ন্যান্সি ওলসন

মার্কিন অভিনেত্রী

ন্যান্সি অ্যান ওলসন (ইংরেজি: Nancy Ann Olson; জন্ম: ১৪ জুলাই ১৯২৮)[১] হলেন একজন মার্কিন অভিনেত্রী। তিনি সানসেট বুলেভার (১৯৫০) চলচ্চিত্রে বেটি শেয়ার চরিত্রে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। তিনি উইলিয়াম হোল্ডেনের বিপরীতে চারটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন এবং পরবর্তীতে ডিজনির দ্য অ্যাবসেন্ট-মাইন্ডেড প্রফেসর (১৯৬১) ও এর অনুবর্তী পর্ব সন অব ফ্লাবের (১৯৬৩) চলচ্চিত্র এবং এয়ারপোর্ট নাইনটিন সেভেন্টি ফাইভ (১৯৭৪) চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।

ন্যান্সি ওলসন
Nancy Olson
Nancy Olson in Union Station trailer.JPG
জন্ম
ন্যান্সি অ্যান ওলসন

(1928-07-14) ১৪ জুলাই ১৯২৮ (বয়স ৯২)
জাতীয়তামার্কিন
পেশাঅভিনেত্রী
কর্মজীবন১৯৪৮-বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীঅ্যালান জে লার্নার (বি. ১৯৫০; বিচ্ছেদ. ১৯৫৭)
অ্যালান ডব্লিউ. লিভিংস্টন (বি. ১৯৬২; মৃ. ২০০৯)
সন্তান

ওলসন ১৯৮০-এর দশকে অভিনয় থেকে অবসর গ্রহণ করলেও তাকে পরবর্তীতে কয়েকটি চলচ্চিত্রে কাজ করতে দেখা যায়। সর্বশেষ তিনি ২০১৪ সালে ডাম্বেলস চলচ্চিত্রে কাজ করেন।

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

ওলসন ১৯২৮ সালের ১৪ই জুলাই উইসকনসিন অঙ্গরাজ্যের মিলওয়াউকি শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা হেনরি জন ওলসন ছিলেন একজন চিকিৎসক এবং মাতা ইভলিন বার্থা (জন্মনাম: বার্গস্ট্রম) ছিলেন স্কুল শিক্ষিকা। তার মাতা সুয়েডীয় বংশোদ্ভূত।[১] তার এক ছোট ভাই রয়েছে, যার নাম ডেভিড। উচ্চ বিদ্যালয়ে নাটক, সঙ্গীত ও বক্তৃতায় অংশগ্রহণের জন্য তাকে সহপাঠিরা "হোলসাম ওলসন" নামে ডাকতেন। তিনি উইসকনসিন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন এবং প্রথম বছরেই তিনি উইসকনসিন প্লেয়ার্সের মঞ্চনাটকে প্রধান চরিত্রে কাজের সুযোগ পান। ইতোমধ্যে তিনি ইউসিএলএ-তে চলে যান, সেখানে তার চাচা তখন ডিন ছিলেন। তিনি তার চাচা ও চাচীর সাথে প্যাসিফিক প্যালিসেডে থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে মঞ্চনাটক বিষয়ে অধ্যয়ন করতেন এবং তার স্বপ্ন ছিল মঞ্চ অভিনয়কে পেশা হিসেবে নেওয়া।[২]

কর্মজীবনসম্পাদনা

ওলসন ১৯৪৮ সালে প্যারামাউন্ট পিকচার্সের সাথে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য চুক্তি করেন। কয়েকটি চলচ্চিত্রে পার্শ্ব চরিত্রে কাজ করার পর প্রযোজকগণ তাকে আরও গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রের জন্য বিবেচনা করা শুরু করেন। তাকে সেসিল বি. ডামিলের স্যামসন অ্যান্ড ডিলাইলা (১৯৪৯) চলচ্চিত্রের জন্য বিবেচনা করা হয়, কিন্তু ওলসন মনে করেন তিনি এই চরিত্রের জন্য উপযুক্ত নন, ফলে কাজটি হেডি লামারকে দেওয়া হয়। তার প্রথম মুখ্য চরিত্রে কাজ ছিল র‍্যান্ডলফ স্কটের বিপরীতে কানাডিয়ান প্যাসিফিক। এরপর তাকে বিলি ওয়াইল্ডারের পরবর্তী চলচ্চিত্রের জন্য নির্বাচন করা হয়। তিনি ওয়াইল্ডারের সানসেট বুলেভার (১৯৫০) চলচ্চিত্রে বেটি শেয়ার চরিত্রে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।[৩] এই চলচ্চিত্রে উইলিয়াম হোল্ডেনের সাথে তার যুগল সফলতা লাভ করে এবং তিনি এরপর আরও তিনটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন, সেগুলো হল ইউনিয়ন স্টেশন, ফোর্স অব আর্মসসাবমেরিন কমান্ড। কিন্তু চলচ্চিত্রগুলো সানসেট বুলেভার-এর মত সফলতা অর্জন করতে পারেনি।[২]

পরবর্তীকালে তিনি বিগ জিম ম্যাকলেইন (১৯৫২), সো বিগ (১৯৫৩) ও ব্যাটল ক্রাই (১৯৫৫) চলচ্চিত্রে কাজ করেন। তিনি ডিজনির দ্য অ্যাবসেন্ট-মাইন্ডেড প্রফেসর (১৯৬১) ও এর অনুবর্তী পর্ব সন অব ফ্লাবের (১৯৬৩) চলচ্চিত্রে ফ্রেড ম্যাকমারির বিপরীতে কাজ করেন।[৪] এছাড়া তিনি এয়ারপোর্ট নাইনটিন সেভেন্টি ফাইভ (১৯৭৪) ও ডাম্বেলস (২০১৪) চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Nancy Olson Biography (1928-)"ফিল্ম রেফারেন্স। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জুলাই ২০১৮ 
  2. ফেইনবার্গ, স্কট (১৯ এপ্রিল ২০২০)। "'Sunset Blvd.' Turns 70: Nancy Olson on Wilder, Holden and Why She Walked Away From Stardom"দ্য হলিউড রিপোর্টার (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জুলাই ২০২০ 
  3. "The 23rd Academy Awards | 1951"অস্কার (ইংরেজি ভাষায়)। একাডেমি অব মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জুলাই ২০২০ 
  4. "A Conversation With Nancy Olson - Program Recap"ওয়াল্ট ডিজনি। ২২ মার্চ ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জুলাই ২০২০ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা