ভিভান্তা বাই তাজ-কোন্নেমারা, চেন্নাই হলো চেন্নাই মহানগরীতে অবস্থিত একটি পাঁচ তারকা হোটেল।[১] এটি চেন্নাইয়ের একটি অন্যতম ইতিহ্যবাহী হোটেল তথা সবচেয়ে পুরাতন হোটেল।[২] এটি তাজ গ্রুপের হোটেল ব্যবসার অংশ হিসাবে পরিগণিত।

তাজ কন্নেমারা
Hotel Taj Connemara, Chennai, India.jpg
২০০৭ সালে হোটেলটির একটি চিত্র
হোটেল চেইনতাজ হোটেলস্
সাধারণ তথ্য
অবস্থানচেন্নাই, ভারত
ঠিকানা২ নং, বিনি রোড, আন্না সালাই রাস্তার পাশে
চেন্নাই, তামিল নাড়ু ৬০০ ০০২
স্থানাঙ্ক১৩°০৩′৪৬″ উত্তর ৮০°১৫′৪১″ পূর্ব / ১৩.০৬২৮০৯° উত্তর ৮০.২৬১৫০৮° পূর্ব / 13.062809; 80.261508
কার্যারম্ভ১৮৫৪ (ইম্পেরিয়াল হোটেল রূপে)
ব্যবস্থাপনাতাজ হোটেলস্
অন্যান্য তথ্য
কক্ষ সংখ্যা১৪৭
সংকলনের সংখ্যা
রেস্তঁরার সংখ্যা
ওয়েবসাইট
https://www.tajhotels.com/en-in/taj/taj-connemara-chennai/

ইতিহাসসম্পাদনা

তাজ কোন্নেমারা হোটেলটি মূলত ১৮৫৪ সালে প্রথমে ত্রিপোলিকেন রাথিনাভ্যালী মুদালিয়ার মালিকানায় হোটেল ইম্পেরিয়াল হিসাবে গড়ে উঠেছিল, পরবর্তিতে যখন তিনি অন্য মুদালিয়া ভ্রাতৃদ্বয়ের নিকট তা ভাড়া হিসাবে প্রদান করেন তখন এটাকে তারা আলবেনি নামে পুনঃনামকরণ করেন, এবং ১৮৯০[৩] সালে এটা কোন্নেমারা নামে পুনঃপ্রতিষ্ঠা লাভ করে, পরবর্তিতে ১৮৮১-১৮৮৬ সালে দায়িত্বে থাকা তাৎকালীন মাদ্রাজ গভর্নর, রবার্ট ব্রুক, আয়ারল্যান্ড [৪] এর একটি কাউন্টি ব্যারন অব কোন্নেমারা, এর নামানুসারে এটির নামকরণ করেন এবং পরে এটি একটি স্প্যান্সার্স হোটেলে পরিনত হয়।১৮৯১ সালে, ইউজিন ওয়াকসট , যিনি কিনা স্প্যান্সার্স এর মালিক , তিনি আন্না সার্কেলে তৎকালীন একটি ছোট দোকানের সন্নিকটে থাকা এই হোটেলটিকে এবং এটার আশেপাশের নয় একর জায়গা কিনে নেন একটি বিশাল শোরুম দেবার জন্য। ওয়াকসট চেয়েছিলেন স্পেন্সারদের মুখ উজ্জল করতে, সেজন্য তিনি এশিয়ার সর্ববৃহত মুদি দোকান প্রস্তুত করেছিলেন।১৯৩০ সালে জেমস স্টিভান,যিনি স্প্যান্সার পরিচালক ছিলেন, তিনি হোটেলটিকে আধুনিকরনের কাজ হাতে নেন যা ১৯৩৪ সালে শুরু হয় এবং যার আধুনিকরনের কাজ সমাপ্ত হয় ১৯৩৭ [৫] সালে। এটা যখন ১৯৩৭ সালে পুনরায় চালু হয় তখন এটা আর্ট ডেকো রূপ ধারণ করে। ১৯৭৪ সালে এর টাউয়ার ব্লক সমূহ এবং আনুসাংগিক পুল সমূহের নকশা করেছিলেন নকশাবিদ জেফ্রি বায়া। ১৯৮৪ সালে , তাজ ব্যবসায়িক গোষ্ঠী হোটেলটিকে পুরোপুরি অধিগ্র্রহন করে নেয়।২০০৮ সালে, ইতিহাসবিদ এস. মুথিয়া এই হোটেলটির ইতিহ্য নিয়ে একটি বই লেখেন, এ ট্রেডিসন অব ম্রাদাজ দেট ইস চেন্নাই- দি তাজ কোন্নমারা[২], যেখানে ১৮৮০ সাল হতে হোটেলটিকে নিয়ে বিজ্ঞাপন করা শুরু করেন যা তখন হোটলটিকে, দি ইম্পেরিয়াল হোটেল নামে পরিচিত করেছিল, যার অঙ্গিকার ছিল “ সুবিশাল যায়গাতে .. শীতল এবং পরিপাটি পরিবেশে সকল ধরনের সুবিধা সংবলিত” এবং “ মেসার্স ম্যাকডোয়েল এন্ড কোঃ এর নামকরা স্থান থেকে আনা মদ নিয়ে”। বইটিতে পুরাতন মাদ্রাজ শহরের সব হোটেল এবং ১৯৩৯ [৫] সাল থেকে গড়ে উঠা হোটেল ট্যারিফ সংলগ্ন রাস্তা ঘাট, দালান, স্থাপনা দুর্লভ ছবি সংবলিত। মুথিয়ার মতে ব্রিটিশরা কোন্নেমারাক বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ হোটেল হিসাবে পরিগণিত করতো।

২০১০ সালের সেপ্টেম্বর হতে হোটেলটির নাম পুনঃনামকরণ করে ভিভিয়ান বাই তাজ-কোন্নেমারা, চেন্নাই দেয়া হয়।

অবস্থানসম্পাদনা

তাজ কোন্নেমারা হোলেটটি কাউম নদীর পূর্ব তীরে বিনি রোডে অবস্থিত, যা কিনা চেন্নাই এর অন্যতম সেরা দালান হিসাবে পরিচিত।

সুবিধাবলিসম্পাদনা

তাজ কোন্নেমারাতে সর্বমোট ১৫০ টি রুম আছে, যার ভেতরে ১৪১ টি ডাবল রুম এবং ৯ ট সুইট আছে। হোটেলটিতে ৫ টি বৈঠক কামরা আছে যার মধ্যে একটি বল রুম আছে যেখানে ৪০০ জন পর্যন্ত মানুষ সিনেমা হলের মতো করে বসতে পরে এবং ৬০০ জন পর্যন্ত লোক চা চক্রে বসতে পারে।হোটেলের কোন্ফারেন্স রুমে ৩০ জন লোক সিনেমা দেখার মতো করে বসতে পারেন। হোটেলের রেস্টুরেন্ট সমূহতে রয়েছে বারান্দ্রা- ২৪ ঘণ্টা খোলা কফি সপ- যেখানে ভারতীয়, উপমহাদেশীয়, চাইনিজ এবং থাই খাবার পরিবেশন করা হয়, ডিস্টিলে-পরিবেশন করা হয় উত্তেজক ককটেইল, স্পিরিট ,অয়াইন, বিয়ার এবং হালকা স্ন্যাক্স।‌ রেইন্ট্রি গাছ পরিবেষ্টিত, খোলা আকাশের নিচে রেস্তোরাটিতে প্রতি রাতে তামিলনাড়ুর দক্ষীন ভারতীর সংস্কিতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করা হয় এবং লাউন্জে গ্রীল- মহাদেশীয় লাঞ্চ এবং ডিনার পরিবেশন করা হয়, সাথে থাকে একটি বিশেষ এক্সিকিউটিভ লাঞ্চ।

সাজসজ্জা উন্নয়নসম্পাদনা

২০০৪ সালে তাজ ব্যবসায়িক গোষ্ঠী এই হোটেলটির ৬৫ টি কামরা নতুন ভাবে সাজায়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Deluxe - India Hotels" (PDF)। Worldwide Tours। ২০১৬-০৩-০৩ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৮-১৭ 
  2. "Taj Connemara proud symbol of our tradition"The Hindu। Chennai: The Hindu। ২৬ আগস্ট ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৮-১৭ 
  3. "About Taj Connemara Hotel"। cleartrip.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৮-১৭ 
  4. Sitalakshmi, K. R. (৫ আগস্ট ২০০৬)। "Art Deco buildings in Chennai"The Hindu। Chennai: The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৮-১৭ 
  5. "Do Chennai's art deco buildings have a future?"Madras Musings। ১–১৫ জুলাই ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৮-১৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা