প্রধান মেনু খুলুন

ডায়ান ল্যাড

মার্কিন অভিনেত্রী

ডায়ান ল্যাড (ইংরেজি: Diane Ladd; জন্ম: ২৯শে নভেম্বর ১৯৩৫) হলেন একজন মার্কিন অভিনেত্রী, চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক ও লেখিকা। তিনি ১২০-এর অধিক চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন নাটকে অভিনয় করেছেন। ১৯৭৪ সালে অ্যালিস ডাজন্ট লিভ হিয়ার অ্যানিমোর চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্বচরিত্রে অভিনেতা বিভাগে বাফটা পুরস্কার অর্জন করেন এবং শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। তিনি ১৯৮০-৮১ সালে প্রচারিত অ্যালিস টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয় করে সেরা টিভি পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার অর্জন করেন। এছাড়া তিনি ওয়াইল্ড অ্যাট হার্ট (১৯৯০) ও র‍্যাম্বলিং (১৯৯১) চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য আরও দুটি একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। তার অভিনীত অন্যান্য উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র হল চায়নাটাউন (১৯৭৪), ঘোস্টস অব মিসিসিপি (১৯৯৬), প্রাইমারি কালারস (১৯৯৮), টুয়েন্টি এইট ডেজ (২০০০), ও আমেরিকান কাউস্লিপ (২০০৮)। ডায়ানের প্রথম স্বামী ব্রুস ডার্ন ও তার কন্যা লরা ডার্ন একজন অভিনেত্রী।[১]

ডায়ান ল্যাড
স্থানীয় নাম
Diane Ladd
জন্ম
রোজ ডায়ান ল্যাডনার

(1935-11-29) ২৯ নভেম্বর ১৯৩৫ (বয়স ৮৩)
জাতীয়তামার্কিন
পেশাঅভিনেত্রী, পরিচালক, প্রযোজক, লেখিকা
কার্যকাল১৯৫৮-বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীব্রুস ডার্ন (বি. ১৯৬০; বিচ্ছেদ. ১৯৬৯)
উইলিয়াম এ শিয়া জুনিয়র (বি. ১৯৬৯; বিচ্ছেদ. ১৯৭৬)
রবার্ট চার্লস হান্টার (বি. ১৯৯৯)
সন্তান২ (লরা ডার্ন সহ)

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

ল্যাড ১৯৩৫ সালের ২৯শে নভেম্বর মিসিসিপির মেরিডিয়ানে জন্মগ্রহণ করেন। তার জন্মনাম রোজ ডায়ান ল্যাডনার। তার পিতা প্রেস্টন পল ল্যাডনার (১৯০৫-১৯৮২) ছিলেন একজন ভেটেরিনারিয়ান, যিনি পোল্ট্রি ও গবাদিপশুর জন্য ব্যবহৃত মালামাল বিক্রি করতেন। তার মাতা ম্যারি বের্নাডেত্তে (জন্ম: অ্যান্ডারসন, ১৯১২-২০০২) ছিলেন গৃহিণী ও অভিনেত্রী। ল্যাডের নাট্যকার টেনেসি উইলিয়ামস ও কবি সিডনি ল্যানিয়ারদের সাথে সম্পর্ক রয়েছে। ল্যাড তার মায়ের ক্যাথলিক বিশ্বাস অনুসারে বেড়ে ওঠেন।[২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. হোয়াইট, চেলসি (৫ মে ২০১৪)। "Laura Dern kisses her mom Diane Ladd goodbye after mother daughter day"ডেইলি মেইল। সংগ্রহের তারিখ ৫ জুন ২০১৮ 
  2. হোগ, ওয়ারেন (২৩ সেপ্টেম্বর ১৯৭৬)। "Diane Ladd Savors 'Top of World'"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৫ জুন ২০১৮ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা