গিলগিট নদী

পাকিস্তানের নদী

গিলগিট নদী পাকিস্তান-এর পাক অধিকৃত কাশ্মির এর গিলগিট-বালটিস্তান প্রদেশের শিনদুর হ্রদ থেকে উৎপন্ন হয়েছে। এর পর নদীটি পার্বত্য পথ অতিক্রম করে গিলগিট শহরে পাশ দিয়ে বাহিত হয়ে সিন্ধু নদ-এ মিলিত হয়েছে।[১][২] নদীটির মোট দৈর্ঘ্য ২৪০ কিলোমিটার (১৫০ মা)।এই নদীটির প্রবাহের সমগ্র অংশই পার্বত্য অঞ্চলে ফলে নদীটি খুবই খরস্রতা।নদীটি সিন্ধু নদএর অন্যতম উপনদী।এই নদী গিলগিট শহরে জলের জোগান দেয়।এই নদীর তীরে অবস্থিত গিলগিট শহরের নাম এই নদী থেকেই নেওয়া হয়েছে।এই নদীটি শীতকালে জমে বরফে ঢেকে যায়।এই সময় নদী পথে চিত্রল ও গিলগিট যুক্ত থাকে।

গিলগিট নদী
Gilgit River, Gilgit.jpg
দেশ পাকিস্তান
অববাহিকার বৈশিষ্ট্য
মোহনাসিন্ধু নদ
ক্রমবৃদ্ধিগিলগিট
প্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্য
দৈর্ঘ্য২৪০ কিলোমিটার (১৫০ মা)
Gilgit River, Gilgit.jpg

প্রবাহ পথসম্পাদনা

গিলগিট নদীটি শানদুর হ্রদ থেকে উৎপন্ন হয়েছে।এইনদী উৎস স্থল থেকে প্রথমে পশ্চিমে প্রবাহিত হয়েছে এর পর এটি দক্ষিণ পশ্চিমে প্রবাহিত হয়েছে।নদীটি হিন্দুকুশ পর্বত,কারাকোরাম পর্বত এর হিমবাহের জলে পুষ্ট।নদিটি উৎপন্ন হয়ে গভীর উপত্যকা ও গিরিখাদ এর মধ্য দিয়ে বাহিত হয়েছে।এই নদীটি গিলগিট শহরে পৌঁছনর আগে হুনজা নদীর সঙ্গে মিলিত হয়েছে।এর পর নদীটি গিলগিট শহর অতিক্রম করে সিন্ধু নদ-এ মিলিত হয়েছে গিলগিত শহরের কাছেই বুনজি নামক স্থানে।নদীটি সিন্ধু নদের অন্যতম উপনদী ও জলের উৎস।এর প্রবাহ পথে বহু ছোটো ছোট পাহিড়ী নদী ও পাহাড়ী ঝরণা যুক্ত হয়েছে।এই গুলিই নদীটির জলের প্রধান উৎস।এই অঞ্চলে নদীটি এক বিশাল জলের সঞ্চয় ও নদী ব্যবস্থা গড়ে তুলেছে।

ব্রিজ বা সেতুসম্পাদনা

 
গিলগিট নদীর উপর একটি সেতু

গিলগিট নদীটি খুবই খরস্রতা ও গভীর উপত্যকা বিশিষ্ট হওয়ায় নদীর দুই পারের সঙ্গে যোগাযোগ খুবই দুর্বল।নদীর দুই পাড়ের মধ্যে যোগাযোগ বাড়ানোর জন্য গিলগিত-বালতিস্তান প্রদেশের প্রশাসন জুটিয়ালে একটি সেতু নির্মাণের পরিকল্পনা নেয়।এর পর এর নির্মাণ শুরু হয় এবং নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নির্মাণ কাজ শেষ হয়।এই সেতুটি আরসিসি ব্রিজ নামে পরিচিত।সেতুটি উদ্ভোদন করেন গিলগিত-বালতিস্তান এর মুখ্যমুন্ত্রী হাফেজুর রহমান।এই সেতু নদীর দুই পাড়ে অবস্থিত জুটিয়াল অঞ্চল ও কারাকোরাম বিশ্ববিদ্যালয়কে যুক্ত করেছে।এটি এই অঞ্চলের মানুষের মধ্যে যোগাযোগ বৃদ্ধি করেছে।[৩]

পোল অনুষ্ঠানসম্পাদনা

এই নদীর উৎস শানদুর হ্রদ গিলগিট ও চিত্রলকে যুক্ত করেছে।এই হ্রদে শীতের সময় জল জমে বরফের আস্তরন পরে।এই বরফের উপর দিয়ে গিলগিটচিত্রলএর মধ্যে যোগাযোগ রক্ষা হয়।শীতকালে চিত্রলগিলগিট এর মধ্যে প্রতি বছর পোল খেলা অনুষ্ঠিত হয়।[৪] এই পোলো খেলা এখানকার মানুষের কাছে এক ঐতিহ্যে পরিনত হয়েছে।এই হ্রদটি ১২০০০ ফুট বা ৩,৭০০ মিটার উচু।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Handy, Norman,। K2, the Savage Mountain : travels in Northern Pakistan। [Place of publication not identified]। আইএসবিএন 978-3-99048-717-4ওসিএলসি 985116029 
  2. History of civilizations of Central Asia.। Dani, Ahmad Hasan., Masson, V. M. (Vadim Mikhaĭlovich), 1929-, Harmatta, J. (János), 1917-2004., Puri, Baij Nath., Etemadi, G. F., Litvinskiĭ, B. A. (Boris Anatolʹevich), Zhang, Guangda, 1931-, Samghabadi, R. Shabani.। Paris: Unesco। ১৯৯২–২০০৫। আইএসবিএন 92-3-102719-0ওসিএলসি 28186754 
  3. "Infrstructure:Bridge over Gilgit River opens"The Express Tribune। সংগ্রহের তারিখ ০৩-১১-২০১৬  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. "Gilgit River।Pakistan360degrees" [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]