ফ্রেডরিক ফেন

ইংরেজ ক্রিকেটার

ফ্রেডরিক লুথার ফেন, এমসি (ইংরেজি: Frederick Fane; জন্ম: ২৭ এপ্রিল, ১৮৭৫ - মৃত্যু: ২৭ নভেম্বর, ১৯৬০) আয়ারল্যান্ডের কাউন্টি কিলডেয়ারের কারা ক্যাম্পে জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা ইংরেজ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ও অধিনায়ক ছিলেন। ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন। ১৯০৬ থেকে ১৯১০ সময়কালে ইংল্যান্ড দলের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে এসেক্স, অক্সফোর্ড ও লন্ডন কাউন্টির প্রতিনিধিত্ব করেছেন ফ্রেডরিক ফেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন।

ফ্রেডরিক ফেন
Frederick Fane 1912cr.jpg
১৯১২ সালে ফ্রেডরিক ফেন
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম(১৮৭৫-০৪-২৭)২৭ এপ্রিল ১৮৭৫
কারা ক্যাম্প, কাউন্টি কিলডেয়ার, আয়ারল্যান্ড
মৃত্যু২৭ নভেম্বর ১৯৬০(1960-11-27) (বয়স ৮৫)
কেলভেডন হ্যাচ, এসেক্স
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরন-
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১৪ ৪১৭
রানের সংখ্যা ৬৮২ ১৮৫৪৮
ব্যাটিং গড় ২৬.২৩ ২৭.৩৯
১০০/৫০ ১/৩ ২৫/৮৩
সর্বোচ্চ রান ১৪৩ ২১৭
বল করেছে ৫৬
উইকেট
বোলিং গড় - ২৪.৫০
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং - ২/১৭
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৬/০ ১৯৪/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

শৈশবকালসম্পাদনা

আয়ারল্যান্ডের কাউন্টি কিলডেয়ারের কারা ক্যাম্পে ফ্রেডরিক ফেনের জন্ম। তার বাবা ফ্রেডরিক জন ফেন ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা ছিলেন ও দক্ষিণ গ্লুচেস্টারশায়ারের ৬১তম পদাতিক রেজিমেন্টে অবস্থান করতেন।[১] ওয়েস্টমোরল্যান্ড আর্লস পরিবারের বিখ্যাত রাজনীতিবিদ জন ফেন সম্পর্কে তার আত্মীয় ছিলেন। চার্টারহাউজ স্কুলে অধ্যয়নশেষে অক্সফোর্ডের মাগদালেন কলেজে পড়াশোনা করেছেন তিনি।[২]

টেস্ট ক্রিকেটসম্পাদনা

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে ১৪ টেস্টে অংশগ্রহণের সুযোগ হয় তার। ২ জানুয়ারি, ১৯০৬ তারিখে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। তন্মধ্যে, পাঁচবার ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। আর্থার জোন্সের আঘাতপ্রাপ্তির কারণে তিনবার ও এইচ. ডি. জি. লেভেসন গাওয়ারের পরিবর্তে দুইবার এ দায়িত্বে ছিলেন। তার অধিনায়কত্বে দুই খেলায় জয় ও তিনটি খেলায় পরাজিত হয় ইংল্যান্ড দল।

আয়ারল্যান্ডে জন্মগ্রহণকারী প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে ইংল্যান্ডের পক্ষে সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি। শতাধিক বছর পর্যন্ত তার এ কীর্তিগাঁথা টিকেছিল। পরবর্তীতে জুলাই, ২০১০ সালে ট্রেন্ট ব্রিজে সফরকারী পাকিস্তানের বিপক্ষে ইয়ন মর্গ্যান তার এ রেকর্ডের সাথে যুক্ত হন।

বিশ্বযুদ্ধে অংশগ্রহণসম্পাদনা

প্রথম বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন ওয়েস্ট ইয়র্কশায়ার রেজিমেন্টে কমিশন্ডপ্রাপ্ত হন। ১৯১৭ সালে টহলরত অবস্থায় পরম নিষ্ঠা ও সাহসিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করায় মিলিটারি ক্রস পুরস্কারপ্রাপ্ত হন। তুমুল যুদ্ধ চলাকালে মূল্যবান তথ্যপ্রাপ্তির ফলে সৈনিকদেরকে পিছু হটার নির্দেশনা দিতে বাধ্য হয়েছিলেন। তিনি শান্তিপ্রিয়তা ও স্থির সংকল্পবদ্ধ ছিলেন।[৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Hart, H.G.The new annual army list, militia list, and Indian civil service list for 1875। পৃষ্ঠা 307। 
  2. "Frederick Fane"CricketArchive 
  3. "নং. 30135"দ্যা লন্ডন গেজেট (সম্পূরক) (ইংরেজি ভাষায়)। ১৫ জুন ১৯১৭। 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা