মারিয়া বাশির

আফগান আইনজীবী

মারিয়া বাশির আফগানিস্তানের একমাত্র অভিশংসক(প্রসিকিউটর), যিনি ২০০৯ সালের তথ্য অনুযায়ি দেশের এমন একটি অবস্থানকে ধরে রাখেন।[১] তালেবান, দুর্নীতিবাজ পুলিশ, মৃত্যু হুমকি,ব্যর্থ হত্যাকাণ্ডের প্রচেষ্টা হওয়ার মত ঘটনার পনের বছরেরও বেশি আফগানিস্তানের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের অভিজ্ঞতা তার হয়েছে - তিনি তাদের সবাইকে দেখেছেন। তালেবানদের সময় তাকে কাজ করা থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল, যখন তিনি তার বাসায় স্কুল শিক্ষা অবৈধভাবে মেয়েদেরকে প্রদান করতেন।[২] তালেবান যুগের পরে, তাকে চাকুরিতে ফিরিয়ে আনার আহ্বান জানানো হয় এবং ২০০৬ সালে হেরাত প্রদেশের প্রধান প্রসিকিউটর জেনারেল পদে নিযুক্ত হন।[১][৩] নারীর দুর্নীতি ও নিপীড়ন নির্মূলের উপর তার প্রধান লক্ষ্য ছিল, তিনি ২০১০ সালে প্রায় ৮৭ টি মামলা একাই পরিচালনা করেছেন।[৪]

মারিয়া বাশির
Maria Bashir - Afghanistan - 2011 International Women of Courage awards.jpg
সাধারণ অভিশংসক কর্মকর্তা হেরাত
জন্ম১৯৭০
জাতীয়তাআফগান
শিক্ষাআইন
মাতৃশিক্ষায়তনকাবুল বিশ্ববিদ্যালয়
পেশাপ্রধান সাধারণ অভিশংসক কর্মকর্তা, হেরাত
কর্মজীবন
নিয়োগকারীAttorney General's Office, Afghanistan
পরিচিতির কারণআফগানস্তানের প্রথম নারী অভিশংসক কর্মকর্তা
বাসস্থানহেরাত, আফগানিস্তন
সন্তানসাজাদ (পুত্র)
ইয়াসামান (কন্যা)
পুরস্কারআন্তর্জাতিক সাহসী নারী পুরস্কার ২০১১

তার কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্ট থেকে, তাকে আন্তর্জাতিক সাহসী নারী পুরস্কার প্রদান করা হয়।[৫] বাশির ২০১১ সালের টাইম ১০০ তালিকায় প্রকাশিত হয় যা টাইম দ্বারা গঠিত বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তিদের একটি বার্ষিক তালিকা।

প্রথম জীবন ও শিক্ষাসম্পাদনা

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Corbin, Jane (আগস্ট ১৬, ২০০৯)। "What are we fighting for"BBC 
  2. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; Hegarty নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  3. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; UNODC নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  4. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; Time100 নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  5. Office of the Spokesperson (মার্চ ৪, ২০১১)। "International Women of Courage Award recipients - 2011"United States Department of State। ২০১১-০৬-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।