প্রধান মেনু খুলুন

আলেকজান্ডার কানিংহাম

ব্রিটিশ আর্মি জেনারেল

স্যার আলেকজান্ডার কানিংহাম, কেসিআইই সিএসআই (২৩ জানুয়ারি ১৮১৪ - ২৮ নভেম্বর ১৮৯৩) একজন ইংরেজ প্রত্নতত্ত্ববিদ এবং সামরিক প্রকৌশলী। ভারতের প্রত্নতত্ত্ব নিয়ে অসাধারণ কিছু কাজ করার জন্য তাকে 'ফাদার অফ আর্কলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া' বলা হয়। তাঁর অপর দুই ভাই, ফ্রান্সিস কানিংহাম এবং জোসেপ কানিংহাম-ও ব্রিটিশ ভারতে তাদের অসাধারণ কর্মকান্ডের জন্য বহুল পরিচিত।

পরিচ্ছেদসমূহ

প্রথম জীবন এবং কর্ম জীবনসম্পাদনা

আলেকজান্ডার কানিংহাম ১৮১৪ সালে লন্ডনে স্কটিশ কবি এ্যালান কানিংহামের ঘরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯ বছর বয়সে সেকেন্ড ল্যাফটেন্যান্ট হিসেবে বেঙ্গল ইন্জিনিয়াস্‌-এ যোগ দান করেন এবং পরবর্তী ২৮ বছর ভারতে ব্রিটিশ সরকারের সাথে এতে যুক্ত থাকেন। ভারতে আসার পর, ১৮৩৩ সালের জুনে তিনি জেমস প্রিন্সেপ-এর সাথে পরিচিত হন, যা তাঁকে ভারতের প্রত্মতত্ত্ব এবং প্রত্নসম্পদের প্রতি আগ্রহী করে গোলে।তিনি ১৮৩৬ থেকে ১৮৪০ ভারতের গভর্ণর জেনারেল-এর দায়িত্বে থাকা লর্ড অকল্যান্ড-এর ‌এডিসি ছিলেন। কানিংহাম ১৮৪০ সালের ৩০ মার্চ মার্টিন হুয়িশ বি.সি.এস.-এর কন্যা এ্যালিসিয়া মারিয়া হুয়িশ-কে বিয়ে করেন।[১] তিনি ১৮৬০ সালে কর্ণেল পদে পদোন্নতি পান। তিনি মেজর জেনারেল পদে থেকে অবসর গ্রহণ করেন।

সামরিক জীবনসম্পাদনা

সম্মননাসম্পাদনা

তিনি ১৮৭০ সালের ২০ মে অর্ডার অফ দ্যা স্টার অফ ইন্ডিয়া (সিএসআই) এবং ১৮৭৮ সালে অর্ডার অফ দ্যা ইন্ডিয়ান এম্প্যায়ার (সিআইই) খেতাবে ভূষিত হন। ১৮৮৭ সালে তাঁকে নাইট কমান্ডার অফ দ্যা অর্ডার অফ দ্যা ইন্ডিয়ান এম্প্যায়ার (কেসিআইই) সম্মানে ভূষিত করা হয়।[১]

মধ্য ভারতে বৌদ্ধ স্থাপনা আবিস্কারসম্পাদনা

কানিংহাম সারনাথ, সানচি, মহাবোধি মন্দির প্রভৃতি ভারতে বিভিন্ন প্রাচীন এলাকার খনন ও আবিস্কারের সাথে যুক্ত ছিলেন। তাঁর গৃহীত কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় মহাবোধি মন্দির পূন:সজ্জিত করণ সম্পন্ন করা হয়।

তিনি ১৮৯৩ সালের ২৮ নভেম্বর লন্ডনে মৃত্যু বরণ করেন।

বর্তমানে ব্রিটিশ মিউজিয়াম-এ তাঁর সংগৃহীত ভারতীয় প্রাচীন মুদ্রা প্রদর্শিত হয়।

প্রকাশিত রচনাসম্পাদনা

তাঁর রচিত গবেষণা গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে:

  • LADĀK: Physical, Statistical, and Historical with Notices of the Surrounding Countries (১৮৫৪).
  • Bhilsa Topes (১৮৫৪); বৌদ্ধ সংক্রান্ত ইতিহাস গ্রন্থ
  • The Ancient Geography of India (১৮৭১)
  • The Book of Indian Eras (১৮৮৩)
  • Coins of Ancient India (১৮৯১)
  • The Stupa of Bharhut : A Buddhist Monument Ornamented with Numerous Sculptures Illustrative of Buddhist Legend and History in the Third Century B.C. (১৮৭৯); লন্ডন থেকে ১৯৯৮ সালে পুন:মুদ্রিত

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Cunningham, A. (1871)The Ancient Geography of India, Vol. 1, p.xiii. Trübner and Co.India. pp. 589
  •   এই নিবন্ধটি একটি প্রকাশন থেকে অন্তর্ভুক্ত পাঠ্য যা বর্তমানে পাবলিক ডোমেইনেচিসাম, হিউ, সম্পাদক (১৯১১)। ব্রিটিশ বিশ্বকোষ (১১তম সংস্করণ)। কেমব্রিজ ইউনিভার্সিটি প্রেস। 

বহি:সংযোগসম্পাদনা