জুলিয়া মর্লে

ব্রিটিশ ব্যবসায়ী এবং মডেল

জুলিয়া এভলিন মর্লে (জন্ম ২৫শে অক্টোবর ১৯৩৯) একজন ব্রিটিশ ব্যবসায়ী, দাতব্য কর্মী এবং প্রাক্তন মডেল। তিনি মিস ওয়ার্ল্ড সংস্থার সভাপতি, যে সংস্থা বার্ষিক মিস ওয়ার্ল্ড এবং দ্বিবার্ষিক মিস্টার ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতা পরিচালনা করে।[১] তিনি মিস ওয়ার্ল্ডের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত এরিক মর্লের স্ত্রী, যিনি ১৯৫১ সালের প্রথম সৌন্দর্য প্রতিযোগিতা উপস্থাপনা দিয়ে শুরু করেছিলেন এবং ২০০০ সালে তাঁর মৃত্যুর আগে পর্যন্ত এটি সংগঠিত করে গেছেন।

জুলিয়া মর্লে
Julia Morley with Tatiana Kucharova.jpg
জুলিয়া মর্লে (ডানদিকে) এবং তাতানা কুচারোভা মিস ওয়ার্ল্ড ২০০৭ অনুষ্ঠানে
জন্ম
জুলিয়া এভলিন প্রিচার্ড

(1939-10-25) ২৫ অক্টোবর ১৯৩৯ (বয়স ৮০)
লন্ডন, ইংল্যান্ড
জাতীয়তাব্রিটিশ
পেশা
  • মিস ওয়ার্ল্ড সংস্থার সভাপতি
  • ভ্যারাইটি ইন্টারন্যাশনালের সভাপতি ২০০৯-২০১১
দাম্পত্য সঙ্গীএরিক মর্লে (বি. ১৯৬০২০০০)

প্রারম্ভিক এবং কর্মজীবনসম্পাদনা

১৯৩৯ সালের ২৫শে অক্টোবর জুলিয়া লন্ডনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। জন্মের সময় তাঁর নাম ছিল জুলিয়া প্রিচার্ড

যখন তিনি মডেল হিসাবে কাজ করেছিলেন তখন একদিন লিডসের একটি নৃত্য হলে মক্কা নৃত্যের পরিচালক এরিক মর্লের সাথে তাঁর দেখা হয়েছিল। এই দম্পতি ১৯৬০ সালে বিবাহ করেছিলেন।[২] ২০০০ সালে তাঁর স্বামী মারা যাওয়ার পরে তিনি মিস ওয়ার্ল্ড সংস্থার সভাপতি নির্বাচিত হন।[৩]

মিস ওয়ার্ল্ড সংস্থার সভাপতি হিসাবে তিনি "বিউটি উইথ এ পারপাস" (একটি উদ্দেশ্যের সঙ্গে সৌন্দর্য) প্রকল্প চালু করেছিলেন, যে প্রকল্প মারফৎ অসুস্থ ও সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সহায়তায় অর্থ সংগ্রহ করা হত।[৪][৫] ২০০৯ সালে, মর্লে মিস ওয়ার্ল্ড ফেস্টিভালের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি আন্তর্জাতিক শিশুদের তহবিল বৈচিত্র্য চালু করার জন্য ব্যবহার করেছিলেন। একটি দাতব্য নৈশ ভোজ হয়েছিল যেখানে হাইতিতে পুষ্টি, শিক্ষামূলক এবং চিকিৎসা প্রকল্পের উদ্দেশ্যে ৪০০,০০০ ডলারেরও বেশি অর্থ সংগৃহিত হয়েছিল। [৬] তাঁর ‘শিশুদের বাঁচাও’ প্রচারের জন্য তাঁকে প্রিয়দর্শিনী পুরস্কার দেওয়া হয়েছিল।[৭] ২০১৬ সালে, মর্লে ভ্যারাইটি হিউম্যানিটারিয়ান পুরস্কার পেয়েছিলেন।[৮] ২০১৩ সালে, মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৩ খেতাবধারী মেগান ইয়াংয়ের সাথে হাইতি ভ্রমনে গিয়ে, একটি অনাথ আশ্রম পরিদর্শন করার সময় পড়ে গিয়ে মর্লে একটি গুরুতর দুর্ঘটনার শিকার হয়েছিলেন। ইয়াংয়ের সামান্য আঘাত লেগেছিল, কিন্তু মর্লের নিতম্বের অস্থি ভেঙ্গে যায়।[৯]

