মনোকামনা মন্দির

নেপালের গোর্খা জেলায় অবস্থিত মনোকামনা মন্দির হিন্দু ধর্মের একটি অন্যতম শক্তিপীঠ বলে গণ্য করা হয়। মনের অভীষ্ট কামনা পূর্ণ করেন, এই অভিমতের প্রেক্ষিতে অধিষ্ঠাত্রী দেবীর নাম মনোকামনা রাখা হয়েছে। রাম শাহের রাণী স্বয়ং মনোকামনা দেবীর অবতার ছিলেন বলে জনবিশ্বাস আছে। দশহরায় দেবীর পূজার জন্য প্রচুর ভক্তসমাগম ঘটে। এখানে প্রতি অষ্টমী তিথিতে বলিদানের রীতি আছে। মনোকামনা দেবীর দর্শনে মনের সকল আকাঙ্ক্ষা পূর্ণ হয় এমন ধর্মীয় বিশ্বাস আছে।

মনোকামনা মন্দির
Manakamana Temple Nepal.jpg
ধর্ম
অন্তর্ভুক্তিহিন্দুধর্ম
জেলাগোর্খা
অবস্থান
দেশনেপাল
ভৌগোলিক স্থানাঙ্ক২৭°৫৪′১৬.২″ উত্তর ৮৪°৩৫′০৩.৩″ পূর্ব / ২৭.৯০৪৫০০° উত্তর ৮৪.৫৮৪২৫০° পূর্ব / 27.904500; 84.584250
স্থাপত্য
ধরনপ্যাগোডা

অবস্থানসম্পাদনা

এই মন্দির নেপালের গোর্খা জেলা মুখ্যালয় থেকে ১২ কি.মি. দক্ষিণ-পূর্বে অবস্থিত। সমুদ্রতল থেকে ১,৩০২ মিটার উচ্চতায় অবস্থিত এই মন্দিরটির দক্ষিণের দিকে মহাভারত ঝিলছিম্কেশ্বরী ডাঁডার সাথে উত্তর দিকে অন্নপূর্ণা হিমালয় আর মনাস্লু হিমালয়ের শৃঙ্গ দেখা যায়। মন্দির প্রাঙ্গণ থেকে সূর্যোদয় ও সূর্যাস্তের মনোরম দৃশ্য উপভোগ করা যায়। [১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা