খামোশ খউফ কি রাত

খামোশ খউফ কি রাত একটি বলিউড নির্মিত হিন্দি রহস্যকাহিনী মূলক চলচ্চিত্র। এই ছবিটি পরিচালনা করেন অভিনেতা ও পরিচালক দীপক তিজোরি। হলিউডের রহস্য চলচ্চিত্র আইডেন্টিটি'র অনুকরনে এটি নির্মিত।[৩][৪]

খামোশ খউফ কি রাত
খামোশ খউফ কি রাত.jpg
খামোশ খউফ কি রাত চলচ্চিত্রের পোস্টার
পরিচালকদীপক তিজোরি
প্রযোজকদীপক তিজোরী
রাহুল আগরওয়াল
রচয়িতাআদি
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারযতীন ললিত
চিত্রগ্রাহকটমাস জেভিয়ার
সম্পাদকআসিফ খান
প্রযোজনা
কোম্পানি
তিজোরি ফিল্মস
মুক্তি
  • ১৫ এপ্রিল ২০০৫ (2005-04-15) (ভারত)
[২]
দেশভারত
ভাষাহিন্দি

কাহিনীসম্পাদনা

দুটি কাহিনী পাশাপাশি চলেছে এই সিনেমায়। একটি বর্তমানে অপরটি ফ্ল্যাশব্যাকে। সিরিয়াল কিলার মানসকে পরের দিন ফাঁসির সাজা শোনানো হবে। মানস যার চিকিৎসায় ছিল সেই ডাক্তার শ্রীমতি সাক্ষী সাগর হঠাৎ কিছু ভয়েস রেকর্ড উদ্ধার করেন যার দ্বারা তিনি প্রমাণ করতে চান অপরাধী দ্বৈতসত্বার অধিকারী মানসিক রোগী। তিনি এই ফাঁসি বন্ধের জন্যে জরুরী ভিত্তিতে উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ও জজসাহেবকে অনুরোধ করেন। মধ্যরাত্রে এই আলোচনা বসে। অপরদিকে দেখা যায় তীব্র বৃষ্টির রাতে অভিনেত্রী কাশ্মীরাকে নিয়ে গাড়ি চালাচ্ছে তার বডিগার্ড অবিনাশ। রাস্তায় এক মহিলা তার গাড়ীর সামনে এলে মারাত্মক আহত হয়। অবিনাশ তাকে ও তার স্বামী পুত্রকে গাড়িতে করে নিয়ে আসে একটি ছোট্ট মোটেলে। কাশ্মীরা অবিনাশকে বারন করে তাদের সাহায্য করতে কিন্তু অবিনাশ ডাক্তারের সন্ধানে আবার বেরিয়ে যায় ও ব্যর্থ হয়। ফিরে এসে সে নিজেই ক্ষত সেলাই করে আহতের। ইতিমধ্যে ওই মোটেলে একে একে আশ্রয়ের জন্যে এসে জোটে বার ড্যান্সার সোনিয়া, একটি নবদম্পতি, এক খুনী অপরাধী কে নিয়ে পুলিশ ইনস্পেকটর যতীন। মোটেলের একমাত্র কর্মচারী আদি সকলকে নির্দিষ্ট ঘরে পাঠিয়ে দেয়। এবার রহস্যজনক ভাবে খুন হতে থাকে একের পর একজন। বোঝা যায় উপস্থিত কেউ একজন খুন করে চলেছে কিন্তু কে তা বোঝা যায়না। সকলেই একে অপরকে সন্দেহ করে।

অভিনয়সম্পাদনা

  • জুহি চাওলা - ডাঃ সাক্ষী সাগর
  • শিল্পা শেঠী - সোনিয়া
  • রাখি সাওন্ত - কাশ্মীরা
  • মার্কন্ড দেশপান্ডে - মানস
  • অভতার গিল - জজ
  • কেলি দোর্জি - ক্রিমিনাল

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Aspinall, Julie (২০০৭)। Shilpa Shetty - The Biography: The Biography। John Blake Publishing, Limited। পৃষ্ঠা 138। আইএসবিএন 978-1-85782-911-2 
  2. Hindi Cinema Year Book5। Screen World Publication। ২০০৫। [পৃষ্ঠা নম্বর প্রয়োজন]
  3. "Khamoshh - Khauff Ki Raat"expressindia.indianexpress.com। ১৫ এপ্রিল ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুলাই ২০১৭ 
  4. "KHAMOSH KHAUFF KI RAAT (2005)"rottentomatoes.com। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুলাই ২০১৭