প্রধান মেনু খুলুন

আউফবাউ নীতি

শক্তিক্রম অনুসারে ইলেক্ট্রন বিন্যাস রীতি
কোনো অরবিটালে ইলেকট্রন প্রবেশের ক্ষেত্রে আউফবাউ নীতি অনুসরণ

আউফবাউ নীতি কোনো পরমাণু বা আয়নের ইলেকট্রনের বিন্যাস বা কনফিগারেশন নির্ধারণে ব্যবহার করা হয়। এটি 3d ও 4s অরবিটালদ্বয়ের ইলেকট্রন ধারণক্ষমতার ধারাবাহিকতা প্রকাশ করে। আউফবাউ (aufbau) একটি জার্মান শব্দ, যার অর্থ নির্মাণ করা বা উপরে যাওয়া। এ নীতি হলো:

"কোনো পরমাণুর ইলেক্ট্রনসমূহ তাদের শক্তির উচ্চক্রম অনুসারে প্রবেশ করবে। " [১]

ব্যাখ্যাসম্পাদনা

নীতি অনুযায়ী,

দুটি অরবিটালের মধ্যে কোনটির শক্তি কম বা বেশি, তা অরবিটালদ্বয়ের প্রধান কোয়ান্টাম সংখ্যা ও সহকারী কোয়ান্টাম সংখ্যা দ্বারা নির্ণীত হয়।

প্রধান কোয়ান্টাম সংখ্যা (n) ও সহকারী কোয়ান্টার সংখ্যা্য (l) যোগফল (n+l) এর মাধ্যমে কোনো অরবিটালের শক্তি নির্ণয় করা হয়।

যেমন: 3d ও 4s অরবিটালের মধ্যে – 3d এর জন্য n=3 এবং l=2 সুতরাং n+l = 3+2=5 4s এর জন্য n=4 এবং l=0 সুতরাং n+l = 4+0=4

4s অরবিটালের শক্তি কম। সুতরাং 4s অরবিটালে আগে ইলেকট্রন প্রবেশ করবে,পরে 3d অরটিলে ইলেকট্রন প্রবেশ করবে।

1s < 2s < 2p < 3s < 3p < 4s < 3d < 4p < 5s < 4d < 5p < 6s < 4f < 5d < 6p < 7s

তবে d এবং f উপস্তরের বিন্যাস একটু ভিন্ন রকমের।

যদি d উপস্তর পূর্ণ বা অর্ধ পূর্ণ হওয়ার জন্য ১টি ইলেকট্রন কম থাকে অর্থাৎ ৯টি বা ৪টি ইলেকট্রন থাকে, তাহলে পরবর্তী উপস্তর থেকে একটি ইলেকট্রন d উপস্তরে স্থানান্তরিত হয় । উদাহরণ: ক্রোমিয়াম Cr(24), তামা Cu(29), মলিবডেনাম Mo (42), রূপা Ag (47) এর ইলেকট্রন বিন্যাস ।

আর Ra (88) এর উপস্তর 7s পূর্ণ হওয়ার পর বর্ণিত ধারা অনুযায়ী Ac(89) এ বাড়তি ইলেকট্রন 5f এ প্রবেশ না করে 6d তে প্রবেশ করে। অবশ্য এর পর ইলেকট্রন গুলো Pa(91) থেকে Lr(103) পর্যন্ত মৌলগুলোতে এক এক করে 5f এ প্রবেশ করে । Lr(103) মৌলে 5f পূর্ণ হওয়ার পর নিয়মানুযায়ী 6d উপস্তর ইলেকট্রন প্রবেশ করতে থাকে ।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. হাজারী, সরোজ কান্তি সিংহ এবং নাগ, হারাধন ২০১৯. রসায়ন প্রথম পত্র: একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণি. (চতুর্থ সংস্করণ). হাসান বুক হাউস, ঢাকা.

আরো পড়ুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা