মুহাম্মদ হাবিব শাকির

মিশরীয় ইসলামি পন্ডিত

মুহাম্মদ হাবিব শাকির (জন্ম: ১৮৬৬ কায়রো - মৃত্যু: ১৯৩৯ কায়রো) (আরবি: محمد حبيب شاكر‎‎ ) ছিলেন মিশরের একজন বিচারক। তিনি কায়রোতে জন্মগ্রহণ করেন এবং আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক অর্জন করেছিলেন।

মুহাম্মদ হাবিব শাকির
محمد حبيب شاكر
ব্যক্তিগত
জন্ম১৮৬৬
মৃত্যু১৯৩৯
ধর্মইসলাম
জাতীয়তামিশর
শিক্ষালয়আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়
শিক্ষাস্নাতক
ছদ্মনামএম এইচ হাবিব

জীবনীসম্পাদনা

শেখ মুহাম্মদ শাকির বিন আহমদ বিন আব্দুল আল কাদির ১৮৬৬ সালে মিশরের একটি শহর জিরজায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা শেষ করেন এবং স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ১৯৩৯ সালে কায়রোতে মারা যান।

তার পুত্র শেখ আহমদ মুহাম্মদ শাকির মুহাম্মদ শাকির: আলম মিন আ'লাম আল-আসর নামক একটি গ্রন্থে তার জীবনী লিখেছেন

পদসমূহসম্পাদনা

  • সুদানের সর্বোচ্চ বিচারক চার বছরের জন্য (১৮৯০-১৮৯৩)
  • আলেকজান্দ্রিয়ার স্কলারদের ডিন
  • আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের সেক্রেটারি জেনারেল ("ওয়াকিল") এবং এর পরিচালনা পর্ষদের সদস্য
  • উচ্চপদস্থ আলেমদের আল-আজহার কর্পসের সদস্য
  • আল-আজহার আইন সমিতির সদস্য ("আল-জাম'ইয়া আল-তাশরিয়িয়া")

রচনাসম্পাদনা

  • "আল-দুরুস আল-আওওয়ালিয়্যা ফি আল-আকায়েদ আল-দিনিয়্যা"
  • "আল-কওল আল-ফাসল ফী তারজামাত আল কুরআন আল করিম"
  • "আল-সিরা আল-নাবাওয়াইয়া"

অনুবাদ বিতর্কসম্পাদনা

অনেক ইন্টারনেট সূত্র মুহাম্মদ হাবিব শাকিরকে "ইংরেজিতে কুরআনের একজন সুপরিচিত অনুবাদক" হিসেবে বর্ণনা করেছে। তিনি তাহরিকে তারসিলে কুরআন কর্তৃক প্রকাশিত অনুবাদের অনুবাদক এম এইচ শাকিরের সাথে অনুবাদ কার্যে যুক্ত ছিলেন।[১][২] তবে এই ধারণা দুটি প্রমাণের বিপরীত যা এখন প্রকাশিত হয়েছে:

  1. জোরালো প্রমাণ আছে যে, মুহাম্মদ হাবিব শাকির কুরআন অনুবাদের বিপক্ষে ছিলেন এবং আরবি ভাষাকে অন্য কোন ভাষায় রূপান্তর করা অবৈধ বলে বিবেচনা করেছিলেন।[৩]
  2. জোরালো প্রমাণ আছে যে, এম এইচ শাকির নামটি লেখকের ছদ্মনাম। তার আসল নাম হল মুহাম্মদ আলী শাকির। তার পিতার নাম মুহাম্মদ হাবিব ইসমাইল।[৪]

খৃষ্টবাদসম্পাদনা

অভিযোগ করা হয় যে, তার অনুবাদটি সরাসরি মাওলানা মুহাম্মদ আলীর কুরআনের ইংরেজি অনুবাদ থেকে প্রকাশিত হয়েছে।[৫] তার অনুবাদে একটি সমালোচনা হল, তিনি নাস শব্দের অনুবাদ করেছেন তিনি, যা ভুল, যারা আরবি ভাষাভাষীদের মতে নাস মানে মানুষ। তবে, অন্যান্য ব্যক্তিদের মতে মানবজাতির সত্তা (যা পুরুষ এবং মহিলাকে অন্তর্ভুক্ত করে) বোঝাতে 'তিনি' শব্দের অনুবাদ করা ভুল হয়নি।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Islam online biography of translator"web.archive.org। 19 june 2006। ১৬ মে ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ 16 March 2021  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  2. "USC-MSA Compendium of Muslim Texts"web.archive.org। ২০০৭-১০-০৯। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-১৬ 
  3. "Shakir's Quran translation - blatant plagiarism of the first edition of Maulana Muhammad Ali's translation"ahmadiyya.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-১৬ 
  4. "Shakir identified"ahmadiyya.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-১৬ 
  5. "A report into several translations of the Holy Quran"www.muslim.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-১৬