পুরস্কারসম্পাদনা

জার্সির চ্যানেল দ্বীপে, ২০১৬ সালের ভ্যারাইটি আন্তর্জাতিক বিশ্ব সম্মেলনে, এক তারকা খচিত অনুষ্ঠানে, আজীবন কর্মের স্বীকৃতি হিসেবে, মিস ওয়ার্ল্ড সংস্থার সিইও জুলিয়া মর্লেকে ২০১৬ ভ্যারাইটি হিউম্যানিটারিয়ান পুরস্কার দেওয়া হয়।

একটি আন্তর্জাতিক পুরস্কার অনুষ্ঠানে জুলিয়া মর্লেকে (মিস ওয়ার্ল্ড সংস্থার সিইও) তাঁর ‘শিশুদের বাঁচাও’ প্রচারের জন্য একটি পুরস্কার দেওয়া হয়েছিল। [১০]

বিতর্কসম্পাদনা

জুলিয়া মর্লে তাঁর মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতা নিয়ে, ক্রুদ্ধ নারীবাদীদের আক্রোশের শিকার হতে হয়েছিলেন। তিনি বলেছেন, “বর্ণবাদ অর্থাৎ কৃষ্ণাঙ্গ মহিলাদের প্রবেশ নিষিদ্ধ ছিল এবং তাদের জানানো হয়েছিল মিস ওয়ার্ল্ডটি কেবল সাদা মহিলাদের জন্য একটি প্রতিযোগিতা। আমি ভেবেছিলাম এটি অপমানজনক এবং অগ্রহণযোগ্য। আমরা সবাইকে অন্তর্ভুক্ত করতে চেয়েছিলাম-এটাই ছিল আমাদের নিয়ম। তাই আমি বলেছিলাম তাদের মেয়েকে অবশ্যই পাঠাতে হবে।” তিনি বর্ণবাদের সম্মুখীন হয়ে ছিলেন। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা যাতে জাতিবিদ্বেষের শিকার না হয়ে একজন কালো প্রতিযোগীকে প্রেরণ করতে পারে তা নিশ্চিত করেছিলেন তিনি।

৮০ বছর বয়সী জুলিয়া মর্লে, এখন চলচ্চিত্রে দুর্ব্যবহারের ঘটনা নিয়ে আবার আলোচনায় এসেছেন, #আমিও (#মিটু) প্রচারে, ১৯৭০ সালে লন্ডনের অ্যালবার্ট হলে, মহিলাদের প্রতি দুর্ব্যবহারের জঘন্য ঘটনা প্রকাশিত হয়।[১১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Mister World is back!" 
  2. "Obituary: Eric Morley", The Telegraph, 10 November 2000. Retrieved 6 October 2013
  3. "Miss World 2013: "Contest Empowers Women And Gives Them A Voice" Says Chair Julia Morley", Huffington Post, 28 September 2013. Retrieved 6 October 2013
  4. "Miss World charity auction"talkvietnam.com। ২৬ অক্টো ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ১৪ মে ২০১৩ 
  5. "EFI Donates P1M To MWP"esquire.com। ২ অক্টো ২০১২। ২৪ ডিসেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ মে ২০১৩ 
  6. "Miss World 2009 Charity Dinner"Beauty With A Purpose। ৯ নভে ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১৪ মে ২০১৩ 
  7. Behrawala, Krutika (২১ সেপ্টেম্বর ২০১৪)। "Chopra and Julia Morley honoured with Priyadarshni Academy's Global Awards 2014 inUmbai"Times of India 
  8. "Miss World CEO Julia Morley felicitated with Humanitarian Award"Indiatimes। ১ মে ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১১ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  9. "Julia Morley"। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০২০ 
  10. "Miss World CEO Julia Morley felicitated with a Humanitarian Award"। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০২০ 
  11. "True story behind Miss World boss who tackled apartheid but..."। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০২০ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা