রানার (ক্রিকেট)

ক্রিকেট দলের একজন সদস্য

রানার হচ্ছে ক্রিকেট খেলায় কোন দলের এমন সদস্য যে আহত ব্যাটসম্যানের পরিবর্তে উইকেটের মধ্যে দৌড়িয়ে রান সংগ্রহ করে। নিয়মটি ক্রিকেটের ২৫নং আইনের আওতায় এসেছে। [১] যখন কোনও ইনিংসে রানার ব্যবহার করা হয়, তখন ব্যাটসম্যান পজিশনে দাঁড়িয়ে স্বাভাবিক শট খেলে কিন্তু রান সংগ্রহের জন্য উইকেটের মাঝে দৌড়ায় না; বরং রানার তার হয়ে রান করে। বর্তমানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে রানার ব্যবহার করা অবৈধ।

অবস্থানসম্পাদনা

স্ট্রাইক চলাকালীন সময়ে রানার সাধারণত আহত ব্যাটসম্যানের ক্রিজে থাকে, তবে আম্পায়ারের বিবেচনার ভিত্তিতে পিচ থেকে দূরেও অবস্থান নিতে পারে; সাধারণত একজন রানার খেলায় ব্যবহৃত পিচের সমান্তরালে অবস্থান নেয়। আহত ব্যাটসম্যান যখন স্ট্রাইক বন্ধ করে দেয়, তখন সে স্কয়ার লেগ আম্পায়ারের কাছে (বোলারের শেষের দিকে নয়) অবস্থান নেয় এবং নিয়মিত খেলায় রানার বোলারের উইকেটের পাশে দাঁড়িয়ে থাকে।

শর্তসম্পাদনা

কোনন ব্যাটসম্যান কেবল তখনই একজন রানার ব্যবহার করতে পারবেন; যখন–

  • যদি দুজন আম্পায়ার ঐক্যমতে পৌছান যে, ম্যাচ চলাকালীন ওই আহত ব্যাটসম্যান আর ভালোভাবে দৌড়াতে সক্ষম নয়।
  • রানার অবশ্যই ব্যাটিং দলের সদস্য হতে হবে (একাদশে থাকতে হবে)। অর্থাৎ দলের দ্বাদশ খেলোয়ার কখনোই রানার হতে পারবে না।

সম্ভব হলে রানারকে অবশ্যই সেই ইনিংসে আগে ব্যাট করে আউট হতে হবে। রানারের একমাত্র কাজ হচ্ছে ম উইকেটের মাঝে আহত খেলোয়াড়ের বদলে দৌড়ানো। রানারকে অবশ্যই যে ব্যাটসম্যানের হয়ে মাঠে নেমেছে, ব্যাট সহ সেই ব্যাটসম্যানের ব্যবহৃত সকল উপকরন ধারণ করতে হয়।

আউটসম্পাদনা

আহত ব্যাটসম্যান বা তার রানারের যেকোন একজনও যদি খেলা চলাকালীন সময়ে পপিং ক্রিজের বাইরে থাকে এবং ঐ মুহূর্তে যদি ফিল্ডাররা বল দিয়ে উইকেট ভেঙ্গে দেয়; তাহলে আহত ব্যাটসম্যান রান আউট কিংবা স্টাম্পড আউট হবেন। একজন রানার অবস্ট্রাক্টিং দ্য ফিল্ড সহ অন্যান্য আইনেরও অধীন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটসম্পাদনা

২০১১ সাল পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে রানারের ব্যবহার বৈধ থাকলেও, ২০১১ সালের জুনে আইসিসির এক ঘোষণার ফলে ১ অক্টোবর থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে রানার প্রথাটি বাতিল হয়ে যায়। [২][৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Law 25 – Batsman's Innings; Runners"। MCC। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  2. "ICC Test Match Playing Conditions" (PDF)ICC। ১ সেপ্টেম্বর ২০১৯। 
  3. "Runners abolished, ODI and run-out laws tweaked"ESPNcricinfo। ২৭ জুন ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৭-২৫