সুবহান কুলি কুতুব শাহ

৩য় গোলকোন্ডার সুলতান

সুবহান কুলি কুতুব শাহ (১৫৪৩-১৫৫০) ১৫৫০ সালে পিতা জামশেদ কুলি কুতুব শাহ-এর মৃত্যুর পরে গোলকোন্ডার সুলতান হয়, তখন তার বয়স ছিল ৭ বছর। সাইফ খানকে, যিনি আইনুল মুলক নামে পরিচিত, আহমেদনগর থেকে সুবহান কুলি কুতুব শাহের বেড়ে ওঠার সময় রাজপ্রতিনিধির দায়িত্ব পালনের জন্য পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু জামশেদের ছোট ভাই ইবরাহিম কুলি কুতুব শাহ বিজয়নগর থেকে গোলকোন্ডায় ফিরে এসে সিংহাসনে আরোহণ করেন। একই বছর সুবহানকে পদচ্যুত করা হয়েছিল, এবং অসুস্থতায় মারা গিয়েছিলেন বা হত্যা করা হয়েছিল।[১]

সুবহান কুলি কুতুব শাহ
কুতুব শাহি রাজবংশের তৃতীয় সুলতান
হায়দ্রাবাদের কুতুব শাহি সমাধিতে সুবহান কুলি কুতুব শাহের সমাধি
রাজত্ব১৫৫০
পূর্বসূরিজামশেদ কুলি কুতুব শাহ
উত্তরসূরিইবরাহিম কুলি কুতুব শাহ
জন্ম১৫৪৩
মৃত্যু১৫৫০ (বয়স ৬–৭)
প্রাসাদকুতুব শাহি রাজবংশ
পিতাজামশেদ কুলি কুতুব শাহ
পূর্বসূরী:
জামশেদ কুলি কুতুব শাহ
কুতুব শাহি রাজবংশ
১৫৫০
উত্তরসূরী:
ইবরাহিম কুলি কুতুব শাহ

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "পাহাড় চূড়ার মসজিদ ও পায়রার উড়ান"banglanews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৭-২৪ 

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা