মেরু পর্বত (ইন্দোনেশিয়া)

এটি একটি প্রধান আগ্নেয়গিরি।

'সুমেরু পর্বত' বা 'মহামেরু পর্বত' জাভার সর্বোচ্চ পর্বত। এটি একটি আগ্নেয়গিরি।[১] এটি ইস্ট জাভা প্রদেশে অবস্থিত।লম্বা হবার পাশাপাশি, এই পর্বতের অসাধারণ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য। মেরু বা সুমেরুর নাম, হিন্দু-বৌদ্ধ পৌরাণিক পর্বত থেকে এসেছে।এতে সর্বশেষ অগ্নুৎপাত হয়েছে ২০১৫ সালে।

সুমেরু আগ্নেয়গিরি, জুলাই ২০০৪

ভৌগোলিক অবস্থানসম্পাদনা

৮° ৬'২৮.৮ "এলএস, ১১২ ° ৫৫'১২" পূর্ব ।এটি সাবডাকশন জোনে অবস্থিত, যেখানে ইন্দো-অস্ট্রেলিয়া প্লেট ইউরেশিয়া প্লেটের নিচে[২]।মাউন্ট সুমেরুর উপরের খন্ডটি জংগ্রিং সেলকো নামে পরিচিত। প্রশাসনিকভাবে এটি দুটি প্রদেশের অন্তর্ভুক্ত।ইস্ট জাভা প্রদেশের মাল্যাং রিজেন্সি এবং লুমাজ্যাং রিজেন্সির । এই পর্বত ব্রোমো টাঙ্গার সেমেরু ন্যাশনাল পার্ক এলাকায় অন্তর্ভুক্ত ।

উচ্চতাসম্পাদনা

মেরু পর্বতের উচ্চতা ৩,৬৭৬ মি।সুমাত্রার মাউন্ট কেরিনচি এবং পশ্চিম নুসা তেনগারার মাউন্ট রিজনিয়ার পরে তৃতীয় সর্বোচ্চ।

পুরাণসম্পাদনা

সুমেরু, বৌদ্ধ মহাজাগতিক ভাষায় এবং হিন্দুধর্ম এর কেন্দ্রীয় বিশ্ব পর্বত থেকে সুমেরু নামকরণ করা হয়েছে। কিংবদন্তিতে বলা হয়েছে, এটি ভারত থেকে এখানে প্রতিস্থাপিত হয়েছিল। ১৫ তম শতাব্দীর পূর্ব জাভানিজ কাজ 'তান্তু পাগেলারান' এ গল্পটি আছে। এটি মূলত দ্বীপটির পশ্চিম অংশে স্থাপন করা হয়েছিল, তবে পরে এটি পূর্ব দিকে সরানো হয়েছিল। সেই যাত্রায়, নিচের অংশগুলি পড়ে গিয়ে ল্যূু, উইলিস, কেলুদ, কাওয়াই,অর্জুনো এবং ওয়েলরিংপর্বতমালা গঠন করে । এইভাবে ক্ষতির ফলে পাহাড়ের পাদদেশটি হ্রাস পায় এবং শীর্ষটি থেকে তৈরি হয় পেনাংগুনগান[৩] ইন্দোনেশিয় হিন্দুরা বিশ্বাস করে যে এই পর্বতমালা শিব এর আবাসস্থল।

বাহ্যিক লিঙ্কসম্পাদনা

টেমপ্লেট:ওয়ার্ল্ড এর মেজর আগ্নেয়গিরি টেমপ্লেট:ভূগোল-ভিত্তিক

  1. "Semeru: Summary"Global Volcanism ProgramSmithsonian Institution 
  2. "Mount Semeru" 
  3. Soekmono, Dr R. (১৯৭৩)। Pengantar Sejarah Kebudayaan Indonesia 2। Yogyakarta, Indonesia: Penerbit Kanisius। পৃষ্ঠা 119। আইএসবিএন 979-413-290-X