কোন অক্ষের চারদিকে ঘূর্ণায়মান কোন বস্তুর ওপর যে টর্ক প্রয়োগ করলে তাতে একক কৌণিক ত্বরণের সৃষ্টি হয় তাকে ওই অক্ষের সাপেক্ষে তার জড়তার ভ্রামক বলে।

জড়তার ভ্রামক
Маховик.jpg
ঘূর্ণন গতি মসৃণ করার জন্য ফ্লাইহুইলে অনেক বেশি জড়তার ভ্রামক থাকে। এই উদাহরণটি রাশিয়ার একটি যাদুঘরে রয়েছে।
সাধারণ প্রতীক
I
এসআই এককkg m2
অন্যান্য একক
lbf·ft·s2
অন্যান্য রাশি হতে উৎপত্তি
মাত্রাM L2

একটা বস্তু সরলেরেখায় চললে ভরের যে ভূমিকা , কৌণিক গতিতে চললে জড়তার ভ্রামকের একই ভূমিকা।

জড়তার ভ্রামক,

এখানে, m = বস্তুর ভর এবং k = চক্রগতির ব্যাসার্ধ

মনে কর, দুইটি বস্তুকে তুমি সমান কৌণিক ত্বরণে ঘুরাতে চাও। এখন, দুইটা বস্তুর মধ্যে যে বস্তুকে কৌণিক ত্বরণ দিতে বা ঘুরাতে তোমাকে বেশি কষ্ট করতে হবে বা টর্ক বেশি দিতে হবে সেই বস্তুটির জড়তার ভ্রামক বেশি।

একটি বস্তুকে কোন অক্ষের সাপেক্ষে ঘুরাচ্ছো তার উপরও জড়তার ভ্রামক নির্ভর করে। একটি লম্বা লাঠিকে যদি এর মাঝের অক্ষ বরাবর ঘুরাও তাহলে যে জড়তার ভ্রামক হবে, লাঠিটির একপাশে অক্ষ ধরে নিয়ে ঘুরালে জড়তার ভ্রামক তার থেকে ভিন্ন হবে। সুতরাং, একই বস্তুর বিভিন্ন জড়তার ভ্রামক হতে পারে। কারণ, জড়তার ভ্রামক চক্রগতির ব্যাসার্ধের উপর নির্ভর করে আর চক্রগতির ব্যাসার্ধ নির্ভর করে ঘূর্ণন অক্ষের উপর। ঘূর্ণন অক্ষের পরিবর্তনের সাথে সাথে চক্রগতির ব্যাসার্ধেরও পরিবর্তন হয়ে যায়।

সুষম দন্ডের মধ্যবিন্দু দিয়ে গমনকারী অক্ষের সাপেক্ষে জড়তার ভ্রামক =(ML^2)/12.

যেখানে,M=দন্ডের ভর

L

তথ্যসূত্রসম্পাদনা