দারুচিনি

দারুচিনি গাছের কাণ্ডের স্বাদু ও সুগন্ধি ছাল

দারুচিনি, (ইংরেজি নাম: Cinnamon) (বৈজ্ঞানিক নাম: Cinnamomus Zeylanicum) একটি মসলা বৃক্ষের নাম। স্বাভাবিক পরিবেশে এই বৃক্ষের উচ্চতা দশ থেকে পনের মিটার পর্য্যন্ত হয়ে থাকে। আদি নিবাস শ্রীলংকায়। আজ কাল ইন্দোনেশিয়া, ভারত, বাংলাদেশচীন প্রভৃতি দেশে ও উৎপাদিত হচ্ছে। দেখতে কিছুটা তেজপাতা বৃক্ষের মতো এই বৃক্ষের চামড়াটা মসলা হিসেবে ব্যবহৃত হয়। দারুচিনির সুগন্ধ যুক্ত তৈল ও পাওয়া যায়।

Cinnamon
Cinnamomum verum1.jpg
Cinnamon foliage and flowers
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Plantae
বিভাগ: Magnoliophyta
শ্রেণী: Magnoliopsida
বর্গ: Laurales
পরিবার: Lauraceae[১]
গণ: Cinnamomum
প্রজাতি: C. verum
দ্বিপদী নাম
Cinnamomum verum
J.Presl

দারুচিনি নিছক মসলা হিসেবে দারুচিনি বেশি পরিচিত। কিন্তু এই মসলা স্বাস্থ্যের জন্যও দারুণ উপকারী। তাহলে আসুন জেনে নেয়া যাক...

১) হৃদরোগ প্রতিরোধ - হৃদরোগ প্রতিরোধে দারুচিনি দারুণ সহায়ক। এই মসলা হৃদযন্ত্রের রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখে। এতে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমে যায় অনেকটাই।

২) অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট - দারুচিনিতে রয়েছে পর্যাপ্ত অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। এর ফলে নানা জটিল রোগের বিরুদ্ধে রক্ষাকবচ হিসেবে কাজ করে এই মসলা।

৩) স্নায়বিক স্বাস্থ্য - রক্তে শর্করার পরিমাণ কমাতে সহায়ক দারুচিনি। এর ফলে প্রদাহ কমে, স্নায়বিক স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটে।

৪) ত্বকের যত্নে - দারুচিনি খেলে ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়ে। ব্রণ রোধ করতে দারুণ উপকারী এই মসলা।

৫) স্মৃতিশক্তি বাড়ায় - নিয়মিত দারুচিনি খান। এতে স্মৃতিশক্তি যে বাড়বে, তাতে কোনো সন্দেহ নেই।

৬) পেট ব্যথা উপশম - এই মসলা অ্যাসিডিটির সমস্যা কমায়। এতে পেটের ব্যথা উপশম হয়। এ ছাড়া রক্তে ক্ষতিকর কোলেস্টেরলের (এলডিএল) মাত্রা কমাতে অনন্য ভূমিকা রাখে দারুচিনি।


(প্রিন্স রিচার্ড)

Cinnamon (দারচিনি)

রাসায়নিক গুণসম্পাদনা

দারুচিনির বাকলে থাকে "সিনামাল ডিহাইড" যা দারুচিনির ঘ্রাণের জন্য দায়ী। পাতায় থাকে "ইউজিনল"।

চিত্রশালাসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1.   "Cinnamon"। ব্রিটিশ বিশ্বকোষ6 (১১তম সংস্করণ)। ১৯১১। পৃষ্ঠা 376। [[বিষয়শ্রেণী:উইকিসংকলনের তথ্যসূত্রসহ ১৯১১ সালের এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকা থেকে উইকিপিডিয়া নিবন্ধসমূহে একটি উদ্ধৃতি একত্রিত করা হয়েছে]]