ওয়েস্টফেলিয়া শান্তিচুক্তি


ওয়েস্টফেলিয়া শান্তিচুক্তি হল ইউরোপে ধর্ম এবং রাজনীতি নিয়ে ১৬১৮ সাল থেকে শুরু হওয়া যুদ্ধের সমাপ্তির জন্য স্বাক্ষরিত শান্তিচুক্তি। এটি ১৬৪৮ সালের ২৪ অক্টোবর জার্মানির ওয়েস্টফেলিয়া নামক স্থানে স্বাক্ষরিত হয়। ইউরোপে শান্তি প্রতিষ্ঠায় ১৬৪৮ সালে স্বাক্ষরিত এই চুক্তির ফলে ৩০ বছরের যুদ্ধ সমাপ্ত হয়। ওয়েস্টফালিয়ার চুক্তি সম্পাদিত হয়েছিল ইউরোপের বিভিন্ন দেশ অর্থাৎ স্পেন,ফ্রান্স,পর্তুগাল,নেদারল্যান্ডস,ওয়েস্টফালিয়ার,জার্মানি,সুইডেন,রাশিয়া,ইংল্যান্ড,পোল্যান্ডসহ অন্যান্য দেশের মধ্যে। এসব দেশ প্রায় ৩০ বছর (১৬১৮-১৬৪৮) যাবত যুদ্ধে লিপ্ত ছিল। এ যুদ্ধে প্রায় ৮০ লক্ষ সামরিক ও বেসামরিক লোক হতাহত হয়। মূলত যুদ্ধের পরিসমাপ্তি ঘটিয়ে শান্তি স্থাপনই এই চুক্তির উদ্দেশ্য ছিল।

ওয়েস্টফেলিয়া শান্তিচুক্তি
Münster, Historisches Rathaus -- 2014 -- 6855.jpg
ম্যানস্টারের ঐতিহাসিক টাউন হল যেখানে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল
ধরণশান্তি চুক্তি
খসড়া১৬৪৬-১৬৪৮
স্বাক্ষর২৪শে অক্টোবর ১৬৪৮
স্থানপবিত্র রোম সাম্রাজ্য
অংশগ্রহণকারী১০৯

শান্তি প্রতিষ্ঠায় মোট ৩টি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। যথাঃ- ১. পিস অব মুনস্টার (নেদারল্যান্ডস বনাম স্পেন) ২. মুনস্টার চুক্তি (রোমান সাম্রাজ্য বনাম ফ্রান্স) ৩. অসনাব্রুক চুক্তি (রোমান সাম্রাজ্য বনাম সুইডেন)

ফলাফল ১. রাষ্ট্রসমূহ পরস্পরের সার্বভৌমত্বকে স্বীকৃতি প্রদান করে। ২. অপর রাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ না করা। একটি রাষ্ট্র অন্য আরেকটি রাষ্ট্রের রাজনীতি, অর্থনীতি বিষয়ে হস্তক্ষেপ করলে সেটা আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন হিসেবে বিবেচিত হবে। ৩. রাষ্ট্রের আইনগত সম অধিকার প্রতিষ্ঠা। ৪. চিরস্থায়ী, প্রকৃত ও আন্তরিক বন্ধুত্ব ও বৈশ্বিক শান্তির অঙ্গীকার।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা