ডিপথেরিয়া মানবদেহের শ্বসনতন্ত্রের ব্যাক্টেরিয়া ঘঠিত একটি রোগ। করনিব্যাক্টেরিয়াম ডিপথেরি (Corynebacterium diphtheriae) নামাক ব্যাক্টেরিয়া এই রোগের জন্য দায়ী। এ রোগে সাধারণত দেহের গলা আক্রান্ত হয়।

ডিপথেরিয়া আক্রান্তের ত্বক।

করনিব্যাক্টেরিয়াম ডিপথেরি (Corynebacterium diphtheriae)সম্পাদনা

সাধারণত এই ব্যাক্টেরিয়া মানুষের শ্বসনতন্ত্রের উপরিভাগের সাধারণ বাসিন্দা (Normal flora)। এরা গ্রাম পজিটিভ (Gram positive), দন্ডাকার (Bacilli), এন্ডোস্পোর (Endospore) উৎপাদনকারী ব্যাক্টেরিয়া

ডিপথেরিয়া টক্সিনসম্পাদনা

ডিপথেরিয়া একটি এবি টক্সিন। এতে একটি এ (A) ও একটি বি (B) অংশ থাকে। এটি মানুষের জানা ব্যাক্টেরিয়ার সবচেয়ে শক্তিশালী টক্সিন। একটি মাত্র অণু একটি সম্পূর্ণ কোষকে মেরে ফেলতে পারে। এটি পানিবাহিত রোগ।

প্রতিকারসম্পাদনা

ডিপথেরিয়ার টক্সিনের বিরুদ্ধে অতন্ত্য শক্তিশালী ভ্যাক্সিন আবিষ্কার হয়েছে। শিশুকে যে ডিপিটি (DPT Vaccine) ভ্যাক্সিন (ডিপথেরিয়া পারটুসিস (Pertusis), টিটেনাস (Tetanus)) দেওয়া হয় তাকে মানুষ সারা জীবনের জন্য ডিপথেরিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ ক্ষমতা লাভ করে।