প্রধান মেনু খুলুন

পুরী জেলা

ওড়িশার একটি জেলা

পুরী জেলা(ওড়িয়া: ପୁରୀ ଜିଲ୍ଲା, প্রতিবর্ণী. পুরী জিল্লা) পূর্ব ভারতে অবস্থিত ওড়িশা রাজ্যের ৩০ টি জেলার একটি জেলা৷ ১৫ই আশ্বিন ১৩৯৯ বঙ্গাব্দে পূর্বতন পুরী জেলাটি বিভক্ত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ও ১৮ই চৈত্র ১৩৯৯(২রা অক্টোবর ১৯৯২ খ্রিস্টাব্দে) বঙ্গাব্দে(১লা এপ্রিল ১৯৯৩ খ্রিস্টাব্দে) নতুন পুরী জেলাসহ আরো দুটি জেলা গঠিত হয়৷ জেলাটি ওড়িশার কেন্দ্রীয় ওড়িশা বিভাগের অন্তর্গত৷ জেলাটির জেলাসদর পুরী শহরে অবস্থিত এবং পুরী মহকুমা নিয়ে গঠিত৷

পুরী জেলা
ପୁରୀ ଜିଲ୍ଲା
ওড়িশার জেলা
ওড়িশায় পুরীর অবস্থান
ওড়িশায় পুরীর অবস্থান
দেশভারত
রাজ্যওড়িশা
প্রশাসনিক বিভাগকেন্দ্রীয় ওড়িশা বিভাগ
সদরদপ্তরপুরী
তহশিল১১
আয়তন
 • মোট৩৪৭৯ কিমি (১৩৪৩ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট১৬,৯৮,৭৩০
 • জনঘনত্ব৪৯০/কিমি (১৩০০/বর্গমাইল)
জনতাত্ত্বিক
 • সাক্ষরতা৮৪.৬৭ শতাংশ
 • লিঙ্গানুপাত৯৬৩
গড় বার্ষিক বৃষ্টিপাত১৪০৯ মিমি
ওয়েবসাইটদাপ্তরিক ওয়েবসাইট

নামকরণসম্পাদনা

স্থানীয়রা পুরীকে শ্রীজগন্নাথদেবের শ্রীক্ষেত্র বলে উল্লেখ করেন৷ ঋগ্বেদে পুরীর নাম রয়েছে পুরুষমণ্ডমগ্রাম রূপে, যার অর্থ সৃষ্টিকর্তার মন্ডলকৃৃত বাসস্থান৷ পরবর্তীকালে পুরুষোত্তমগ্রাম, পুরুষোত্তমপুরী, জগন্নাথ পুরী ও সর্বশেষে পুরী নামে পরিচিতি লাভ পেয়েছে৷[১] আবার সংস্কৃত ভাষাতে পুরী শব্দের অর্থ জনবহুল নগরীকে বোঝায়৷

ইতিহাসসম্পাদনা

ভূপ্রকৃৃতিসম্পাদনা

অর্থনীতিসম্পাদনা

অবস্থানসম্পাদনা

জেলাটির উত্তরে ওড়িশা রাজ্যের কটক জেলাজেলাটির উত্তর পূর্বে(ঈশান) ওড়িশা রাজ্যের জগৎসিংহপুর জেলাজেলাটির দক্ষিণ পশ্চিমে(নৈঋত) ওড়িশা রাজ্যের গঞ্জাম জেলাজেলাটির পশ্চিমে ওড়িশা রাজ্যের খোর্দ্ধা জেলাজেলাটির উত্তর পশ্চিমে(বায়ু) ওড়িশা রাজ্যের খোর্দ্ধা জেলা অবস্থিত৷[২] জেলাটির দক্ষিণাংশে চিল্কা হ্রদ ও দক্ষিণ পূর্বে(অগ্নি) বঙ্গোপসাগর অবস্থিত৷

জেলাটির আয়তন ৩৪৭৯ বর্গ কিমি৷ রাজ্যের জেলায়তনভিত্তিক ক্রমাঙ্ক ৩০ টি জেলার মধ্যে তম৷ জেলার আয়তনের অনুপাত ওড়িশা রাজ্যের ২.২৩%৷

ভাষাসম্পাদনা

পুরী জেলায় প্রচলিত ভাষাসমূহের পাইচিত্র তালিকা নিম্নরূপ -

২০১১ অনুযায়ী পুরী জেলার ভাষাসমূহ[৩]

  ওড়িয়া (৯৫.০৯%)
  উর্দু (২.৩৬%)
  তেলুগু (১.৯২%)
  অন্যান্য (০.৬৩%)

ধর্মসম্পাদনা

জনসংখ্যার উপাত্তসম্পাদনা

মোট জনসংখ্যা ১৫০২৬৮২(২০০১ জনগণনা) তথা ১৬৯৮৭৩০(২০১১ জনগণনা)৷ রাজ্যে জনসংখ্যাভিত্তিক ক্রমাঙ্ক ৩০ টি জেলার মধ্যে ৯ম৷ ওড়িশা রাজ্যের ৪.০৫% লোক পুরী জেলাতে বাস করেন৷ জেলার জনঘনত্ব ২০০১ সালে ৪৩২ ছিলো এবং ২০১১ সালে তা বৃদ্ধি পেয়ে ৪৮৮ হয়েছে৷ জেলাটির ২০০১-২০১১ সালের মধ্যে জনসংখ্যা বৃৃদ্ধির হার ১৩.০৫% , যা ১৯৯১-২০১১ সালের ১৫.১২% বৃদ্ধির হারের থেকে কম৷ জেলাটিতে লিঙ্গানুপাত ২০১১ অনুযায়ী ৯৬৩(সমগ্র) এবং শিশু(০-৬ বৎ) লিঙ্গানুপাত ৯৩২৷[৪]

নদনদীসম্পাদনা

পরিবহন ও যোগাযোগসম্পাদনা

পর্যটন ও দর্শনীয় স্থানসম্পাদনা

ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিসম্পাদনা

শিক্ষাসম্পাদনা

জেলাটির স্বাক্ষরতা হার ৭৭.৯৬%(২০০১) তথা ৮৪.৬৭%(২০১১)৷ পুরুষ স্বাক্ষরতার হার ৮৮.০৮%(২০০১) তথা ৯০.৮৫%(২০১১)৷ নারী স্বাক্ষরতার হার ৬৭.৫৭%(২০০১) তথা ৭৮.২৮% (২০১১)৷ জেলাটিতে শিশুর অনুপাত সমগ্র জনসংখ্যার ১০.১৮%৷[৪]

প্রশাসনিক বিভাগসম্পাদনা

সীমান্তসম্পাদনা

বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা