শফিকুর রহমান (জেনারেল)

লেফটেন্যান্ট জেনারেল শফিকুর রহমান হলেন বাংলাদেশের একজন সেনা কর্মকর্তা যিনি সেনাবাহিনীর চিফ অব জেনারেল স্টাফ (সিজিএস) এর দায়িত্ব পেয়েছেন। তিনি স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্স (এসএসএফ) এর সাবেক মহাপরিচালক। (বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী, রাষ্টপতি, জাতির পিতার পরিবারবর্গসহ রাষ্ট্র কর্তৃক ঘোষিত অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের নিরাপত্তা প্রধান করে থাকে সংস্থাটি।) সেনা সদর দফতরে ডিরেক্টর অব মিলিটারি অপারেশনস (ডিএমও) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[১]

মো. শফিকুর রহমান
আনুগত্য বাংলাদেশ
সার্ভিস/শাখা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী
পদমর্যাদাBangladesh-army-OF-8.svgলেফটেনেন্ট জেনারেল
Three star.jpg
ইউনিটইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট
নেতৃত্বসমূহ
  • সেনাবাহিনীর চিফ অব জেনারেল স্টাফ (সিজিএস)
  • মহাপরিচালক স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্স (এসএসএফ)
  • জিওসি -৫৫তম পদাতিক ডিভিশন
  • জিওসি -১৯তম পদাতিক ডিভিশন
  • জিওসি-২৪তম পদাতিক ডিভিশন

জন্ম ও শিক্ষাজীবনসম্পাদনা

রহমান ১৯৬২ সালের ৩১ ডিসেম্বর পূর্ব পাকিস্তানের শরীয়তপুর জেলায় (বর্তমানে বাংলাদেশ) জন্মগ্রহণ করেন। ২১ ডিসেম্বর ১৯৮৪ তারিখে কর্পস অব ইনফেনট্রিতে কমিশন লাভ করেন। তিনি নেদারল্যান্ডসের ওপিসিডাব্লিউ অ্যাডভান্স কোর্স, পাকিস্তান জুনিয়র স্টাফ কোর্স, ফিলিপাইনের কমান্ড অ্যান্ড জেনারেল স্টাফ কোর্স এবং রোমানিয়ায় ওপিসিডব্লিউ বুনিয়াদি কোর্স সম্পন্ন করেন। তিনি ডিফেন্স সার্ভিসেস কমান্ড এবং স্টাফ কলেজ থেকে স্নাতক হন এবং ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজে আর্মি ওয়ার কোর্স সম্পন্ন করেন। তিনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিরক্ষা শিক্ষায় মাস্টার্স সম্পন্ন করেন । তিনি বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস থেকে যুদ্ধ অধ্যয়নেও মাস্টার্স সম্পন্ন করেন এবং মাস্টার্সের জন্য চ্যান্সেলর পুরস্কার পান। [২]

কর্মজীবনসম্পাদনা

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে সুনামের সাথে বেশ কয়েকটি বড় দায়িত্ব পালন করেন। তিনি সেনা সদর দফতরে ডিরেক্টর অব মিলিটারি অপারেশনস (ডিএমও) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। চিফ অব জেনারেল স্টাফ (সিজিএস), জিওসি -৫৫তম পদাতিক ডিভিশন, জিওসি -১৯তম পদাতিক ডিভিশন, জিওসি-২৪তম পদাতিক ডিভিশন হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমী এবং স্কুল অব ইনফ্যান্ট্রি অ্যান্ড টেকটিক্সের প্রশিক্ষক ছিলেন। তিনি ডিফেন্স সার্ভিসেস কমান্ড এবং স্টাফ কলেজের একজন সিনিয়র শিক্ষক ছিলেন। [২] ২০১৫ সালে তিনি চট্টগ্রাম এলাকা কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। [৩] ২০১০ সালের ১০ এপ্রিল তিনি স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্স এর মহাপরিচালক নিযুক্ত হন। [৪][৫] ২০১৮ সালের ২৮ জুলাই তাকে লেফট্যানেন্ট জেনারেল পদে পদোন্নতি দেওয়া হয় এবং সেনাবাহিনীর চিফ অব জেনারেল স্টাফ (সিজিএস) পদে নিযুক্ত হন। [৬]

জাতিসংঘ মিশনসম্পাদনা

তিনি নিউইয়র্ক শহরের জাতিসংঘের সদর দফতরে বাংলাদেশের সিনিয়র সামরিক যোগাযোগ কর্মকর্তা ছিলেন। [২] তিনি সোমালিয়া আইতে জাতিসংঘের পাঠানো অপারেশনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অংশ ছিলেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Director General of Special Security Force - Back Page - observerbd.com"The Daily Observer। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১৫ 
  2. "Biography of DG SSF"ssf.gov.bd। ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৮ 
  3. "Hasina asks army to serve country"Prothom Alo (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৮ 
  4. "New DG at SSF"New Age। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৮ 
  5. "Don't isolate me with security measures: PM"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১৫ জুলাই ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৮ 
  6. "Shafiqur made CGS, Mujibur new DG of SSF"The Independent। Dhaka। ৩১ জুলাই ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২ আগস্ট ২০১৮