নড়াচড়া ধারণ

যেকোন ধরনের নড়াচড়া, চলন বা গতি অনুসরণ করে সেটিকে ডিজিটাল (সাংখ্যিক) রূপে কম্পিউটার বা গণকযন্ত্রে ধারণ করার পদ্ধতি

নড়াচড়া ধারণ বা গতি ধারণ চলচ্চিত্র শিল্পে ব্যবহৃত চিত্রধারণের একটি কৌশল বিশেষ। একে ইংরেজি ভাষায় মোশন ক্যাপচার (ইংরেজি: Motion capture), মোশন ট্র্যাকিং (motion tracking) বা সংক্ষেপে মোক্যাপ (mocap) নামে ডাকা হয়। এই পদ্ধতিতে চিত্রধারণের সময় নড়াচড়াগুলোকে ধারণ করা হয় এবং সাথে সাথে সেগুলিকে ডিজিটাল (সাংখ্যিক) মানে রূপান্তর করে কম্পিউটার যন্ত্রে ধারণ করে রাখা হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের লরেন্স শহরে এই পদ্ধতিটি আবিষ্কৃত হয়। বিভিন্ন ক্ষেত্রে এটির ব্যবহার বিদ্যমান। যেমন: সামরিক, বিনোদন শিল্প, খেলাধূরা, এবং চিকিৎসা যন্ত্রপাতিতে। চলচ্চিত্রে এটির ব্যবহার মূলত অ্যাকশন দৃশ্যে অভিনেতা অ্যাকশন ধারণের ক্ষেত্রে, এবং সেটিকে ত্রিমাত্রিক চলমান চিত্রনির্মাণ (থ্রিডি অ্যানিমেশন) সচলভাবে উপস্থাপনার ক্ষেত্রে। যখন এই প্রক্রিয়ায় মুখমণ্ডল, আঙ্গুল, এবং অভিব্যক্তিও যোগ করা হয়, তখন এটিকে পরিবেশনা ধারণ (পারফরমেন্স ক্যাপচার) নামেও অভিহিত করা হয়।

একই সঙ্গীতকর্ম বাদনকারী দুইজন পিয়ানোবাদকের আঙুলের নড়াচড়া ধারণ (ধীরগতি, শব্দহীন)।[১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. দৃষ্টি আকর্ষণ: এই টেমপ্লেটি ({{cite doi}}) অবচিত। doi দ্বারা চিহ্নিত প্রকাশনা উদ্ধৃত করার জন্য:10.1371/journal.pone.0050901, এর পরিবর্তে দয়া করে |doi=10.1371/journal.pone.0050901 সহ {{সাময়িকী উদ্ধৃতি}} ব্যবহার করুন।

বহিঃসংযোগসম্পাদনা