প্লেবয় বানি (ইংরেজি: Playboy Bunny) হচ্ছে প্লেবয় ক্লাবের ওয়েট্রেসের পদবী। প্লেবয় ক্লাবগুলো মূলত চালু ছিলো ১৯৬০ থেকে ১৯৮৮ পর্যন্ত। ২০০৬ সালে লাস ভেগাসের পাম হোটেলে মাত্র একটি শাখাই নতুন করে চালু করা হয়।[১] বানিরা যে পোশাক পরে তা ‘বানি স্যুট’ নামে পরিচিত। বানি স্যুটের ধারণা এসেছে মূলত প্লেবয়ের খরগোশ প্রতীকের কালো টাই থেকে। এটিসহ বানি স্যুটের অন্যান্য অংশগুলো হচ্ছে কর্সেট, বানি কান, একটি কলার, কাফ, এবং তুলার তৈরি একটি স্ফীত, গুটিপাকানো লেজ।

প্লেবয় ম্যানসনে একজন প্লেবয় বানি, অক্টোবর ২০০৫

আচরণ ও প্রশিক্ষণসম্পাদনা

প্লেবয় ক্লাবগুলোতে যে-সকল ওয়েট্রেস পানীয় সরবরাহ করে তাদেরকেই প্লেবয় বানি বলা হয়। সেখানে বিভিন্ন ধরনের কাজের জন্য বিভিন্ন ধরনের বানি রয়েছে। যেমন: ডুওর বানি, সিগারেট বানি, ফ্লোর বানি, প্লেমেট বানি, এবং জেট বানি (যে-সকল বানি প্লেবয় জেট প্লেনে কাজ করে)। বানি গার্ল পদের জন্য খুব সতর্কতার সাথে অডিশনের মাধ্যমে বানি নির্বাচন করা হয়। বানিকে ১৪৩ ব্র্যান্ডের লিকার (এক প্রকার কড়া মদ) আলাদাভাবে চিনতে হয়, এবং সেগুলো থেকে ২০ ধরনের ককটেইল তৈরির কৌশল আয়ত্ত করতে হয়। ক্রেতাদের সাথে কোনো ধরনের ডেটিং কড়াকড়িভাবে নিষিদ্ধ, এবং ক্রেতাদেরকেও বানিদেরকে স্পর্শ করার অনুমতি নেই। প্লেবয় ক্লাবের শুধুমাত্র সি১ বা খুব গুরুত্বপূর্ণ সদস্যরাই বানিদের সাথে ডেট করার অনুমতি পান।

বানি পোশাকসম্পাদনা

প্লেবয় বানির পোশাক হচ্ছে প্রথম সার্ভিস ইউনিফর্ম, যা যুক্তরাষ্ট্রের পেটেন্ট ও ট্রেডমার্ক অফিসে পেটেন্টভুক্ত করা হয় (রেজিস্ট্রেশন নম্বর ০৭৬২৮৮৪)।[২] পোশাকটি রেয়নের তৈরি উইডো কর্সেটের তৈরি, মাথার ওপরে বানি কানযুক্ত, পেছনে তুলার লেজ, কালো টাই যুক্ত কলার, হাতে কাফ, কালো প্যান্টিহোস এবং তার সাথে মিলিয়ে উঁচু হিলের জুতা। বানির নামের ট্যাগপ্লেটটি থাকে তার ডান হিপ অস্থির ওপরাংশে।

ক্লাবে কর্মরত প্রত্যেক বানির জন্য এই পোশাক আলাদা করে বানানো হয়। যখনই ক্লাব খোলা থাকুক না কেনো তাদের এই পোশাক পরেই কাজ করতে হয়। পোশাকটি দুই ভাগে বিভক্ত। উপরাংশটি বিভিন্ন প্রকার ব্রা কাপ আকৃতি অনুসারে আগে থেকেই প্রস্তুত করা থাকে, এবং নিচের অংশটি বানির দেহের আকৃতি ও পেছনের লেজের সাথে মিলিয়ে পরবর্তীকালে দুটো অংশ সেলাই করে দেওয়া হয়।

বানিদের দায়িত্বে থাকেন একজন নারী, যিনি ‘বানি মাদার’ (Bunny Mother) নামে পরিচিত। তার কাজ অনেকটা মানব সম্পদ কর্মকর্তার মতো। তিনি বানিদের বিভিন্ন কাজের দায়িত্ব বণ্টন, নিয়োগ, চাকরিচ্যুত প্রভৃতি কর্ম সম্পাদন করেন। ক্লাব ম্যানেজারের বানিদের ব্যাপারে খুব একটা দায়িত্ব নেই। প্লেবয় এন্টারপ্রাইজের নিয়মানুসারে তাদের সকল নিয়োগকর্মী তাদের কর্মের মেয়াদকাল শেষে প্রতিষ্ঠানের পোশাক ফেরত দিতে বাধ্য থাকেন, এবং এ নিয়মানুসারে প্লেবয় বানির কিছু পোশাক তাদের গুদামে সংরক্ষিত থাকে। এগুলো মাঝেমধ্যে অনলাই নিলাম ওয়েবসাইট ইবে-এর মাধ্যমে নিলামে বিক্রি করা হয়।[৩] দর্শনার্থীদের জন্য দুটি আসল বানি পোশাক দ্য স্মিথসোনিয়ান[৪] ও শিকাগো হিস্টোরি মিউজিয়ামে সংরক্ষিত আছে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Ryan Nakashima (10-01-2006)। "New Playboy club opens in Vegas"http://www.playboy.co.uk/girls/magazine-classic/33904/4/Playboy-Bunnies-of-Chicago/। ওয়াশিংটন পোস্ট।  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য); |ওয়েবসাইট= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  2. Borchert, Kristie (জানুয়ারি ১২, ২০০৯)। "Playboy Bunny Costume: The First US Patent and Trademark Uniform"। Associated Content। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১০ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. explayboybunny.com FAQ'S
  4. HistoryWired: A few of our favorite things

বহিঃসংযোগসম্পাদনা