সুবোধ চন্দ্র বসু মল্লিক

সুবোধ চন্দ্র বসু মল্লিক বা রাজা সুবোধ মল্লিক (৯ ফেব্রুয়ারি ১৮৭৯ - ১৪ নভেম্বর ১৯২০) কলকাতার পটলডাঙ্গা নিবাসী ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামী। তিনি বাংলার গুপ্ত বিপ্লবী দলের নেতৃত্ব স্থানীয় ব্যক্তি ছিলেন। তার পিতার নাম প্রবোধ চন্দ্র বসু মল্লিক। মাতার নাম কুমুদিনী বসু মল্লিক।

কলকাতার সেন্ট জেভিয়ার্স বিদ্যালয় থেকে বিদ্যালয় পাঠ শেষ করে প্রেসিডেন্সী কলেজে ভর্তি হন। এরপর ১৯০০ সালে এফ এ ডিগ্রি লাভ করার পর ইংল্যান্ডে আইন পড়ার জন্য ট্রিনিটি কলেজে ভর্তি হন। একবছরের মধ্যে পারিবারিক কারণে তিনি কলকাতা ফিরে আসেন এবং স্বদেশী আন্দোলনে যুক্ত হন। কলকাতার ওয়েলিংটন স্কোয়ারে তাদের বাড়িটি থেকেই স্বদেশী আন্দোলনের কার্যকলাপ চলতে থাকে। ১৯০৬ সালে জাতীয় বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্যে তিনি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করার জন্য ১ লক্ষ টাকা দান করেন। দেশবাসী উল্লসিত হয়ে তাঁকে “রাজা” উপাধি দেন। এছাড়াও তিনি সুরাট কংগ্রেসের বাঙালি প্রতিনিধিদের ব্যয় ভার বহন করেন। এই বছরই তিনি বরিশাল কনফারেন্স যোগ দেন এবং সমগ্র পূর্ববঙ্গ পরিভ্রমণ করেন। শ্রীঅরবিন্দকে দীর্ঘদিন নিজ বাড়িতে রেখেছিলেন। “বন্দেমাতরম” পত্রিকা প্রতিষ্ঠার জন্য বসত বাড়ি দান করেন। ১৯০৮ - ১০ খ্রিস্টাব্দে তাঁকে বিনাবিচারে আটক রাখা হয়। ১৯১৮ খ্রিস্টাব্দে ৩নং ধারায় যে ৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয় তিনি তাঁদের অন্যতম। ১৯০৬ খ্রিস্টাব্দ থেকে আমৃত্যু জাতীয় শিক্ষা পরিষদের ট্রাস্টি ছিলেন তিনি। তিনি কলকাতায় লাইট অফ এশিয়া ইন্সিওরেন্স কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করেন।[১][২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  • চক্রবর্তী, কুণাল; চক্রবর্তী, শুভ্রা (২০১৩), Historical Dictionary of the Bengalis, Rowman & Littlefield, আইএসবিএন 978-0810853348 

আরও পড়ুনসম্পাদনা

Raja Subodh Chandra Mallik and his times. By Amalendu De. National Council of Education, Bengal. 1996 http://www.aurobindo.ru/persons/00089_e.htm ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১১ এপ্রিল ২০১৬ তারিখে