আবদুল্লাহ শাত্তার

সিরাজউদ্দিন আবদুল্লাহ শাত্তার (আরবি: سراج الدين عبد الله شتر‎) ১৫শ শতকের একজন বিশিষ্ট সুফি সাধক ছিলেন, যাকে শাত্তারীয় মতবাদের নামীয় প্রতিষ্ঠাতা বলে মনে করা হয়।[১] তিনি তাঁর সুফিবাদী মতবাদ মাওয়ারান্নাহর থেকে ভারত উপমহাদেশে নিয়ে আসেন, যেখানে তাঁর উত্তরাধিকারীগণ তার আরও প্রসার করেন।[১][২] ষোড়শ শতাব্দীর শেষভাগে হারামাইনে এই মতবাদ প্রবর্তিত হয় এবং তাদের মাধ্যমে ভারত উপমহাদেশ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় এর আগমন হয়।[১]

ইসকীয় ও বোস্তামীয় ঐতিহ্য অনুসারে আব্দুল্লাহ সুফিবাদের শিক্ষা করেছিলেন, পরবর্তীতে খোরাসানউসমানীয় তুরস্কে গিয়ে তিনি তাঁর জ্ঞান সমৃদ্ধ আরও সমৃদ্ধ করেছিলেন।[২][৩] তাঁর গুরু তাকে শাত্তার নাম দিয়েছিলেন, আরবি-উৎস হতে আগত একটি ফার্সি শব্দ যার অর্থ "বজ্রপাত", যা আধ্যাত্মিক অনুশীলনের একটি নিয়মকে নির্দেশ করে যা দ্রুত "সম্পূর্ণ" হওয়ার দিকে নিয়ে যায়।[১][৪] তাঁর শিক্ষার ধারাটি তাঁর গুরু মুহাম্মদ আরিফের কাছ থেকে শুরু হয়েছিল, পরবর্তীতে মুহাম্মদ আশিক, খুদা কুলি, আবুল হাসান আল-খারাকানি, আবুল মুজাফফর আল-তুসি, আবু ইয়াজিদ ইশকি, মুহাম্মদ আল-মাগরিবি ও সর্বশেষ বায়েজিদ বোস্তামীর কাছ থেকে তিনি জ্ঞানার্জন করেন।[৫]

আবদুল্লাহ তাঁর মতবাদ প্রচারের জন্য ভারতে যান এবং তাঁর নীতি চালু করার জন্য অনেক সুফি দল পরিদর্শন করেন।[১] সুলতান গিয়াসউদ্দিন তুঘলকের পৃষ্ঠপোষকতায় মুন্ডুতে বসতি স্থাপনের আগে তিনি দিল্লি, জৌনপুর, বিহার, বাংলা ও মালওয়া সফর করেন।[৩] তাঁর মতবাদ প্রচারিত না হওয়া পর্যন্ত আব্দুল্লাহ সেখানেই অবস্থান করেন। তিনি ১৪৮৫ সালে ভারত মারা যান।[১][৬] পরবর্তীতে তাঁর শিক্ষা ও মতবাদ তাঁর উত্তরাধিকারীদের মাধ্যমে বিভিন্ন মুঘল শাসকদের উপর প্রভাব বিস্তার করে।[১]

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. শাহ, ইদ্রিস (১৯৯৯)। The Sufis (চিত্রিত, পুনর্প্রকাশ সংস্করণ)। অক্টাগন প্রেস লিমিটেড। আইএসবিএন 9780863040740 
  2. আর্নস্ট, কার্ল ডব্লিউ (১৯৯৯)। ফ্রেড ডি জং, বের্ন্ট রিটকে, সম্পাদক। "Persecution and Circumspection in the Shattari Sufi Order"Islamic Mysticism Contested: Thirteen Centuries of Debate and Conflict, in 'Islamic History and Civilization'। লিডেন: ই.জে. ব্রিল। 
  3. বেহ্ল, আদিত্য (২০১২)। Love's Subtle Magic: An Indian Islamic Literary Tradition, 1379-1545। ওইউপি ইউএসএ। আইএসবিএন 9780195146707 
  4. দেহলভী, গোলাম রাসুল (জুন ১৫, ২০১৯)। "Mystic Mantra: Gwalior's Sufi mystic and the yogic experience"। ডেকান ক্রনিকল। 
  5. ক্রিস্টোমি, টমি (২০০৮)। "Linking to the Wider World of Sufism" (PDF)Signs of the Wali: Narratives at the Sacred Sites in Pamijahan, West Java। এএনইউ প্রেস। [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  6. কুগেল, স্কট (২০১১)। Sufis and Saints' Bodies: Mysticism, Corporeality, and Sacred Power in Islam (চিত্রিত সংস্করণ)। ইউনিভ অফ নর্থ ক্যারোলাইনা প্রেস। আইএসবিএন 9780807872772