ৪ জুলাই, ১৯৯২) ভারত থেকে একজন পেশাদার টেনিস খেলোয়াড়। তিনি প্রাক্তন ১ নম্বর জুনিয়র টেনিস খেলোয়াড়[২] এবং ২০০৯ অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ছেলেদের একক এর বিজয়ী।[৩] তিনি প্রথম ভারতীয় যে জুনিয়র অস্ট্রেলিয়ান ওপেন শিরোপা জিতেছেন এবং ইতিহাসে চতুর্থ ভারতীয় যে একটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম চ্যাম্পিয়নশিপে জুনিয়র একক শিরোনাম জিতেছেন।।[৪] ডেভিস কাপে তিনি ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন।[৫]

ইউকি ভাম্ব্রি
Yuki Bhambri, Aegon Surbiton Trophy, London, UK - Diliff.jpg
দেশ ভারত
বাসস্থানব্র্যাডেনটন, ফ্লোরিডা, ইউএসএ
জন্মস্থান (1992-07-04) ৪ জুলাই ১৯৯২ (বয়স ২৭)
নতুন দিল্লি, ভারত
উচ্চতা১.৮৩ মিটার (৬ ফুট ০ ইঞ্চি)
পেশাদারীর সময়২০০৮
খেলার ধরণডানহাতি (দুই-হাতি ব্যাকহ্যান্ড)
পুরস্কারের মূল্যমানইউএস$
খেলোয়াড়ী  রেকর্ড২৬–২৩ (এটিপি ওয়ার্ল্ড ট্যুর এবং গ্র্যান্ড স্লামের প্রধান ড্র ম্যাচ এবং ডেভিস কাপ ৫৩.০৬%)
শিরোপা0
চ্যালেঞ্জার, ১২ ফিউচারস
সর্বোচ্চ র‌্যাঙ্কিংNo. ৮৩ (১৬ এপ্রিল ২০১৮)
বর্তমান র‌্যাঙ্কিংNo. ৯৩ (২১ মে ২০১৮)[১]
অস্ট্রেলিয়ান ওপেন1R (2015, 2016, 2018)
ফ্রেঞ্চ ওপেন1R (2018)
উইম্বলেডনQ1 (2012, 2015)
ইউএস ওপেনQ2 (2012, 2014)
খেলোয়াড়ী  রেকর্ড5–5 (in ATP World Tour and Grand Slam main draw matches, and in Davis Cup ৫০%)
শিরোপা0
6 Challenger, 1 Futures
সর্বোচ্চ র‌্যাঙ্কিংNo. ১৩৮ (3 March 2014)
বর্তমান র‌্যাঙ্কিংNo. ৩০২ (21 May 2018)
অস্ট্রেলিয়ান ওপেন3R (2014)
ডেভিস কাপ1R (2010)
সর্বশেষ হালনাগাদকরণ: 29 May 2018

ব্যক্তিগত ও প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

ভাম্ব্রি ৬ বছর বয়সে টেনিস খেলতে শুরু করেন। তার বাবা চন্দর এবং মা ইন্দু। তিনি পরিবারের কনিষ্ঠতম। তার বোনেরা অঙ্কিতা ভাম্ব্রি ও সানা ভাম্ব্রি এবং তার খুড়তুত বোন আর ভাই, প্রেরণা ভাম্ব্রি এবং প্রতীক ভাম্ব্রি সবাই টেনিস খেলোয়াড়। তার প্রথম টেনিস কোচ ছিলেন আদিত্য সাচদেবা।[৪][৬] বর্তমানে তিনি ইমপ্যাক্ট টেনিস একাডেমি প্রশিক্ষক স্টিফেন কুন এবং অভিমন্য সিংহের কাছে থেকে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করছেন।[৭]

জুনিয়র কর্মজীবনসম্পাদনা

২০০৯ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে, ভাম্ব্রি বিশ্বের জুনিয়র র্যাঙ্কিংয়ে ১ নম্বর স্থানে পৌঁছে যান।[২] এবং তিনি জুনিয়র অস্ট্রেলিয়ান ওপেন একক খেতাব জিতেছিলেন।[৮] তিনি মাত্র ১৬ বছর বয়সে অরেঞ্জ বোলের খেতাব জয়ী প্রথম ভারতীয় হিসেবে ইতিহাস রচনা করেন।

পেশাদারী কর্মজীবনসম্পাদনা

২০০৯সম্পাদনা

২০০৯ সালে, ভাম্ব্রি জুনিয়র অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জিতেছিলেন। ইউকে আইটিএফ ফিউচারস ইভেন্টে ভারত দিল্লিতে অনুষ্ঠিত হয়, যেখানে তিনি টুর্নামেন্টটি ফিউচারের ইভেন্ট জয় করার জন্য সর্বকনিষ্ঠ ভারতীয় হন। বিশ্ব গ্রুপের প্লে অফস-এ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তিনি ডেভিস কাপে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন।

