বিশ্বতত্ত্ব বা ভৌত সৃষ্টিতত্ত্ব হল জ্যোতিঃপদার্থবিদ্যার একটি শাখা, যা দিয়ে মূলত মহাবিশ্বের বৃহদাকার কাঠামো, এর গঠন এবং বিবর্তন সম্পর্কিত মৌলিক প্রশ্নের অধ্যয়ন করা হয়। আধুনিক ভৌত সৃষ্টিতত্ত্বের শুরু হয় বিংশ শতাব্দীতে, মূলত আলবার্ট আইনস্টাইনের সাধারণ আপেক্ষিকতাবাদ তত্ত্ব এবং দূরবর্তী মহাজাগতিক বস্তুসমূহের উন্নততর ভৌত পর্যবেক্ষণের ব্যাপক উন্নতিসাধনের সঙ্গে।

হাবল এক্সট্রিম ডিপ ফিল্ড (এক্সডিএফ) ২০১২ সালের সেপ্টেম্বরে সম্পন্ন হয়েছিল এবং এখন পর্যন্ত ছবি তোলা সবচেয়ে দূরবর্তী ছায়াপথগুলি মধ্যে একটি। ফোরগ্রাউন্ডে কয়েকটি তারা বাদে (যা উজ্জ্বল এবং সহজেই চেনা যায় কারণ শুধুমাত্র তাদের ডিফ্রাকশন স্পাইক রয়েছে), ছবির প্রতিটি আলোর একটি পৃথক ছায়াপথ, তাদের মধ্যে কিছু ১৩.২ বিলিয়ন বছরের পুরানো; পর্যবেক্ষণযোগ্য মহাবিশ্বে ২ ট্রিলিয়নের বেশি ছায়াপথ রয়েছে বলে অনুমান করা হয়।[১]
বিশ্বতত্ত্ব

শৃঙ্খলাসমূহসম্পাদনা

বৈজ্ঞানিক পর্যবেক্ষণ এবং পরীক্ষার মাধ্যমে মহাবিশ্বের বোঝাপড়া গঠনে পদার্থবিজ্ঞান এবং জ্যোতিঃপদার্থবিজ্ঞানে কেন্দ্রীয় ভূমিকা পালন করেছে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Karl Hille, সম্পাদক (১৩ অক্টোবর ২০১৬)। "Hubble Reveals Observable Universe Contains 10 Times More Galaxies Than Previously Thought"NASA। সংগ্রহের তারিখ ১৭ অক্টোবর ২০১৬