মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন

বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ, সংসদ সদস্য

মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন (জন্ম: ১৯৬৮ - মৃত্যু: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬) ছিলেন একজন বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ ও সাবেক সংসদ সদস্য। যিনি ২০১৪ সালের সাধারণ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে গাইবান্ধা-১ আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখে তার নিজ বাসভবনে অজ্ঞাত বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত হন।[১]

মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন
গাইবান্ধা-১ আসনের
জাতীয় সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
৫ ই জানুয়ারী ২০১৪ – ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মc. 1968
মৃত্যু (বয়স ৪৮)
রংপুর, বাংলাদেশ
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ

কর্মজীবন সম্পাদনা

লিটন ছিলেন একজন প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত মেরিন ইঞ্জিনিয়ার । তিনি তার বড় বোন , দুলাভাই তিনজন মিলে একত্রে নারায়ণগঞ্জে মেঘনা ঘাটে আনন্দ শিপইয়ার্ড প্রতিষ্ঠা করেন। এছাড়াও তিনি আশরাফ আলী কোল্ড স্টোরেজ লিমিটেডের পরিচালক এবং ইসলাম শিপ বিল্ডার্স এন্ড হ্যাভি ইঞ্জিনিয়ারিং এর মালিক। 

মৃত্যু সম্পাদনা

এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখে যখন অজ্ঞাত তিন বন্দুকধারীদের দ্বারা গুলিবিদ্ধ হন তখন তিনি গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বামনডাঙ্গার সাহাবাজ মাস্টারপাড়া এলাকায় তার নিজ বাড়ীতে অবস্থান করছিলেন। তিনি রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিউতে মৃত্যুবরণ করেন। তার উপর এ আক্রমণকে অনেকে জঙ্গি হামলা, রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব, পারিবারিক শত্রুতা এবং আসন্ন উপজেলা নির্বাচনকে কারণ হিসাবে উল্লেখ করেছিল। যদিও পরে সাবেক এমপি ও সেনা কর্মকর্তা আব্দুল কাদের খান এ হত্যার দোষ স্বীকার করেছিল।[২]

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. "এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন নিহত"www.dailysangram.comদৈনিক সংগ্রাম। ১৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ১ জুন ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ জুন ২০১৮ 
  2. "এমপি লিটন হত্যায় 'দোষ স্বীকার' সাবেক এমপি কর্নেল আব্দুল কাদের খানের"www.samakal.com। সমকাল। ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭। ১ জুন ২০১৮ তারিখে -কাদের-খান মূল |ইউআরএল= এর মান পরীক্ষা করুন (সাহায্য) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ জুন ২০১৮