"কলোসিয়াম" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(Adding 1 book for যাচাইযোগ্যতা) #IABot (v2.0.7) (GreenC bot)
 
প্রাচীন [[রোমান সাম্রাজ্য|রোমান সাম্রাজ্যের]] গোলাকৃতি ও বহুতল অ্যাম্ফিথিয়েটার হিসেবে বৃহত্তম এ স্থাপনাকে ক্রীড়ায় ব্যবহার করা হতো। [[মল্লবীর|মল্লবীরগণ]] একে-অপরকে নিঃশেষ করে স্বীয় ক্ষমতা প্রয়োগপূর্বক নিজেকে টিকিয়ে রাখতো। এমনকি হিংস্র জীব-জন্তুর সাথেও লড়তে হতো তাদের। স্থল-নৌযুদ্ধ, পশু শিকারসম্পর্কীয় নাটকও আমন্ত্রিত[[দর্শক|দর্শকদের]] মনোরঞ্জনার্থে প্রদর্শন করা হতো। [[মহিলা|মহিলাদের]] মল্লযুদ্ধও অনুষ্ঠিত হতো। অনেক সময় রোমান মহিলারা নামকরা মল্লবীরদের প্রেমে পড়ে গৃহত্যাগও করতেন।<ref>[http://www.dw.de/dw/article/0,,15800694,00.html?maca=ben-newsletter_ben_auf_einen_blick-5180-html-newsletter ডয়সে ভেলের প্রতিবেদনঃ রোমের কলোসিয়ামের সঙ্গে মহিলাদের সম্পর্ক, সংগ্রহকালঃ ১০ মার্চ, ২০১২ইং]</ref>
 
১৮০-১৯০ খ্রিস্টাব্দের মধ্যে রোমান সম্রাট '''কমোডাস''' এখানে প্রদর্শন করেছেন।
 
প্রাক মধ্যযুগ থেকে কলোসিয়াম বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত হলেও মাঝে মাঝে আরো কিছু প্রয়োজনে ব্যবহার হয়েছে যেমন আবাসন, প্রশিক্ষন কেন্দ্র, সৈন্যদের অস্থায়ী ব্যারাক, তীর্থযাত্রীদের আবাসন, এমনকি কোন এক পর্যায়ে দুর্গ হিসেবেও ব্যবহার করা হয়। খৃস্টান সমাধি হিসেবে একসময় কেউ কেউ দাবী করেছেন যদিও এর সমর্থনে খুব শক্ত কোন দলীল নেই। তবে ৬ষ্ঠ শতাব্দীর শেষ ভাগে এম্পিথিয়েটার কাঠামোর মধ্যে একটি চ্যাপেলের নির্মান করা হয় বলে পাওয়া যায়। এরেনা বা মঞ্চ অংশটি সমাধি হিসেবে ঘোষণা করা হয়। বসার আসন সমুহের নিচের ভল্টেড ছাদাবৃত স্খানগুলি বসবাস এবং ওয়ার্কশপের কাজে ব্যবহার হতে থাকে এবং ১২ শতাব্দী পর্যন্ত এ ধারা চালু ছিলো বলে পাওয়া যায়। অতপর তখনকার প্রভাবশালী ফ্রাঞ্জিপানি পরিবার the Frangipani family) কলোসিয়াম কে দখল করে এবং চারদিকে ঘিরে তাদের দুর্গসদৃশ প্রাসাদ হিসেবে ব্যবহার শুরু করে।
৮,৩৭১টি

সম্পাদনা