বৈষ্ণবী ধনরাজ (জন্ম: ২৫শে আগস্ট ১৯৮৮) হলেন একজন ভারতীয় টেলিভিশন এবং চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। তিনি সেক্স কমেডি ঘরানার একটি প্রাপ্তবয়স্ক হিন্দি চলচ্চিত্র পিকে লেলে এ সেলসম্যান-এর কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন, যেখানে তিনি মেরি মার্লো নামে এক ধনী মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন।[১] তিনি আজ তক-এ প্রচারিত টেলিভিশন অনুষ্ঠান সত্যাগ্রহ-এ নির্ভয়া,[২] সনি এন্টারটেইনমেন্ট টেলিভিশনে প্রচারিত সি.আই.ডি.-এ সাব ইন্সপেক্টর তাশা[৩] এবং কালার্স টিভিতে প্রচারিত বেপানাহ-এ মাহি অরোরার চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

বৈষ্ণবী ধনরাজ
Vaibhavi colors indian telly awards.jpg
জন্ম
বৈষ্ণবী ভোয়ার

(1988-08-25) ২৫ আগস্ট ১৯৮৮ (বয়স ৩২)
পেশাঅভিনেত্রী, মডেল
কর্মজীবন২০০৮–বর্তমান

২০১১ সালে, বৈষ্ণবী টাইমস অফ ইন্ডিয়া প্রকাশিত সেলিব্রিটি ব্লগ সিরিজের অংশ হিসাবে বেশ কয়েকটি ব্লগ লিখেছিলেন।[৪]

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

বৈষ্ণবী ধনরাজ ১৯৮৮ সালের ২৫শে আগস্ট তারিখে ভারতের মহারাষ্ট্রের নাগপুরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ব্লাইন্ড রিলিফ অ্যাসোসিয়েশনের মুন্ডল হাই স্কুল থেকে তাঁর স্কুল জীবনের পড়াশোনা করেছিলেন।[৫] তিনি শিবাজি বিজ্ঞান কলেজ থেকে স্নাতক সম্পন্ন করার পরে, তার পরিবার ২০০৮ সালে কল্যান দোম্বিওয়ালিতে স্থানান্তরিত হন। বৈষ্ণবীর পিতা-মাতা তাঁর শৈল্পিক প্রবণতাকে উৎসাহিত করেছিলেন এবং তাকে প্রাথমিক অডিশনে নিয়ে গিয়েছিলেন।[৬] ছাত্রাবস্থায় তিনি বৈষ্ণবী ভোয়ার নামে পরিচিত ছিলেন।

পেশাসম্পাদনা

বৈষ্ণবী ধনরাজ ২০০৮ সালে কসৌটি জিন্দেগি কে-এ একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে তার অভিনয় জীবনের শুরু করেছিলেন।[৭] এই ধারাবাহিকে তার কাজের স্বীকৃতি হিসেবে, বেশ কয়েকটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান তাকে একই বছরে করম আপনা নামক একটি হিন্দি চলচ্চিত্রে অভিনয় করার প্রস্তাব দিয়েছিল। বৈষ্ণবী ভোয়ার নাম দিয়ে তিনি উক্ত দুটি প্রকল্পে অভিনয় করার পরে, তিনি সংখ্যাতাত্ত্বিক কারণে তাঁর পিতার প্রথম নাম ধনরাজের সাথে তাঁর উপাধির প্রতিস্থাপন করেছিলেন।[৮] ২০০৯ সালে বৈষ্ণবী সাব-ইন্সপেক্টর তাশা নামে গোয়েন্দা চরিত্রে সনি এন্টারটেইনমেন্ট টেলিভিশনে প্রচারিত জনপ্রিয় টেলিভিশন ধারাবাহিক সি.আই.ডি.-এ যোগ দিয়েছিলেন। এই অনুষ্ঠানে জন্য, বৈষ্ণবী দুঃসাহসিক দৃশ্যে তার বদলে অন্য কেউ অভিনয় করাতে (স্ট্যান্ট ব্যবহার করতে) অস্বীকৃতি প্রদান করেছিলেন এবং তার সমস্ত দুঃসাহসিক দৃশ্যে তিনি নিজেই অভিনয় করেছিলেন। সি.আই.ডি.-এ তার অভিনয় তাকে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করতে দারুণভাবে সহায়তা করেছিলেন। স্টারডম চালু করে এবং তশা হিসাবে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। ২০১২ সালের প্রথম দিকে, বৈষ্ণবী না আনা ইস দেশ লাডো নামক টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয় করা ছেড়ে সিআইডিতে যোগদানের কথা ভেবেছিলেন; কারণ উক্ত ধারাবাহিকে তিনি তার চরিত্র নিয়ে সন্তুষ্ট ছিলেন না, তবে বিষয়টি মাতামাতিভাবে মীমাংসিত হয়েছিল এবং ২০১২ সালের জুলাই মাস অবধি ধারাবাহিকটি শেষ না হওয়া পর্যন্ত তিনি এর অংশ হিসাবে ছিলেন।[৯][১০]


আরও দেখুনসম্পাদনা

সনি আট

সি. আই. ডি

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "PK Lele A Salesman Movie Review"The Times of India। সংগ্রহের তারিখ ৪ আগস্ট ২০১৯ 
  2. "Vaishnavi to recreate Nirbhaya"The Times of India। সংগ্রহের তারিখ ১৪ এপ্রিল ২০১৪ 
  3. "Vaishnavi Tasha to die in CID"The Times of India। ১১ জানুয়ারি ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১১ 
  4. "Here I am"The Times of India। ২৩ জুলাই ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১৫ এপ্রিল ২০১৪ 
  5. New surname has brought me luck: Vaishnavi ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২০১৩-১১-০২ তারিখে The Times of India, 21 December 2010
  6. "Vaishnavi Dhanraj – Life is all about ups and downs"Tellychakkar। India। ৩ জানুয়ারি ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ১৪ এপ্রিল ২০১৪ 
  7. http://www.tellychakkar.com/video/get-know-vaishnavi-and-simran
  8. Elina Priyadarshini Nayak (২১ ডিসেম্বর ২০১০)। "Times Of India"। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৯ 
  9. "Vaishnavi Dhanraj is upset these days"Tellychakkar। ১৯ মে ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ১৫ এপ্রিল ২০১৪ 
  10. "Vaishanvi Dhanraj to quit Laado; get back to CID?"Tellychakkar। ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ১৫ এপ্রিল ২০১৪ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা