হুসেইন ইয়ে বা হুসেন ঈ (জন্ম: ১৯৫০) হলেন একজন বিখ্যাত চীনা বংশদ্ভুত মালয়েশিয়ান পণ্ডিত এবং ইসলামি বক্তা।[১][২]

হুসেইন ইয়ে
Hussein Yee - Malaysia.jpg
জন্ম১৯৫০
জাতীয়তামালয়েশিয়া
মাতৃশিক্ষায়তনমদীনা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়
পেশাইসলাম প্রচারক, বক্তা
পরিচিতির কারণদাওয়াহ

জীবনীসম্পাদনা

জন্ম ও শিক্ষাজীবনসম্পাদনা

হুসেইন ইয়ে ১৯৫০ সালে একটি বৌদ্ধ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৬৮ সালে মাত্র ১৮ বছর বয়সে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে তিনি সৌদি আরবের মদীনা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে হাদিস বিভাগে অধ্যয়ন করেন। এ সময় তিনি বিংশ শতাব্দীর প্রখ্যাত ইসলামী চিন্তাবিদ মুহাম্মদ নাসিরুদ্দীন আল-আলবানীর অধীনে পড়াশোনা করেন।[৩]

কর্মজীবনসম্পাদনা

১৯৭৮ সালে স্নাতক হওয়ার পর তিনি মালয়েশিয়া ফিরে আসেন এবং মুসলিম কল্যাণ সংস্থায় যোগদান করেন, যে সংস্থাটি ইসলাম ধর্মে দীক্ষিতদের কল্যাণে কাজ করতো। পরবর্তীতে তিনি হংকংয়ের একটি ইসলামিক সেন্টার এর পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[২]

এছাড়া তিনি লন্ডন ভিত্তিক ইসলামিক শিক্ষা ও গবেষণা একাডেমী বোর্ড-এর সদস্য ছিলেন।

বর্তমানে তিনি আল-খাদেম ইন্টারন্যাশনাল নামক একটি ইসলামি কল্যাণ সংস্থার সভাপতি যা তিনি ১৯৮৪ সালে প্রতিষ্ঠা করেন।

২০১৫ সালে তিনি অস্ট্রেলিয়ান ইসলামী শান্তি সম্মেলনে উপস্থিত ইহুদী ও খ্রীষ্টান ধর্মের ধর্মীয় নেতাদের সামনে তান-ঠিকানা প্রদান করেন।

মিডিয়ায় উপস্থিতিসম্পাদনা

হুসেইন ইয়ে বাহরাইন টিভি, ইসলাম চ্যানেল পিস টিভি, এবং ইকরা টিভি সহ বিভিন্ন ইসলামী টেলিভিশন চ্যানেলের জনপ্রিয় বক্তা।

মন্তব্যসম্পাদনা

তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র-এ ১১ সেপ্টেম্বরের হামলার ব্যাপারে বলেন, মুসলিম সন্ত্রাসীদের জন্য সকল মুসলিম দায়ী নয় যার ভিত্তি শুধুমাত্র "সন্দেহ"।

পারিবারিক জীবনসম্পাদনা

হুসেইন ইয়ের কন্যা ওয়াফা হুসেইন ইয়ে ইসলামী অনলাইন বিশ্ববিদ্যালয়ে তাজবিদ শিক্ষা প্রদান করেন।

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Biography: Sheikh Hussain Yee"Islam Events। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ অক্টোবর ২০১৫ 
  2. "Hussain Ye"Peace TV। সংগ্রহের তারিখ ৩১ অক্টোবর ২০১৫ 
  3. http://www.peacetv.tv/en-gb/speakers/hussain-ye

বহিঃসংযোগসম্পাদনা