বাহমানি সালতানাত

মধ্যযুগে ভারতের অন্যতম বৃহৎ রাজ্য

বাহমানি সালতানাত (ফার্সি: سلطان‌نشین بهمنی; উর্দু: بہمنی سلطنت; মারাঠি: बहामनी सल्तनत; কন্নড়: ಬಹಮನಿ ಸುಲ್ತಾನರು; তেলুগু: బహమనీ సామ్రాజ్యం; বাহমানি রাজ্য বা বাহমানি সাম্রাজ্য নামেও পরিচিত) ছিল দক্ষিণ ভারতের একটি মুসলিম রাজ্য এবং মধ্যযুগে ভারতের অন্যতম বৃহৎ রাজ্য।[৭]

বাহমানি সালতানাত

سلطان‌نشین بهمنی
بہمنی سلطنت
बहामनी सल्तनत
ಬಹಮನಿ ಸುಲ್ತಾನರು
బహమనీ సామ్రాజ్యం
১৩৪৭–১৫২৭
বাহমানি সালতানাত, ১৪৭০ খ্রি.[১]
বাহমানি সালতানাত, ১৪৭০ খ্রি.[১]
রাজধানী
প্রচলিত ভাষা
ধর্ম
সুন্নি ইসলাম[৩][৪][৫][৬]
সরকাররাজতন্ত্র
সুলতান 
• ১৩৪৭–১৩৫৮
আলাউদ্দীন বহমন শাহ
• ১৫২৫–১৫২৭
কলিমুল্লাহ শাহ
ঐতিহাসিক যুগমধ্যযুগ
• প্রতিষ্ঠা
৩ আগস্ট ১৩৪৭
• বিলুপ্ত
১৫২৭
মুদ্রাটাকা
পূর্বসূরী
উত্তরসূরী
দিল্লি সালতানাত
মুসুনুরি নায়কগণ
বিজয়নগর সাম্রাজ্য
আদিল শাহী রাজবংশ
কুতুব শাহি রাজবংশ
আহমেদনগর সালতানাত
বিদার সালতানাত
বেরার সালতানাত
মুঘল সাম্রাজ্য
বর্তমানে যার অংশ ভারত

১৫১৮ সালের পর সালতানাত ভেঙে পাঁচটি রাজ্যের উদ্ভব হয়: আহমেদনগর সালতানাত, গোলকুন্ডা সালতানাত, বিদার সালতানাত, বেরার সালতানাত, বিজাপুর সালতানাত। এদেরকে সম্মিলিতভাবে দক্ষিণাত্য সালতানাত বলা হয়।

ইতিহাসসম্পাদনা

বাহমানি সালতানাত দক্ষিণ ভারতের প্রথম স্বাধীন মুসলিম রাজ্য ছিল।[৮] তুর্কি বংশোদ্ভূত সেনাপতি আলাউদ্দিন বাহমান শাহ দিল্লির সুলতান মুহাম্মদ বিন তুগলকের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করে বাহমানি সাম্রাজ্য প্রতিষ্ঠা করেন।[৯] ১৩৪৭ থেকে ১৪২৫ সাল পর্যন্ত আহসানাবাদ (গুলবার্গা) ছিল বাহমানি রাজধানী। এরপর মুহাম্মাদাবাদে (বিদার) রাজধানী স্থানান্তরিত করা হয়। দক্ষিণাত্যের নিয়ন্ত্রণকে কেন্দ্র করে বাহমানিদের সাথে বিজয়নগর সাম্রাজ্যের প্রতিদ্বন্দ্বীতা চলতে থাকে। মাহমুদ গাওয়ানের মন্ত্রীত্বকালীন সময় সালতানাতের ক্ষমতা সর্বো‌চ্চ শিখরে পৌছায়। বিজয়নগরের সম্রাট কৃষ্ণদেবরায় বাহমানি সালতানাতের টিকে থাকা শেষ পর্যায়কে পরাজিত করার পর বাহমানি সালতানাত ভেঙে যায়।[১০]

চিত্রশালাসম্পাদনা

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Schwartzberg, Joseph E. (১৯৭৮)। A Historical atlas of South Asia। Chicago: University of Chicago Press। পৃষ্ঠা 147, map XIV.3 (k)। আইএসবিএন 0226742210 
  2. Ansari 1988, পৃ. 494–499।
  3. Leonard, Karen. "Hindu temples in Hyderabad: state patronage and politics in South Asia." South Asian History and Culture 2, no. 3 (2011): 352-373. "Hyderabad's cultural history stems from the Shia-ruled Bahmani sultanate from the mid-fourteenth century and several of that sultanate's five successors..."
  4. Leonard, Karen. "Reassessing indirect rule in hyderabad: Rule, ruler, or sons-in-law of the state?." Modern Asian Studies 37, no. 2 (2003): 363-379. "he Hindu Kakatiya rulers were followed by Irani Shia Bahmani rulers in the fourteenth century..."
  5. Farooqui Salma Ahmed (২০১১)। A Comprehensive History of Medieval India: From Twelfth to the Mid-Eighteenth Century। Dorling Kindersley Pvt. Ltd। আইএসবিএন 9788131732021 
  6. Rā Kulakarṇī, A.; Nayeem, M. A.; De Souza, Teotonio R. (১৯৯৬)। Medieval Deccan History: Mediaeval Deccan History: Commemoration Volume in Honour of Purshottam Mahadeo Joshi। পৃষ্ঠা 40। আইএসবিএন 9788171545797 
  7. "The Five Kingdoms of the Bahmani Sultanate"। orbat.com। ২০০৭-০২-২৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০১-০৫ 
  8. Ansari, N.H. "Bahmanid Dynasty" Encyclopaedia Iranica
  9. Sen, Sailendra (২০১৩)। A Textbook of Medieval Indian History। Primus Books। পৃষ্ঠা 106–108,117। আইএসবিএন 978-9-38060-734-4 
  10. Eaton, Richard M.। A Social History of the Deccan, 1300-1761: Eight Indian Lives। পৃষ্ঠা 88। 

আরও পড়ুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা