প্রধান মেনু খুলুন

রেনকোজি মন্দির

জাপানের টোকিয়ো শহরে অবস্থিত বৌদ্ধ মন্দির

রেনকোজি মন্দির (蓮光寺) জাপানের টোকিও শহরের একটি বৌদ্ধ মন্দির। মনে করা হয় যে, ১৯৪৫ খ্রিষ্টাব্দের ১৮ই সেপ্টেম্বর থেকে এই মন্দিরে ভারতীয় স্বাধীনতা সংগ্রামী সুভাষচন্দ্র বসুর অস্থিভস্ম রক্ষিত আছে।[১]

রেনকোজি মন্দির
তথ্য
সম্প্রদায়Nichiren
প্রতিষ্ঠাকাল১৫৯৪
ঠিকানা3‐30-20, Wada, Suginami-ku, টোকিও
দেশজাপান

সুভাষচন্দ্র বসুর অস্থিভস্মসম্পাদনা

 
রেনকোজি মন্দিরে সুভাষচন্দ্র বসুর মূর্তি

জি. ডি. খোসলা কমিশনের বয়ান অনুযায়ী, ১৯৪৫ খ্রিষ্টাব্দের ১৮ই আগস্ট তাইহোকু সেনা হাসপাতালে সুভাষচন্দ্র বসুর মৃত্যুর পর[২] তার অস্থিভস্ম তাইপেই শহরে একটি বাক্সে রাখা হয়।[৩] রেনকোজি মন্দিরে অন্তিম সংস্কারের জন্য এই অস্থিভস্ম আনা হলে মন্দিরের প্রধান মোচিজুকি মন্দিরের তত্ত্বাবধানে এই ভস্ম রেখে দিতে সম্মত হন। ১৯৪৫ খ্রিষ্টাব্দের ১৮ই সেপ্টেম্বর রাত আটটায় সুভাষচন্দ্র বসুর অস্থিভস্মের শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।[৪] ১৯৫৭ খ্রিষ্টাব্দের অক্টোবর মাসে ভারতের প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরু এই মন্দির পরিদর্শন করেন।[৫] পরের বছর ভারতের রাষ্ট্রপতি রাজেন্দ্র প্রসাদ ও ১৯৬৯ খ্রিষ্টাব্দে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী এই মন্দির পরিদর্শন করেন।[৬]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Netaji's ashes still in Renkoji temple: MEA"DNA India। মার্চ ৮, ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ১৭ নভেম্বর ২০১৩MEA has informed Delhi-based Mission Netaji that the alleged ashes and remains of the freedom fighter are still in Tokyo's Renkoji temple....In a letter dated March two this year, Additional Secretary Ajai Choudhary of the external affairs ministry informed Mission Netaji that "as far as the ministry was aware the alleged ashes and remains are still at the Renkoji temple 
  2. Krant, M. L. Verma (২০০৬)। Svadhinata Sangrama Ke Krantikari Sahitya Ka Itihasa (Hindi ভাষায়)। 3 (1 সংস্করণ)। New Delhi: Praveen Prakashan। পৃষ্ঠা 846। আইএসবিএন 81-7783-120-8On 18 Aug 1945 the weather over the Formosa Strait was extremely bad, so that the plane made a difficult voyage of several hours before it reached the Taihoku airfield at 13.00. After refueling it took off at 14.00. When it rose about 10 meters above ground the propeller of the left side left side engine fell apart. The plane shaking violently right and left, listed to the left and crashed against the ground at the end of the airfield. Fire broke out instantly at both front and rear of the plane. Bose drenched in gasoline and covered with flames emerged from a hole on the left side and towards the front of the fuseleg.... Ten minutes after the accident he was taken to the Army Hosptal in Taihoku and received treatment at 15.00. His death came at 21.00. His aide H.R. was also burned on neck, right cheak, both arms and right leg. Lt. Gen. SHIDEI met an instantaneous death inside the plane (two others died likewise). 
  3. "Ashes at Renkoji temple are Bose's (Highlights of G. D. Khosla Commission Report)"Hindustan Times। সংগ্রহের তারিখ ১৭ নভেম্বর ২০১৩From the evidence discussed above, I am convinced beyond all reasonable doubts that the wooden casket lodged in the Renkoji Temple at Tokyo contains Bose's ashes and these ashes were placed in the box at Taipei after the cremation of his dead body 
  4. "【ボースの遺骨を守って】もう一つの日印交流(1)敗戦下の葬儀"Sankeishinbun। ২০০৯-০৯-১৪। ২০০৯-০৯-২৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-১৭  (জাপানি)
  5. "【ボースの遺骨を守って】もう一つの日印交流(2)ネールの礼状"Sankeishinbun। ২০০৯-০৯-২১। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-১৮ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  6. "【ボースの遺骨を守って】もう一つの日印交流(3)「日印協会」の変遷"Sankeishinbun। ২০০৯-০৯-২৮। ২০০৯-১১-০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-১৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা