মসিউর রহমান রাঙ্গা

বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ

মসিউর রহমান রাঙ্গা (জন্ম ২২ জুলাই ১৯৫৮) একজন বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ এবং রংপুর-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য। তিনি ২০১৪ সালে জাতীয় পার্টি থেকে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন।[১] তিনি স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০১৮ সালের ৩ ডিসেম্বর[২] থেকে ২৬ জুলাই ২০২০ পর্যন্ত জাতীয় পার্টির মহাসচিবের দায়িত্ব পালন করেন।

মসিউর রহমান রাঙ্গা
এমপি
জাতীয় সংসদ আসনের
সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
জানুয়ারি ২০১৪ – জানুয়ারি ২০২৪
সংসদীয় দলজাতীয় পার্টি
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1958-07-22) জুলাই ২২, ১৯৫৮ (বয়স ৬৫)
রংপুর, বাংলাদেশ
নাগরিকত্ববাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
রাজনৈতিক দলজাতীয় পার্টি
দাম্পত্য সঙ্গীরাকিবা নাসরিন
পিতামাতানেছার উদ্দিন আহমেদ, মজিয়া খাতুন
শিক্ষাবি.কম
পেশাপরিবহন ব্যবসায়ী

প্রারম্ভিক জীবন

সম্পাদনা

মসিউর রহমান রাঙ্গা ১৯৫৮ সালের ২২ জুলাই জন্মগ্রহণ করেন।তার পিতার নাম নেছার উদ্দিন আহমেদ এবং মাতার নাম মজিয়া খাতুন।তার পিতা লালমনিরহাট জেলার হাতিবান্ধা উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন।[৩] তার পৈতৃক বাড়ি রংপুর জেলার সদর উপজেলার দক্ষিণ গুপ্তপাড়ায়। শিক্ষাজীবনে তিনি বিকম ডিগ্রি অর্জন করেছেন। পড়ালেখা শেষ করে তিনি পরিবহন ব্যবসার সাথে যুক্ত হন। তিনি পরিবহন মালিকদের সংগঠন ‘বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির’ সভাপতি।[৪]

রাজনৈতিক জীবন

সম্পাদনা

রাঙ্গা রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।[৪] [৫] তিনি ২০০১ সালে জাতীয় পার্টির মনোনয়নে ইসলামী ঐক্যজোটের প্রার্থী হিসেবে তিনি রংপুর-১ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৪ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির মনোনয়নে তিনি রংপুর-১ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এবং স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[৬] তিনি পুনরায় ২০১৮ সালে একই আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৯ সালে রাঙ্গা বিরোধী দলীয় চিফ হুইফ হিসেবে মনোনয়ন লাভ করেন।[৭]

সমালোচনা

সম্পাদনা

রাঙ্গা ২০১৯ সালের ১০ নভেম্বর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে নিহত বাংলাদেশী নূর হোসেনকে নেশাগ্রস্ত, ইয়াবাফেন্সিডিলসেবী অভিহিত করে দেশব্যাপী সমালোচনার মুখে পড়েন। ১৯৮৭ সালের ১০ নভেম্বর বুকে ও পিঠে "স্বৈরাচার নিপাত যাক, গণতন্ত্র মুক্তি পাক" শ্লোগান লিখে রাস্তায় নেমেছিলেন নূর হোসেন। মিছিলটি ঢাকার "জিরো পয়েন্ট" এলাকায় পৌঁছালে পুলিশ পুলিশের গুলিতে তিনি নিহত হন।[৮][৯] ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে তাকে জাতীয় পার্টির সব ধরনের পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।[১০]

ব্যক্তিগত জীবন

সম্পাদনা

মসিউর রহমান রাঙ্গার সহধর্মিণী রাকিবা নাসরিন২০২২ সালে মৃত্যুবরণ করেন।এই দম্পতির এক ছেলে এবং এক মেয়ে রয়েছে।[১১]

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. রংপুর-১। "মো: মসিউর রহমান রাঙ্গা"www.parliament.gov.bd। ২০১৯-০১-১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৬-২৭ 
  2. prothomalo.com (২০১৮-১২-০৩)। "হাওলাদার বাদ, জাপার মহাসচিব রাঙ্গা"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১২-০৩ 
  3. "পুর্ববর্তী চেয়ারম্যানবৃন্দ"বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২৩ 
  4. "হাওলাদারকে সরিয়ে জাতীয় পার্টির নতুন মহাসচিব রাঙ্গা"bangla.bdnews24.com। ২০১৮-১২-০৩। ২০১৮-১২-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১২-০৩ 
  5. "রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির কমিটি ঘোষণা সভাপতি-রাঙ্গা,সম্পাদক-ফখর উজ জামান"ইনকিলাব। ২ আগস্ট, ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  6. "১৫৩ আসনে জয়ী যারা"দৈনিক সমকাল। Archived from the original on ৬ ডিসেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২৩ 
  7. "বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ হলেন মশিউর রহমান রাঙ্গাঁ"rtvonline। ০৫ জানুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  8. "শহীদ নূর হোসেনকে 'ইয়াবাখোর' বললেন রাঙ্গা"Dhaka Tribune Bangla। ২০১৯-১১-১০। ২০২০-০৯-২৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১১-৩০ 
  9. "এমপি রাঙ্গার বহিষ্কার চেয়েছেন নূর হোসেনের ভাই" (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৯-১১-১৩। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১১-৩০ 
  10. "রওশনকে কেন্দ্র করে জাপা থেকে বাদ পড়লেন রাঙ্গা"Bangla Tribune। ২০২২-০৯-১৪। ২০২২-০৯-১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৯-১৪ 
  11. "মসিউর রহমান রাঙ্গার সহধর্মিণী রাকিবা নাসরিন মারা গেছেন"বাংলা ট্রিবিউন। ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ 

বহি:সংযোগ

সম্পাদনা