বেংট হল্‌মস্ত্রম (ফিনীয় ভাষায় Bengt Holmström) একজন ফিনীয় অর্থনীতিবিদ। অর্থনীতির "কন্ট্রাক্ট তত্ত্ব" নিয়ে গবেষণার স্বীকৃতি হিসেবে ২০১৬ সালে নোবেল পুরস্কার পান এই অর্থনীতিবিদ। তার গবেষণায় যুক্ত ছিলেন আরেক অর্থনীতিবিদ অলিভার হার্ট (অর্থনীতিবিদ)। তাঁদের গবেষণার আওতা এতটাই ব্যাপক যে, বীমা নীতিমালা ও নির্বাহীদের বেতন থেকে শুরু করে জেলখানার ব্যবস্থাপনাও এর আওতার মধ্যে পড়ে।[২][৩]

বেংট হল্‌মস্ত্রম
Bengt Holmström.jpg
Bengt Holmström (2013)
জন্ম
Bengt Robert Holmström

(1949-04-18) এপ্রিল ১৮, ১৯৪৯ (বয়স ৭০)
জাতীয়তাFinnish
নাগরিকত্বUnited States
প্রতিষ্ঠান
ডক্টরেট
উপদেষ্টা
Robert B. Wilson
ডক্টরেট
শিক্ষার্থীরা
Jonathan Levin[১]
পুরস্কার

গবেষণার মাধ্যমে ব্রিটিশ-মার্কিনী অর্থনীতিবিদ অলিভার হার্ট ও ফিনল্যান্ডের বেংট হল্‌মস্ত্রম অর্থনীতির কন্ট্রাক্ট তত্ত্বকে এক নতুন উচ্চতায় নিয়ে গেছেন বলে মনে করছেন নোবেল পুরস্কার বিচারকেরা। অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার ঘোষণা করে প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়, "এ দুই অর্থনীতিবিদ তাদের গবেষণায় প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ নির্বাহীদের কার্যভিত্তিক বেতন, বীমা খাতে ডিডাকটিবলস (বীমা করার আগে গ্রহীতার অবশ্য প্রদেয় অর্থ) ও কোপেমেন্ট (স্বাস্থ্য বীমায় নির্দিষ্ট সেবার বিনিময়ে প্রদেয় অর্থ) এবং সরকারি খাতের বেসরকারীকরণসহ বহুমুখী বিভিন্ন চুক্তিভিত্তিক বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা করেছেন। বিভিন্ন খাতের নীতিনির্ধারণ ও সাংগঠনিক রূপরেখা এবং তাত্ত্বিক ভিত্তি তৈরিতে তাদের গবেষণা নিশ্চিতভাবেই অগ্রসর ভূমিকা পালন করতে যাচ্ছে।"[৪]

এছাড়া আলাদা আলাদাভাবে কাজ করতে গিয়ে শিক্ষক, স্বাস্থ্যকর্মী ও জেলখানার প্রহরীদের বেতন-ভাতা নির্ধারণের পন্থা নিয়েও আলোচনা করেছেন তারা, যা এদের বেতন নির্দিষ্ট হবে না কার্যভিত্তিক — তা নির্ধারণে সহায়ক ভূমিকা রাখবে। একই সঙ্গে স্কুল, হাসপাতাল বা জেলখানা সরকারি না বেসরকারি খাতে পরিচালিত হওয়া উচিত; সে বিষয়েও আলোচনা করেছেন তারা।

নোবেল বিচারকদের বিবৃতিতে আরো বলা হয়, চুক্তি ও সংগঠনের রূপরেখা বোঝায় সহায়ক ভূমিকা পালন করবে হার্ট ও হল্‌মস্ত্রম আলোচিত তত্ত্বগত নতুন পদ্ধতি।[৫]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা