প্রধান মেনু খুলুন

হলি হান্টার (ইংরেজি: Holly Hunter; জন্ম: ২০শে মার্চ, ১৯৫৮) হলেন একজন মার্কিন অভিনেত্রী ও প্রযোজক। তিনি ১৯৯৩ সালে দ্য পিয়ানো চলচ্চিত্রে আডা ম্যাকগ্রা চরিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কার, বাফটা পুরস্কার, গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার এবং কান চলচ্চিত্র উৎসব পুরস্কার লাভ করেন। এছাড়া তিনি ব্রডকাস্ট নিউজ (১৯৮৭) চলচ্চিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে এবং দ্য ফার্ম (১৯৯৩) ও থার্টিন (২০০৩) চলচ্চিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

হলি হান্টার
Holly Hunter by Gage Skidmore.jpg
স্থানীয় নাম
Holly Hunter
জন্ম (1958-03-20) ২০ মার্চ ১৯৫৮ (বয়স ৬১)
বাসস্থাননিউ ইয়র্ক সিটি, নিউ ইয়র্ক, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
শিক্ষাস্নাতক (নাট্যতত্ত্ব)
যেখানের শিক্ষার্থীকার্নেগি মেলন বিশ্ববিদ্যালয়
পেশাঅভিনেত্রী, প্রযোজক
কার্যকাল১৯৮১–বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীজানুসৎস কামিন্‌স্কি
(বি. ১৯৯৫; বিচ্ছেদ. ২০০১)
সঙ্গীগর্ডন ম্যাকডোনাল্ড
(২০০১–বর্তমান)
সন্তান

সাতবার এমি পুরস্কারে মনোনীত হান্টার রো ভার্সাস ওয়েড (১৯৮৯) এবং দ্য পজিটিভলি ট্রু অ্যাডভেঞ্চার্‌স অব দ্য অ্যালিজড টেক্সাস চিয়ারলিডার-মার্ডারিং মম (১৯৯৩) এ অভিনয় করে দুবার এমি পুরস্কার লাভ করেন। তিনি টিএনটির নাট্য ধারাবাহিক সেভিং গ্রেস (২০০৭-১০) এ শ্রেষ্ঠাংশে অভিনয় করেন। তার অন্যান্য চলচ্চিত্রসমূহ হল রাইজিং অ্যারিজোনা (১৯৮৭), অলওয়েজ (১৯৮৯), কপিক্যাট (১৯৯৫), ক্র্যাশ (১৯৯৬), ও ব্রাদার, হোয়্যার আর্ট দো? (২০০০), দি ইনক্রেডিবল্‌স (২০০৪), ব্যাটম্যান ভার্সেস সুপারম্যান: ডন অব জাস্টিস (২০১৬), এবং দ্য বিগ সিক (২০১৭)। দ্য বিগ সিক চলচ্চিত্রের অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

হান্টার ১৯৫৮ সালের ২০শে মার্চ জর্জিয়ার কনিয়ার্সে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা চার্লস এডউইন হান্টার ছিলেন একজন কৃষক ও খেলাধুলার সরঞ্জাম প্রস্তুতকারীর প্রতিনিধি এবং তার মাতা ওপাল মার্গুরিট (প্রদত্ত নাম: ক্যাটলেজ) ছিলেন একজন গৃহিণী।[১] হান্টার পিট্‌সবার্গের কার্নেগি মেলন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নাট্যতত্ত্ব বিষয়ে ডিগ্রি অর্জন করেন। সেখানে পড়াকালীন তিনি মঞ্চে অভিনয় করতেন। তিনি সেখানে সিটি থিয়েটারে (তৎকালীন সিটি প্লেয়ার্স) ইঞ্জিনিউ চরিত্রে অভিনয় করতেন।[২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Holly Hunter Biography (1958-)" (ইংরেজি ভাষায়)। ফিল্ম রেফারেন্স। সংগ্রহের তারিখ ২০ মার্চ ২০১৮ 
  2. Conner, Lynne (2007). Pittsburgh In Stages: Two Hundred Years of Theater. University of Pittsburgh Press. pg. 247. আইএসবিএন ৯৭৮-০-৮২২৯-৪৩৩০-৩

বহিঃসংযোগসম্পাদনা