পলাশী মনুমেন্ট

স্থানাঙ্ক: ২৩°৪৭′৪২″ উত্তর ৮৮°১৪′৪৮″ পূর্ব / ২৩.৭৯৫০৫৫৫° উত্তর ৮৮.২৪৬৫৯৮৭° পূর্ব / 23.7950555; 88.2465987

পলাশী মনুমেন্ট বা পলাশী স্মৃতিস্তম্ভ হল ঐতিহাসিক পলাশীর যুদ্ধর স্মৃতিতে প্রোথিত একটি স্মারকস্তম্ভ যা পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের নদীয়া জেলায় পলাশীতে অবস্থিত। বর্তমানে এই স্মারকটি ভারতীয় পুরাতত্ব সর্বেক্ষণের অধীন। ২০০৭ সালে যুদ্ধের ২৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে ভারত-বাংলাদেশ-পাকিস্তান পিপলস ফোরাম কতৃক এই মনুমেন্টের পাশে নবাব সিরাজউদ্দৌলার মূর্তি স্থাপিত হয়েছে। ১৭৫৭ সালের ২৩ জুন পলাশীর প্রান্তরে ইংরেজদের সাথে নবাব সিরাজউদ্দৌলার যুদ্ধে বিশ্বাসঘাতকতার ফলে নবাববাহিনীর সর্বাত্মক পরাজয় ঘটে এই স্থান ১৮৮৩ সালে ব্রিটিশ সরকার প্রথম একটি মনুমেন্ট তৈরি করেন। লর্ড কার্জনের আদেশে ১৯০৯ সালে আরেকটি স্মৃতিস্তম্ভ তৈরি হয়েছিল ইংরেজদের বিজয় স্মারক হিসেবে যা বর্তমানে নদীগর্ভে তলিয়ে গেছে।[১][২]

পলাশী মনুমেন্ট

অবস্থানসম্পাদনা

এই স্মারকটি ভাগীরথী নদীর তীরে, পলাশী রেলওয়ে স্টেশন থেকে ৭ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। কলকাতা থেকে এই জায়গাটি প্রায় ১৫০ কিমি দূরত্বে অবস্থান করে। এই স্থানটি পলাশীর যুদ্ধক্ষেত্র নামে পরিচিত হলেও মূল যুদ্ধক্ষেত্রের অনেকটা অংশই গঙ্গায় ভাঙনের ফলে তলিয়ে গিয়েছে। বর্তমানে পলাশী মনুমেন্টকে কেন্দ্র করে পর্যটন গড়ে উঠেছে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "পলাশীর প্রান্তরে এক বেলা"দৈনিক প্রথম আলো। ১৭ জুন ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  2. "পলাশীর আম বাগান ও মনুমেন্ট"। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