ওয়ারফারিন

রাসায়নিক যৌগ

স্টেরিওকেমিস্ট্রিসম্পাদনা

ওয়ারফারিনে একটি স্টেরিওসেনটার রয়েছে এবং দুটি এন্যানিয়েইওমেকারদের রয়েছে। এটি একটি রেসমেট, অর্থাৎ 1: 1 মিশ্রণ ( আর ) - এবং ( এস ) - ফর্ম:[১]

ওয়ারফারিন এর এনানসোমার
 
CAS-Nummer: 5543-58-8
 
CAS-Nummer: 5543-57-7

ওয়ারফারিনসম্পাদনা

 
স্টেরিওকেমিস্ট্রি ছাড়া কাঠামোগত সূত্র

ওয়ারফারিন (en:Warfarin) জাতীয় প্রতি-তঞ্চক ইঁদুর মারা বিষ হিসাবে এক সময়ে বহু ব্যবহৃত।

কার্যপ্রণালীসম্পাদনা

ওয়ারফারিন (en:Warfarin) জাতীয় প্রতি-তঞ্চক যা যকৃতে "ভিটামিন K"র কাজে বাধা দেয়, ফলতঃ ইঁদুর রক্ত তঞ্চনের অভাবে দেহাভ্যন্তরীণ রক্তক্ষরণে মারা যায়। সাধারণত খাবারে মিশিয়ে ব্যবহার হয় যাতে ইঁদুর বারবার এসে খায় ও বিষের মারাত্মক মাত্রা অতিক্রান্ত হয়।

উপসর্গ: বিষের জ্বালায় ভীষণ জলপিপাসা পায়।

অসুবিধাসম্পাদনা

প্রথমে ইঁদুর মারার জন্যই বিক্রী হলেও এখন ওয়ারফারিন বিষ হিসাবে ব্যবহারে অসুবিধা:

 
দ্বিতীয় সারির ইঁদুর মারা বিষ Brodifacoum
  1. এখন আরো বেশি কার্যকর ইঁদুর মারা বিষ বাজারে এসে গেছে যেমন দ্বিতীয় সারীর সেঁকো বিষ Brodifacoum (কার্যপদ্ধতি ওয়ারফারিনের মতই)। এটি এখন বিশ্বের সর্বাধিক ব্যবহৃত ইঁদুর মারা বিষ।
  2. প্রতিরোধ (রেজিস্ট্যেন্স) : সাধারণ ইঁদুরদের মধ্যেই কিছ সংখ্যকের মধ্যে বিষক্রিয়া প্রতিরোধী জিন ছিল। ডমিন্যান্ট হলেও জিনটির সক্রিয় অ্যালিলটি আগে দুর্লভ ছিল। কিন্তু বিষ (Warfarin এবং Brodifacoum)ব্যবহারের পর দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে।
  3. ওয়ারফারিন এখন মানুষের ওষুধ- প্রতি-তঞ্চক বড়ি (oral anticoagulant) হিসাবে ব্যবহৃত।

বিষক্রিয়ার চিকিৎসাসম্পাদনা

ভুল করে মানুষ বা পোষ্য প্রাণী ওয়ারফারিন বিষ খেলে চিকিৎসা:

  1. রক্ত প্রদান (blood transfusion)
  2. পরিমিতভাবে ভিটামিন K খাওয়ানো

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Rote Liste Service GmbH (Hrsg.): Rote Liste 2017 – Arzneimittelverzeichnis für Deutschland (einschließlich EU-Zulassungen und bestimmter Medizinprodukte). Rote Liste Service GmbH, Frankfurt/Main, 2017, Aufl. 57, ISBN 978-3-946057-10-9, S. 226.