পের্পিনিয়ঁ

দক্ষিণ ফ্রান্সের পিরেনে-ওরিয়ঁতাল দেপার্ত্যমঁ-র (জেলার) প্রধান শহর

পের্পিনিয়ঁ (ফরাসি : [pɛʁpiɲɑ̃] (এই শব্দ সম্পর্কেশুনুন); কাতালান: Perpinyà [pəɾpiˈɲa]; অক্সিতঁ: Perpinhan) দক্ষিণ-পশ্চিম ফ্রান্সের পিরেনে-অরিয়ঁতাল দেপার্তমঁর একটি প্রেফ্যক্ত্যুর বা প্রশাসনিক জেলা এবং পের্পিনিয়ঁ মেদিতরানে মেত্রোপোলের কেন্দ্রীয় শহর। পের্পেনিয়ঁ সাবেক প্রদেশ ও রুসিয়োঁ কাউন্টির রাজধানী ছিল এবং ১৩শ ও ১৪শ শতাব্দীতে মায়োর্কা রাজ্যের মহাদেশীয় রাজধানী ছিল। ২০১৬ সালে পের্পিনিয়ঁ কম্যুনের জনসংখ্যা ছিল ১২১,৮৭৫ এবং মহানগর এলাকার মোট জনসংখ্যা ছিল ২৬৮,৫৭৭।

পের্পিনিয়ঁ
Perpinyà  (কাতালান)
প্রেফ্যক্ত্যুরকম্যুন
Perpignan banner.jpg
Perpignan - panoramio.jpg
Quai Sébastien Vauban - panoramio.jpg
Castillet in Perpignan.jpg
পের্পিনিয়ঁ প্রতীক
প্রতীক
পের্পিনিয়ঁ ফ্রান্স-এ অবস্থিত
পের্পিনিয়ঁ
পের্পিনিয়ঁ
স্থানাঙ্ক: ৪২°৪১′৫৫″ উত্তর ২°৫৩′৪৪″ পূর্ব / ৪২.৬৯৮৬° উত্তর ২.৮৯৫৬° পূর্ব / 42.6986; 2.8956স্থানাঙ্ক: ৪২°৪১′৫৫″ উত্তর ২°৫৩′৪৪″ পূর্ব / ৪২.৬৯৮৬° উত্তর ২.৮৯৫৬° পূর্ব / 42.6986; 2.8956
দেশ ফ্রান্স
নগরের পৌরসভাপের্পিনিয়ঁ
ক্যান্টনপের্পিনিয়ঁ-১, , , ,
আন্তঃগোষ্ঠীপের্পিনিয়ঁ মেদিতরানে মেত্রোপোল
সরকার
 • মেয়র (২০২০–২০২৬) লুই আলিয়ো (আরএন)
আয়তন৬৮.০৭ বর্গকিমি (২৬.২৮ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (টেমপ্লেট:France metadata Wikidata)টেমপ্লেট:France metadata Wikidataটেমপ্লেট:France metadata Wikidata
বিশেষণপের্পিনিয়েঁ
সময় অঞ্চলসিইটি (ইউটিসি+০১:০০)
 • গ্রীষ্মকালীন (দিসস)সিইএসটি (ইউটিসি+০২:০০)
আইএনএসইই/ডাক কোড৬৬১৩৬ /৬৬০০০
উচ্চতা৮–৯৫ মি (২৬–৩১২ ফু)
(avg. ৩০ মি অথবা ৯৮ ফু)
ওয়েবসাইটwww.mairie-perpignan.fr (in ফরাসি) www.ajuntament-perpinya.cat (in কাতালান)
ফ্রান্সের ভূমি রেজিস্টার তথ্য, যার ভেতর হ্রদ, পুকুর, হিমবাহ > ১ বর্গকি.মি.(০.৩৮৬ বর্গ মাইল বা ২৪৭ একর) এবং নদীর মোহনা অন্তর্ভূক্ত নয়।

শহরটি ভূমধ্যসাগর উপকূল থেকে ১৩ কিমি পশ্চিমে অবস্থিত। রোমান শাসনামলে এই শহরে প্রথম জনবসতি গড়ে ওঠে।

ইতিহাসসম্পাদনা

পের্পিনিয়ঁতে প্রথম জনবসতি গড়ে ওঠেছিল রোমান শাসনামলে। মধ্যযুগীয় পের্পিনিয়ঁ শহরটি ১০ম শতাব্দীর শুরুর দিকে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল বলে অনুমান করা হয়। অচিরেই পের্পিনিয়ঁ রুসিয়োঁ কাউন্টির রাজধানী হয়ে ওঠে। ঐতিহাসিকভাবে, এটি সেপ্তিমানিয়া নামে পরিচিত একটি অঞ্চলের অংশ ছিল। ১১৭২ সালে কাউন্ট দ্বিতীয় জিরার উইল মারফত বার্সেলোনার কাউন্টদের নিকট তার জমি দান করে যান। ১১৯৭ সালে পের্পিনিয়ঁ অংশিক সায়ত্বশাসিত কম্যুনে পরিণত হয়। করবেল চুক্তির মধ্য দিয়ে নবম লুইকে রুসিয়োঁর সামন্ততান্ত্রিক অধিকার প্রদান করা হয়।

