স্যার থমাস মুর (রোমান ক্যাথলিকদের কাছে সন্ত থমাস মুর নামে পরিচিত)[১][২] (৭ ফেব্রুয়ারি ১৪৭৮- ৬ জুলাই ১৫৫৩) ছিলেন একজন ইংরেজ আইনজ্ঞ, সমাজ দার্শনিক, লেখক, কূটনীতিক ও রেনেসাঁ যুগের একজন মানবতাবাদী। তিনি ১৫২৯ সাল থেকে ১৬ মে ১৫৩২ পর্যন্ত ইংল্যান্ডের রাজা হেনরি অষ্টম এবং লর্ড চ্যান্সেলরের কাউন্সিলর হিসেবে কর্মরত ছিলেন।[৩] থমাস মুর প্রটেস্ট্যান্ট সংস্কারের সম্পূর্ন বিপক্ষে ছিলেন এবং সংস্কারের পক্ষে যারা ধর্মতত্ত্ব দিয়েছিলেন বিশেষ করে মার্টিন লুথার ও উইলিয়াম টিন্ডেলের মত লেখকদের বই তিনি পুরিয়ে ফেলেছিলেন। স্যার থমাস মুর একটি কাল্পনিক দ্বীপরাষ্ট্রের আদর্শ রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক অবস্থা নিয়ে তিনি একটি বই লিখেন যার নাম "ইউটোপিয়া"। বইটি প্রকাশিত হয় ১৫১৬ সালে। পরবর্তীতে থমাস মুর ক্যাথলিক চার্চ থেকে রাজার কর্তৃত্ব অপসারণের বিপক্ষে ছিলেন এবং একই সাথে ক্যাথরিন অফ এরাগনকে বিয়ে করার জন্য ও পোপের কর্তৃত্ব স্বীকার করার জন্য চার্চ অফ ইংল্যান্ডের সুপ্রিম হেড হিসেবে রাজার অবস্থানের বিরোধিতা করেছিলেন। পরবর্তীতে সাজানো সাক্ষ্যের মাধ্যমে তাকে দোষী সাব্যস্ত করা হয় এবং শিরোচ্ছেদের মাধ্যমে তার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়।

স্যার থমাস মুর
Hans Holbein, the Younger - Sir Thomas More - Google Art Project.jpg
লর্ড চ্যান্সেলর
কাজের মেয়াদ
অক্টোবর ১৫২৯ – May 1532
সার্বভৌম শাসকহেনরি অষ্টম
পূর্বসূরীথমাস উলসি
উত্তরসূরীথমাস আডলি
চ্যান্সেলর অফ দি ডাচ অফ ল্যানসেস্টার
কাজের মেয়াদ
৩১ ডিসেম্বর ১৫২৫ – ৩ নভেম্বর ১৫২৯
সার্বভৌম শাসকহেনরি অষ্টম
পূর্বসূরীরিচার্ড উইংফিল্ড
উত্তরসূরীউইলিয়াম ফিটজউইলিয়াম
স্পিকার অফ দি হাউস অফ কমন্স
কাজের মেয়াদ
১৬ এপ্রিল ১৫২৩ – ১৩ আগস্ট ১৫২৩
সার্বভৌম শাসকহেনরি অষ্টম
পূর্বসূরীথমাস নেভেলি
উত্তরসূরীথমাস আডলি
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম৭ ফেব্রুয়ারি ১৪৭৮
লন্ডন,
যুক্তরাজ্য
মৃত্যু৬ জুলাই ১৫৩৫(1535-07-06) (বয়স ৫৭)
টাউন হিল,
লন্ডন
যুক্তরাজ্য
প্রাক্তন শিক্ষার্থীঅক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়
লিংকন্স ইন
ধর্মরোমান ক্যাথলিক
স্বাক্ষর

রচনাবলীসম্পাদনা

মুর লিখেছিলেন ল্যাটিন ও ইংরেজি ভাষায়। তার লিখিত বইগুলো হচ্ছে,

  • লাইফ অব জন পিকাস, আনু. ১৫০৬,
  • হিস্ট্রি অব কিং রিচার্ড থ্রি,
  • ইউটোপিয়া, ১৫১৬,
  • রেসপন্সিও এড লুথেরাম, ১৫২৩,
  • এপিস্টোলা এড পোমের‍্যানাম, ১৫২৬,
  • ফোর লাস্ট থিংস, ১৫২২,
  • টিন্ডলস আযান্সার, ১৫৩২-৩৩
  • এ ডায়ালগ কনসারনিং হেরেসিস, ১৫৩৩,
  • অ্যাাপোলজি, ১৫৩৩,
  • ডেবেলাসিওন, ১৫৩৩,
  • এ ডায়ালস অব কমফোর্ট এগেইনস্ট ট্রাইবুলেশন[৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. St. Thomas More, 1478–1535 at Savior.org
  2. Homily at the Canonization of St. Thomas More at The Center for Thomas More Studies at the University of Dallas, 2010, citing text "Recorded in The Tablet, June 1, 1935, pp. 694–695"
  3. Linder, Douglas O. The Trial of Sir Thomas More: A Chronology at University Of Missouri-Kansas City (UMKC) School Of Law
  4. টমাস মোর, ইউটোপিয়া, মোহাম্মদ দরবেশ আলী খান অনূদিত, বাংলা একাডেমী, ঢাকা, জুন ১৯৮১, পৃষ্ঠা-৬-৭

বহিঃসংযোগসম্পাদনা