২০১০সম্পাদনা

২০১০ সালে, আগস্টে, সিঙ্গাপুরে, প্রথম যুব অলিম্পিক গেমসে ভাম্ব্রি একটি রৌপ্য পদক জিতেছিলেন।

২০১২সম্পাদনা

২০১২ সালের, মে মাসে, বুশান চ্যালেঞ্জারে, ভাম্ব্রি তার প্রথম এ.টি.পি পুরুষদের দ্বৈত শিরোপা জিতে নেন, দিবিজ সরনকে সঙ্গে নিয়ে।[৯] ২০ শে মে ২০১২ সালে, উজবেকিনার ফের্নাতে তার ক্যারিয়ারের প্রথম এ.টি.পি চ্যালেঞ্জারের একক শিরোনাম জয় করেন।[১০]

২০১৩সম্পাদনা

২০১৩ সালে, ভাম্ব্রি অস্ট্রেলিয়ার ট্রারলগনতে তার প্রথম এ.টি.পি চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা এবং তার ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় শিরোপা জিতেছিলেন। ফাইনালে তিনি আমেরিকান ব্র্যাডলি ক্লাহকে পরাজিত করেন। এটি তার দ্বিতীয় এ.টি.পি চ্যালেঞ্জারের একক শিরোপা।[১১]

২০১৪সম্পাদনা

৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ সালে, চেন্নাইতে শ্রীরাম ক্যাপিটাল পিএল রেড্ডি মেমোরিয়াল এ.টি.পি চ্যালেঞ্জার টেনিস টুর্নামেন্টে ভাম্ব্রি জিতেছিলেন। পরে তিনি এশীয় গেমসে ভারতে দুটি পদক জিতেছেন। তিনি পুরুষদের একক বিভাগে ব্রোঞ্জ জিতেছেন। পুরুষের দ্বৈত বিভাগে তিনি আর দিবিজ সরনের জুটি ব্রোঞ্জ পদক জিতেছিল।

২০১৫সম্পাদনা

১৯ শে অক্টোবর ২০১৫ সালে, ভাম্ব্রি নিজের ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো শীর্ষ র্যাঙ্কিংয়ের ১০০ নম্বরের মধ্যে ঠাই পান।

২০১৬সম্পাদনা

২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে, দিল্লি ওপেনে ভাম্ব্রি ও মহেশ ভূপতির জুটি ছষ্ঠ দ্বৈত চ্যাম্পিয়নের শিরোপা জয় করেন।

২০১৭সম্পাদনা

২০১৭ সালের অক্টোবরে, ভাম্ব্রি ও দিবিজ সরনের জুটি তাশখন্দ চ্যালেঞ্জারে দ্বিতীয় স্থান পান।[১২]

২০১৮সম্পাদনা

২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে, ভাম্ব্রি তার স্বদেশবাসী রামকুমার রামনাথনকে পরাজিত করে সানতিয়াজী চ্যালেঞ্জারের শিরোপা জিতে নেন। এই জয় দিয়ে তিনি শীর্ষ ১০০ র্যাঙ্কিংয়ে ফিরে আসেন।[১৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. ATP Profile
  2. ITF Juniors Profile
  3. "AUSTRALIAN OPEN JUNIOR CHAMPIONSHIPS" (PDF)। International Tennis Federation। সংগ্রহের তারিখ ৭ জানুয়ারি ২০১৪ 
  4. "Yuki Bhambari – Profile at Association of Tennis Professionals" 
  5. "Davis cup profile – Yuki Bhambri" 
  6. "Yuki Bhambari – Profile at ITF tennis" 
  7. "Interview with Indian Tennis Daily"। সংগ্রহের তারিখ ৫ জানুয়ারি ২০১৮ 
  8. Blake, Amy (৩১ জানুয়ারি ২০০৯)। "Bhambri takes out boys' singles"। সংগ্রহের তারিখ ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১০ 
  9. "Yuki-Divij clinch ATP Challenger title in Busan"। ১৩ মে ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  10. "Yui Bhambri"। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-২০ 
  11. "Yuki Bhambri wins Traralgon Challenger title"। IBN Live। ২৭ অক্টোবর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৪ এপ্রিল ২০১৪ 
  12. "Bhambri, Sharan end runners-up at Tashkent ATP Challenger"। Times Of India। PTI। ১৩ অক্টোবর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৩ নভেম্বর ২০১৭ 
  13. Judge, Shahid (১৬ এপ্রিল ২০১৮)। "Yuki Bhambri wins Taipei Challenger, set to return to top-100 ranking"। সংগ্রহের তারিখ ১৬ এপ্রিল ২০১৮ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা