অম্ব মন্দিরসমূহ

অম্ব মন্দিরসমূহ (উর্দু: امب مندر‎‎) হল পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের কোহ-এ-নমক পর্বতমালার সাকেসার পর্বতের পশ্চিম প্রান্তে অবস্থিত একটি পরিত্যক্ত মন্দির চত্বর। মন্দিরগুলি স্থানীয়ভাবে অম্ব শরিফ (উর্দু: امب شریف‎‎; "মহান অম্ব") নামে পরিচিত। খ্রিস্টীয় সপ্তম থেকে নবম শতাব্দীর মধ্যবর্তী সময়ে হিন্দু শাহী সম্রাটদের শাসনকালে এই মন্দির চত্বরটি নির্মিত হয়েছিল।[১]

অম্ব মন্দিরসমূহ
امب مندر
AMB Temple in Soon Sakasar Valley by Usman Ghani.JPG
পাকিস্তানের কোহ-এ-নমক পর্বতমালায় অম্ব মন্দির চত্বরে দু’টি মন্দিরের ধ্বংসাবশেষ
লুয়া ত্রুটি মডিউল:অবস্থান_মানচিত্ এর 393 নং লাইনে: স্থানাঙ্কের মান বিকৃত।
অবস্থানখুশাব জেলা
পাঞ্জাব
পাকিস্তান পাকিস্তান
অঞ্চলকোহ-এ-নমক পর্বতমালা
স্থানাঙ্ক
ধরনমন্দির চত্বর
ইতিহাস
প্রতিষ্ঠিতখ্রিস্টীয় সপ্তম-নবম শতাব্দী
সময়কালহিন্দু শাহী
সংস্কৃতিপাঞ্জাবি হিন্দু

অবস্থানসম্পাদনা

পাকিস্তানের সুন উপত্যকায় সাকেসার পর্বতে অম্ব শরিফ গ্রামের কাছে এই ধ্বংসাবশেষ অবস্থিত। কোহ-এ-নমক পর্বতমালায় অবস্থিত হিন্দু মন্দির চত্বরের সর্বপশ্চিমের ধ্বংসাবশেষগুলি অম্ব মন্দিরসমূহ নামে পরিচিত। উল্লেখ্য, উক্ত মন্দির চত্বরেই কটাসরাজ মন্দিরসমূহটিলা জোগিয়ান মঠ চত্বর অবস্থিত।

স্থাপত্যসম্পাদনা

অম্ব মন্দিরসমূহের মধ্যে ১৫ থেকে ২০ ফুট উঁচু ত্রিতলবিশিষ্ট প্রধান মন্দিরটি একটি বর্গাকার স্তম্ভপীঠের উপর ইট ও চুনসুড়কি দিয়ে নির্মিত। এই মন্দিরটিকে হিন্দু সাহী সাম্রাজ্যের সর্বাপেক্ষা সুন্দর মন্দির মনে করা হয়।[২] এই মন্দির থেকে কূপাকৃতি সিঁড়ি নেমে গিয়েছে অভ্যন্তরীণ প্রদক্ষিণপথগুলির দিকে।[৩]

মন্দিরের বহির্ভাগ একটি তীক্ষ্ণ ডগাবিশিষ্ট কুলুঙ্গি সহ কাশ্মীরি শৈলীর শিল্পকর্ম দ্বারা শোভিত।[৩] তবে প্রধান মন্দিরের গঠনশৈলী কাশ্মীরি মন্দিরগুলির মতো নয়। কাশ্মীরি মন্দিরগুলির চূড়া সাধারণত সূচালো হয়।[৩] কিন্তু প্রধান মন্দিরটির শৈলী নিকটবর্তী কালার মন্দির ও খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের কাফির কোট মন্দিরের অনুরূপ।[৪]

প্রধান মন্দিরের পশ্চিমে প্রায় ৭৫ মিটার দূরে পাহাড়ের খাড়া পাড়ের কিনারায় আরেকটি অপেক্ষাকৃত ক্ষুদ্রায়তন মন্দির রয়েছে। এই দ্বিতল মন্দিরটির উচ্চতা সাত থেকে আট মিটার।[৫] এই মন্দিরে একটি ছোটো দ্বারমণ্ডপ রয়েছে যেটির মুখ প্রধান মন্দিরের দিকে। কয়েক মিটার দূরে আরেকটি অনুরূপ মন্দির ছিল। বর্তমানে এটির আর অস্তিত্ব নেই।[৩] সমগ্র মন্দির চত্বরটি পরিখা ও প্রাচীরবেষ্টিত দূর্গ দ্বারা পরিবেষ্টিত ছিল। পরবর্তী কুষাণ যুগে নির্মিত এই দুর্গটি এই অঞ্চলের আদিতম নির্মাণকার্য।[৩]

সংরক্ষণসম্পাদনা

ঊনবিংশ শতাব্দীর শেষভাগে আলেকজান্ডার কানিংহাম এই স্থানটি পরিদর্শন করেন এবং ১৯২২-২৪ সালে দয়ারাম সাহানি কর্তৃক ক্ষেত্রটি আংশিকভাবে সংরক্ষিত হয়।[৩] বহু শতাব্দী ধরে মন্দিরটি লুণ্ঠন করা হয়েছিল। ঊনবিংশ শতাব্দীর শেষভাগেই এই স্থান থেকে শেষ অবশিষ্ট ভাস্করটি সরিয়ে লাহোর জাদুঘরে স্থানান্তরিত হয়।[৩] বর্তমানে স্থানটি পাকিস্তানের অ্যান্টিক্যুইটিজ অ্যাক্ট (১৯৭৫) কর্তৃক সুরক্ষিত।

চিত্রকক্ষসম্পাদনা

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Gazetteer of the Attock District, 1930, Part 1। Sang-e-Meel Publications। ১৯৩২। সংগ্রহের তারিখ ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  2. Rashid, Salman (২০০১)। The Salt Range and the Potohar Plateau। Sang-e-Meel Publications। আইএসবিএন 9789693512571। সংগ্রহের তারিখ ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  3. Meister, Michael (২০০৫)। "Fig Gardens of Amb-Sharif, Folklore and Archaeology"। East and West। Istituto Italiano per l'Africa e l'Oriente। 55 (1/4)। জেস্টোর 29757645 
  4. Journal of the Royal Asiatic Society of Great Britain and Ireland। Cambridge University Press for the Royal Asiatic Society। ১৯০৩। সংগ্রহের তারিখ ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  5. Sakesar temple

টেমপ্লেট:পাঞ্জাব, পাকিস্তানের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যবাহী স্থানসমূহ