"বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
|homepage={{url|www.bhbcuc.org}}
}}
'''বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ''' একটি অলাভজনক সংগঠন, যা বাংলাদেশের ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যালঘুদের মানবাধিকার রক্ষা করতে প্রতিষ্ঠিত হয়।<ref name="chowdhury">{{সাময়িকী উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.culturalsurvival.org/publications/cultural-survival-quarterly/bangladesh/unnatural-disasters-pogroms-have-killed-thousand|শিরোনাম=Unnatural Disasters: Pogroms have killed thousands of Bangladeshi minorities; millions more are refugees in India|শেষাংশ=Chowdhury|প্রথমাংশ=G. R.|প্রকাশক=Cultural Survival|সংগ্রহের-তারিখ=31 March 2013}}</ref> দলনিরপেক্ষ এই সংগঠনটি ১৯৮৮ সালে ঢাকায় অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল [[চিত্ত রঞ্জন দত্ত]] প্রতিষ্ঠা করেন।<ref name="irbc05042002">{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.unhcr.org/refworld/country,,IRBC,,BGD,,3df4be1124,0.html|শিরোনাম=Bangladesh: Information on the Bangladesh Hindu Buddhist Christian Unity Council: Executive members, duties, function and role of the group and its relationship with the government (1999-2001)|তারিখ=5 April 2002|প্রকাশক=Immigration and Refugee Board of Canada|সংগ্রহের-তারিখ=31 March 2013}}</ref><ref name="irbc29092000">{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.unhcr.org/refworld/topic,464db4f52,464dbd912,3df4be1018,0,IRBC,,BGD.html|শিরোনাম=Bangladesh: The Hindu Buddhist Christian Association of Comilla; names of executive members (1992-1995)|তারিখ=29 September 2000|প্রকাশক=Immigration and Refugee Board of Canada|সংগ্রহের-তারিখ=31 March 2013}}</ref> ১৯৮৮ সালের জুন মাসে বাংলাদেশের সংবিধানের অষ্টম সংশোধনীর মধ্য দিয়ে ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম ঘোষণা করা হয়। ঐদিনই ঐক্য পরিষদ গঠিত হয়, যদিও ঘোষণা এসেছিল কিছু দিন পরে। বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ ৯ জুনকে কালো দিবস হিসেবে পালন করেছিল। পরবর্তীতে ১৯৯০ সালে উত্তর আমেরিকার বাংলাদেশী ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যালঘুরা নিউ ইয়র্কে ঐক্য পরিষদের একটি শাখা খোলেন। ২০০৫ সালে টরন্টোতে কানাডিয়ান শাখা গঠন করা হয়েছিল। এটি ফ্রান্সের মতমতো ইউরোপীয় দেশগুলিতেও এর শাখা রয়েছে।
 
এই দাতব্য সংস্থার তহবিলের উৎস হচ্ছে সদস্যদের এবং সরকারের দান। অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের বর্তমান সভাপতি।
১৪৩টি

সম্পাদনা