থানকুনি

উদ্ভিদের প্রজাতি

থানকুনি (বৈজ্ঞানিক নাম: Centella asiatica;ইংরেজি: Indian pennywort ইন্ডিয়ান্ পেনিওর্ট্; সিংহলি: ගොටුකොල গোটু কোলা; বাংলাদেশ স্থানীয় নাম (ডোলমানিক)সংস্কৃত: मधुकपर्णी মধুকপর্ণী, খ্‌মের: ត្រចៀកក្រាញ់ ত্রাচিয়াক্ ক্রাঞ্; কন্নড়: ಒಂದೆಲಗ; তামিল: வல்லாரை ভাল্লারাই; মালয়ালম: കുടങ്ങല്‍ কুড়াংঙাল্ বা മുത്തിൾ মুত্তির্ল্) এক ধরনের খুব ছোট বর্ষজীবী ভেষজ উদ্ভিদ। এর বৈজ্ঞানিক পরিবাবের নাম ম্যাকিনলেয়াসি যাকে অনেকে এপিকেসি পরিবাবের উপপরিবার মনে করেন।[১]

থানকুনি
Centella asiatica (থানকুনি) (3).jpg
থানকুনি পাতা
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Plantae
(শ্রেণীবিহীন): Angiosperms
(শ্রেণীবিহীন): Eudicots
(শ্রেণীবিহীন): Asterids
বর্গ: Apiales
পরিবার: Mackinlayaceae
গণ: Centella
প্রজাতি: C. asiatica
দ্বিপদী নাম
Centella asiatica
(L.) Urban
প্রতিশব্দ[১]

Hydrocotyle asiatica L.
Trisanthus cochinchinensis Lour.

বিস্তৃতিসম্পাদনা

বাংলাদেশ, ভারত, সিংহল, উত্তর অস্ট্রেলিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, মালয়েশিয়া, পাপুয়া নিউ গিনি, এবং এশিয়ার অন্যান্য প্রান্তে এই উদ্ভিদ পাওয়া যায়।[২][৩] ভেষজ হিসাবে এর বহুল ব্যবহার আছে আয়ুর্বেদিক, প্রাচীন আফ্রিকীয়, চৈনিকসহ অনেক দেশের চিকিৎসাবিদ্যায়। এর বৈজ্ঞানিক নাম আগে ছিল Hydrocotyle asiatica L. এবং Trisanthus cochinchinensis (Lour.)।

রসায়নসম্পাদনা

সেন্টেল্লায় এশিয়াটিকোসাইড, ব্রাহ্মোসাইড, অ্যাসিইয়্যাটিক অ্যাসিড এবং ব্রাহ্মিক অ্যাসিড (ম্যাড্যাস্যাসিক অ্যাসিড) সহ পেন্টাসাইক্লিক ট্রাইটারপেনয়েড রয়েছে। অন্যান্য উপাদানগুলির মধ্যে রয়েছে সেন্টিলোজ, সেন্টেলোসাইড এবং ম্যাডেক্যাসোসাইড।[৪][৫][৬]

গুনাগুণসম্পাদনা

  • এতে আছে প্রচুর ভিটামিন সি তাই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।
  • মুখের ব্রণ দুর করে।
  • মুখে ঘা ও অন্যান্য ক্ষতে উপকারী।
  • সর্দির জন্য উপকারী।
  • পেটের অসুখে থানকুনির ব্যবহার আছে।
  • আমাশয়ে ভাল কাজ করে।[৭]
  • সাময়িকভাবে কাশি কমাতে সাহায্য করে।
  • গলা ব্যাথার জন্য উপকারি

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Centella asiatica (Asiatic pennywort)"। Invasive Species Compendium, CABI। ২২ নভেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৮ 
  2. United States Department of Agriculture। "Plant Profile for Centella asiatica"। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জুলাই ২০১২ 
  3. "Centella asiatica"floridata.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৮ 
  4. Singh, Bhagirath; Rastogi, R. P. (১৯৬৯-০৫-০১)। "A reinvestigation of the triterpenes of Centella asiatica"Phytochemistry (ইংরেজি ভাষায়)। 8 (5): 917–921। আইএসএসএন 0031-9422ডিওআই:10.1016/S0031-9422(00)85884-7 
  5. Singh, Bhagirath; Rastogi, R. P. (১৯৬৮-০৮-০১)। "Chemical examination of Centella asiatica linn—III: Constitution of brahmic acid"Phytochemistry (ইংরেজি ভাষায়)। 7 (8): 1385–1393। আইএসএসএন 0031-9422ডিওআই:10.1016/S0031-9422(00)85642-3 
  6. Textbook of natural medicine। Pizzorno, Joseph E., Jr., Murray, Michael T. (4th ed সংস্করণ)। St. Louis, Mo.। আইএসবিএন 978-1-4557-4014-7ওসিএলসি 812923962 
  7. আঃ খালেক মোল্লা সম্পাদিত;লোকমান হেকিমের কবিরাজী চিকিৎসা; আক্টোবর ২০০৯; পৃষ্ঠা- ২২১

বহিঃসংযোগসম্পাদনা