জেনারেল অফিসার হচ্ছে সামরিক বাহিনীর একটি উচ্চ পদবী ধরন। মূলত জেনারেল অফিসার সেনাবাহিনীতে ব্যবহৃত হলেও কিছু দেশের বিমান বাহিনী, মেরিন কোর এবং নৌ পদাতিক শাখায় ব্যবহৃত হয়। সাধারণত জেনারেল অফিসার ধরা হয় কর্নেল পদবীর পরের পদবীধারী কর্মকর্তাদেরকে এবং জেনারেল অফিসারদেরকে শুধু 'জেনারেল'ও বলা হয়।

প্রচলিত ইংরেজিভাষী সামরিক পদমর্যাদা
নৌবাহিনী সৈন্যবাহিনী বিমানবাহিনী
কর্মকর্তারা
অ্যাডমিরাল অফ দ্য ফ্লিট মার্শাল  /
ফিল্ড মার্শাল
মার্শাল
অফ দ্য এয়ারফোর্স
অ্যাডমিরাল জেনারেল এয়ার মার্শাল
কমোডর ব্রিগেডিয়ার এয়ার কমোডর
ক্যাপ্টেন কর্নেল গ্রুপ ক্যাপ্টেন
কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কর্নেল উইং কমান্ডার
লেফটেন্যান্ট
কমান্ডার
মেজর /
কমান্ড্যান্ট
স্কোয়াড্রন লিডার
লেফটেন্যান্ট ক্যাপ্টেন ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট
সাব-লেফটেন্যান্ট লেফটেন্যান্ট ফ্লাইং অফিসার
এনসাইন সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট পাইলট অফিসার
মিডশিপম্যান অফিসার ক্যাডেট অফিসার ক্যাডেট
নৌকর্মী, সৈনিক এবং বিমানকর্মী
ওয়ারেন্ট অফিসার সার্জেন্ট মেজর ওয়ারেন্ট অফিসার
পেটি অফিসার সার্জেন্ট সার্জেন্ট
লিডিং সিম্যান কর্পোরাল কর্পোরাল
সিম্যান প্রাইভেট / সৈনিক এয়ারক্রাফটম্যান
যুক্তরাষ্ট্র সেনাবাহিনীর পূর্ণ জেনারেল জর্জ এস প্যাটন, যার পদবীচিহ্নতে (কাঁধে, শার্টের কলারে এবং হেলমেটে) চার তারকা দেখা যাচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্র সামরিক বাহিনীতে পূর্ণ জেনারেলরা চার তারকা জেনারেল হিসেবেও বিবেচিত হন কারণ তাদের পদবীচিহ্নতে তারকা আছে

জেনারেল শব্দটা দুই ভাবে ব্যবহৃত হয়ঃ একভাবে ব্যবহৃত হয় এভাবে যে, 'জেনারেল' শব্দটি যে সকল পদবীতে অনুসর্গ হিসেবে আছে (যেমনঃ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল) সেটাকে সংক্ষেপে জেনারেল বলা হয় এবং শুধু জেনারেল নামের একটি পদ আছে যেটা সাধারণত পৃথিবীর প্রতিটি দেশের সর্বোচ্চ সামরিক পদবী যেটাকে পূর্ণ জেনারেলও বলা হয়। ষোড়শ শতাব্দীতে ইংরেজ সেনাবাহিনীতে 'ক্যাপ্টেন জেনারেল' নামের একটি পদবী ছিলো যেটা ছিলো তৎকালীন ইংরেজ সামরিক বাহিনীর সর্বোচ্চ পদ, এই পদবীটি সময়ের বিবর্তনে বিলুপ্ত হয়ে যায়।

সকল জেনারেল অফিসার পদ সমূহ সম্পাদনা

জেনারেল অফিসার সাধারণত কর্নেল পদবীর উপরের কর্মকর্তারাই যারা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদবীধারী হন, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদবীর নিচের পদ কর্নেল, তার নিচের পদবী লেফটেন্যান্ট কর্নেল এবং তার নিচের পদবী মেজর এসকল কর্মকর্তাদেরকে বলা হয় ফিল্ড অফিসার বা ফিল্ড গ্রেড অফিসার। এ সকল পদবীর নিচের কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন, তার নিচের পদবী লেফটেন্যান্ট, এবং সর্ব কনিষ্ঠ কর্মকর্তার পদবী সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট কোম্পানি গ্রেড অফিসার হিসেবে বিবেচিত।

সাধারণ পদ্ধতি সমূহ সম্পাদনা

জেনারেল র‍্যাংক সমূহ ব্যবহারের দুটি সাধারণ পদ্ধতি বিদ্যমান।

প্রথম পদ্ধতি, যুক্তরাজ্যে ব্যবহৃত হতো, যা পরিণামে কমনওয়েলথমার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ছড়িয়ে পরেছে। পদ্ধতিটি নির্দিষ্টভাবে ব্রিটেন হতে উৎপন্ন নয়, এবং এই পদ্ধতিটির বিভিন্ন রূপ একসময় সমগ্র ইউরোপ জুড়েই ব্যবহৃত হতো।

অন্যটি ফরাসি বিপ্লব হতে উৎপন্ন হয়, যেখানে জেনারেল পদসমূহের নাম তারা যেসকল ইউনিটকে (তাত্ত্বিকভাবে) নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাদের নামানুসারে দেওয়া হতো।

প্রাচীন ইউরোপীয় পদ্ধতি

ফিল্ড মার্শাল
কর্নেল জেনারেল
জেনারেল
লেফটেনেন্ট জেনারেল
মেজর জেনারেল
ব্রিগেডিয়ার (জেনারেল)

এই পদ্ধতি পাঁচটি র‍্যাংক ব্যবহার করে। কিছু দেশে (যেমন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদটি ব্যবহৃত হয়, এবং কিছু দেশে (যেমন জার্মানি) কর্নেল জেনারেল পদটি ব্যবহৃত হতো, কিন্তু উভয় পদটি সাধরনতঃ একই দেশে ব্যবহৃত হয় না। (বি.দ্র. বেশিরভাগ দেশই বাঁকা ভাবে লেখা পদগুলোর (কর্নেল জেনারেল এবং ব্রিগেডিয়ার জেনারেল) যে কোনো একটিকে বাদ দেয়।)

কিছু রাষ্ট্রে (ব্রিটেনে এবং বিশেষত কমনওয়েলথভূক্ত রাষ্ট্রে), ব্রিগেডিয়ার জেনারেলের সমমর্যাদার পদ ব্রিগেডিয়ার, যা ঐ সকল বাহিনীতে জেনারেল অফিসার হিসেবে বিবেচিত হয় না। যদিও তুলনামূলক বিচারে ব্রিগেডিয়ার পদটি সবসময় ব্রিগেডিয়ার জেনারেলের সমান পদবী হিসেবে গণ্য হয়।

ফরাসি (বিপ্লবী) পদ্ধতি

মার্শাল
আর্মি জেনারেল
কোর জেনারেল
ডিভিশনাল জেনারেল
ব্রিগেডিয়ার জেনারেল

নির্দিষ্ট জেনারেল পদ সম্পাদনা

দেশ ভিত্তিক জেনারেল পদ সম্পাদনা

জেনারেল সমমর্যাদার পদ সমূহ সম্পাদনা

অন্যান্য জেনারেল পদ সমূহ সম্পাদনা

বহিঃসংযোগ সম্পাদনা