কোনো একটি অক্ষের সাপেক্ষে ঘূর্ণনরত একটি বস্তুর ঘূর্ণন গতির পরিবর্তনকে বাধা দেওয়ার প্রয়াস হচ্ছে জড়তার ভ্রামক

একটা বস্তু সরলেরেখায় চললে ভরের যে ভূমিকা , কৌণিক গতিতে চললে জড়তার ভ্রামকের একই ভূমিকা।

জড়তার ভ্রামক , I = MK²

এখানে, M = বস্তুর ভর এবং K = চক্রগতির ব্যাসার্ধ।

মনে কর, দুইটি বস্তুকে তুমি সমান কৌণিক ত্বরণে ঘুরাতে চাও। এখন, দুইটা বস্তুর মধ্যে যে বস্তুকে কৌণিক ত্বরণ দিতে বা ঘুরাতে তোমাকে বেশি কষ্ট করতে হবে বা টর্ক বেশি দিতে হবে সেই বস্তুটির জড়তার ভ্রামক বেশি।

একটি বস্তুকে কোন অক্ষের সাপেক্ষে ঘুরাচ্ছো তার উপরও জড়তার ভ্রামক নির্ভর করে। একটি লম্বা লাঠিকে যদি এর মাঝের অক্ষ বরাবর ঘুরাও তাহলে যে জড়তার ভ্রামক হবে, লাঠিটির একপাশে অক্ষ ধরে নিয়ে ঘুরালে জড়তার ভ্রামক তার থেকে ভিন্ন হবে। সুতরাং, একই বস্তুর বিভিন্ন জড়তার ভ্রামক হতে পারে। কারণ, জড়তার ভ্রামক চক্রগতির ব্যাসার্ধের উপর নির্ভর করে আর চক্রগতির ব্যাসার্ধ নির্ভর করে ঘূর্ণন অক্ষের উপর। ঘূর্ণন অক্ষের পরিবর্তনের সাথে সাথে চক্রগতির ব্যাসার্ধেরও পরিবর্তন হয়ে যায়।