প্রধান মেনু খুলুন

প্রথম এলিজাবেথ (সেপ্টেম্বর ৭, ১৫৩৩‌ - মার্চ ২৪, ১৬০৩) ১৭ নভেম্বর ১৫৫৮ থেকে তার মৃত্যুর আগ পর্যন্ত ইংল্যান্ডের রাণী, ফ্রান্সের রাণী (পদাধিকার অনুসারে) ও আয়ারল্যান্ডের রাণী ছিলেন। ১৫৩৩ সালের ৭ই সেপ্টেম্বর ইংল্যান্ডের গ্রিনউইচে জন্মগ্রহণ করেন তিনি।

প্রথম এলিজাবেথ
Darnley stage 3.jpg
প্রথম এলিজাবেথের "ডার্নলি পোর্ট্রেট"(আঃ ১৫৭৫)
ইংল্যান্ডের রাণী
রাজত্ব১৭ নভেম্বর ১৫৫৮ –
২৪ মার্চ ১৬০৩
রাজ্যাভিষেক১৫ জানুয়ারি ১৫৫৯
পূর্বসূরিপ্রথম মেরিদ্বিতীয় ফিলিপ
উত্তরসূরিপ্রথম জেমস
জন্ম৭ সেপ্টেম্বর ১৫৩৩
প্লাসেন্টিয়া প্রাসাদ, গ্রিনিচ, ইংল্যান্ড
মৃত্যু২৪ মার্চ ১৬০৩(1603-03-24) (বয়স ৬৯)
রিচমন্ড প্রাসাদ, সারে, ইংল্যান্ড
সমাধিওয়েস্টমিন্সটার অ্যাবে
রাজবংশটিউডর বংশীয়
পিতারাজা ৮ম হেনরি
মাতাঅ্যান বোলিন
ধর্মঅ্যাংলিকান
স্বাক্ষরপ্রথম এলিজাবেথ স্বাক্ষর

টিউডর রাজবংশের পঞ্চম ও সর্বশেষ রানী ছিলেন তিনি। তার বাবা ছিলেন রাজা অষ্টম হেনরি। এলিজাবেথের বয়স যখন মাত্র আড়াই বছর তখন তার মা অ্যান বোলিনকে শিরচ্ছেদ করে হত্যা করা হয় এবং এলিজাবেথকে অবৈধ ঘোষণা করা হয়।

এ অবস্থায় উত্তরাধিকার সংক্রান্ত জটিলতা কাটাতে ভাই ষষ্ঠ এডওয়ার্ড সিংহাসনের ভার অর্পণ করেন লেডি জেন গ্রে-এর উপর। ১৫৫৮ সালের ১৭ নভেম্বর এলিজাবেথ সেবান রানী প্রথম মেরির স্থলাভিষিক্ত হন।

প্রোটেস্ট্যান্ট বিদ্রোহীদের সহযোগিতা দানের অভিযোগে এলিজাবেথ ক্যাথলিক অনুসারী মেরির শাসনকালে এক বছর অন্তরীণ ছিলেন। পরবর্তীকালে রানী হিসেবে এলিজাবেথের প্রথম পদক্ষেপ ছিল ইংলিশ প্রোটেস্ট্যান্ট চার্চ প্রতিষ্ঠা করা, যার সর্বোচ্চ গভর্নর ছিলেন তিনি নিজেই। এলিজাবেথ অবিবাহিতা ছিলেন। এজন্য বিতর্কও তার পিছু নিয়েছিল।

মৃত্যুর ২০ বছর পরও সোনালি যুগের শাসক হিসেবে সমাদৃত ছিলেন তিনি। তার শাসনকাল "এলিজাবেথান এরা" বা এলিজাবেথীয় যুগ নামে পরিচিত। শেকসপিয়রের নাটকে এলিজাবেথান এরা ঘুরেফিরে এসেছে। ১৬০৩ সালের ২৪ মার্চ রিচমন্ডে পরলোক গমন করেন তিনি।