আরাগোনের রাজা ও বার্সেলোনার কাউন্ট দিগ্‌বিজয়ী প্রথম জেমস ১২৭৬ সালে মায়োর্কা রাজ্য প্রতিষ্ঠা করলে পের্পিনিয়ঁ এই নব্য প্রতিষ্ঠিত রাজ্যের প্রধান ভূখণ্ডগুলোর রাজধানী হয়। পরবর্তী দশককে এই শহরের ইতিহাসের স্বর্ণযুগ বলে আখ্যায়িত করা হয়। শহরটি পোশাক উৎপাদন, চামড়াজাত শিল্প, স্বর্ণকার, ও অন্যান্য বিলাসবহুল জিনিসপত্রের কেন্দ্র হিসেবে উন্নতি লাভ করে। ফ্রান্সের রাজা দ্বিতীয় ফিলিপ ১২৮৫ সালে আরাগোনীয় সম্রাটের বিরুদ্ধে ব্যর্থ এক আক্রমণ থেকে ফিরে আসার পথে মারা যান।

১৩৪৪ সালে আরাগোনের চতুর্থ পেরো পূর্বে বার্সেলোনা কাউন্টির অংশ মায়োর্কা রাজ্য ও পের্পিনিয়ঁকে তার রাজ্যের সাথে সংযুক্ত করে। কয়েক বছর পর কালো মৃত্যুর ফলে এই শহরের প্রায় অর্ধেক বাসিন্দা মারা যায়। ১৪৬৩ সালে ফ্রান্সের একাদশ লুই শহরটি আক্রমণ করে ও দখন করে নেয়। ১৪৭৩ সালে ফরাসি শাসনের বিরুদ্ধে সহিংস অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে শহরটি বন্দি করে ফেলে, কিন্তু ১৪৯৩ সালে ফ্রান্সের অষ্টম শার্ল নিকে মুক্ত করে ইতালি আক্রমণের লক্ষ্যে বিরোধ দূর করার সিদ্ধান্ত নেন এবং আরাগোনের দ্বিতীয় ফের্দিনান্দের নিকট শাসনভার হস্তান্তর করেন।

২০২০ সালের জুন মাসে মারাঁ ল্য পেন দলের লুই আলিও পের্পিনিয়ঁ শহরের নগরপাল নির্বাচনে জয় লাভ করেন। এই প্রথমবার মারাঁ ল্য পেন দলের কোন নেতা ১০০,০০০ জনের অধিক বাসিন্দা বিশিষ্ট কোন শহরে জয় পেয়েছে।[১][২]

ভূগোলসম্পাদনা

পের্পিনিয়ঁ রুসিয়োঁ সমভূমির মধ্যবর্তী স্থানে ভূমধ্যসাগর উপকূলের ১৩ কিমি পশ্চিমে অবস্থিত। এটি ফ্রান্সের মহানগরের সর্বদক্ষিণের শহর।

পের্পিনিয়ঁর উপর দিয়ে রুসিয়োঁর দীর্ঘতম নদী তেত এবং এর শাখা নদী বাস প্রবাহিত হয়েছে। এখানে প্রায়ই বন্যা হয়ে থাকে। ১৮৯২ সালে তেত নদীর পানি বৃদ্ধি পেলে পের্পিনিয়ঁ শহরের ৩৯টি বাড়ি ধ্বংস হয়েছিল এবং ৬০-এর অধিক পরিবার গৃহহীন হয়েছিল।[৩]

পরিবহনসম্পাদনা

সড়কপথসম্পাদনা

মোটরওয়ে এ৯ পের্পিনিয়ঁ থেকে বার্সেলোনামোঁপেলিয়েতে যাতায়াত করে।

রেলপথসম্পাদনা

পের্পিনিয়ঁ প্রধান রেলওয়ে স্টেশন হল গার দ্য পের্পিনিয়ঁ রেলওয়ে স্টেশন। এখান থেকে পারি, বার্সেলোনা, তুলুজ ও অন্যান্য আঞ্চলিক গন্তব্যে রেল পরিবহন সেবা প্রদান করা হয়।

আকাশপথসম্পাদনা

এই শহর থেকে সবচেয়ে নিকটবর্তী বিমানবন্দর হল পের্পিনিয়ঁ-রিভেসালতেস বিমানবন্দর।

শিক্ষাসম্পাদনা

১০,০০০-এর অধিক ২ থেকে ১২ বছর বয়সী শিক্ষার্থী এই শহরের ৬১টি প্রাক-বিদ্যালয় ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে।[৪] পের্পিনিয়ঁ শহরে ২৬টি উচ্চ বিদ্যালয় রয়েছে।[৫]

অর্থনীতিসম্পাদনা

শহরের অর্থনীতি দ্রাক্ষাসুরা, জলপাইয়ের তেল, কর্ক, পশম, চামড়া ও লৌহ শিল্পের উপর নির্ভরশীল। ১৯০৭ সালের মে মাসে মূল্য হ্রাসের পর দ্রাক্ষাসুরার গুণমান অক্ষুণ্ন রাখার জন্য দক্ষিণাঞ্চলীয় উৎপাদনকারীরা এখানে আলোচনা করেন। পের্পিনিয়ঁতে বর্তমানে জিওবি রোলিং কাগজ উৎপাদন করা হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Far-right to win southern French town of Perpignan: exit poll"রয়টার্স (ইংরেজি ভাষায়)। ২৮ জুন ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  2. "France's Greens make gains, Macron loses ground in low-turnout local elections"ফ্রান্স টোয়েন্টিফোর (ইংরেজি ভাষায়)। ২৮ জুন ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  3. Fabricio Cardenas। "Vieux papiers des Pyrénées-Orientales: Inondations en novembre 1892"। Vieuxpapierspo (ফরাসি ভাষায়)। 
  4. "Ecoles"মারি দ্য পের্পিনিয়ঁ। সংগ্রহের তারিখ ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  5. "ECOLES À PERPIGNAN (66000)"জার্নাল দে ফেম। সংগ্রহের তারিখ ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা