রিয়াজুল রিজু

বাংলাদেশী চলচ্চিত্র পরিচালক

রিয়াজুল রিজু একজন বাংলাদেশী টেলিভিশন এবং চলচ্চিত্র পরিচালক। তার পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র বাপজানের বায়স্কোপ (২০১৫)। ছবিটির জন্য তিনি ৪০তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে তিনটি বিভাগে পুরস্কার লাভ করেন।[১]

রিয়াজুল রিজু
জন্ম
রিয়াজুল মাওলা রিজু
জাতীয়তাবাংলাদেশী
পেশাটেলিভিশন ও চলচ্চিত্র পরিচালক
উল্লেখযোগ্য কর্ম
বাপজানের বায়স্কোপ
পুরস্কারজাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

কর্মজীবনসম্পাদনা

চলচ্চিত্র নির্মাণের পূর্বে রিজু একটি চ্যানেলের অনুষ্ঠান প্রযোজক ছিলেন। সেই চ্যানেলে তিনি চারপাশ নামক একটি প্রামাণ্যচিত্র অনুষ্ঠানের প্রযোজনা করেন। এই অনুষ্ঠানের বায়স্কোপওয়ালা নিয়ে একটি পর্ব ছিল। এই থেকে তিনি বায়স্কোপ নিয়ে একটি চিত্রনাট্য তৈরি করেন। চিত্রনাট্যটি টেলিভিশন চলচ্চিত্রের জন্য তৈরি করা হলেও পরে তিনি গল্পটিকে চলচ্চিত্রে রূপ দেন। এই চিত্রনাট্য নিয়ে তিনি নির্মাণ করে তার প্রথম চলচ্চিত্র বাপজানের বায়স্কোপ (২০১৫)।[২] তার নিজের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান 'কারুকাজ'-এর ব্যানারে ছবিটি নির্মিত হয়। মুক্তির কয়েকদিন পর ছবিটি বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহ থেকে নামিয়ে দেওয়া হলে ব্যবসায়িকভাবে ব্যর্থ হয়।[৩] তবে এটি রাষ্ট্রীয় ভাবে সম্মানিত হয়। ছবিটির জন্য রিজু ৪০তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র, শ্রেষ্ঠ পরিচালক, এবং মাসুম রেজার সাথে যৌথভাবে শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্যকার বিভাগে পুরস্কার লাভ করেন। এছাড়া ছবিটি আরও পাঁচটি বিভাগে পুরস্কার লাভ করে।[৪]

চলচ্চিত্রের তালিকাসম্পাদনা

পুরস্কারসম্পাদনা

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "'বাপজানের বায়োস্কোপ' দিয়ে বাজিমাত"দৈনিক প্রথম আলো। ১৯ মে ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুলাই ২০১৭ 
  2. অর্ণ, রেজওয়ান সিদ্দিকী (২৩ মে ২০১৭)। "চলচ্চিত্র পরিচালক সুপারম্যান না : রিয়াজুল রিজু"এনটিভি অনলাইন। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুলাই ২০১৭ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. "এরপর একটি হিট ফিল্ম বানাতে চাই: রিজু"দৈনিক ইত্তেফাক। ১৯ মে ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুলাই ২০১৭ 
  4. "এতো পুরস্কার পেয়ে বাকরুদ্ধ রিয়াজুল রিজু"বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম। ১৯ মে ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুলাই ২০১৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা