উপজাতি

এমন জনগোষ্ঠীগুলোকে বুঝায় যারা আলাদা রাষ্ট্র গঠন করতে পারেনি কিন্তু নিজস্ব একটি আলাদা সংস্কৃত

আদিবাসী এমন জনগোষ্ঠীগুলোকে বুঝায় যারা আলাদা রাষ্ট্র গঠন করতে পারেনি কিন্তু নিজস্ব একটি আলাদা সংস্কৃতি গড়ে তুলেতে সমর্থ হয়েছে। মূলত‍ঃ রাষ্ট্রের সাথে সম্পর্কের ভিত্তিতে জাতি বা আদিবাসী নির্দিষ্ট্টকরণ হয়ে থাকে। সত্যি বলতে বাংলাদেশে কোনো উপজাতি নেই। উপজাতি তারাই যারা ভিন্ন ভিন্ন জাতির সংমিশ্রণে তৈরি শংকর জাতি এবং বর্তমানে বৃহত্তসংখ্যক এধরনের মানুষ বসবাস করে।আর সত্যি কথা বলতে উপজাতি শব্দটি একটি বৃহত্তর ক্ষমতাসীন গোষ্ঠীর সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর ওপর চাপিয়ে দেওয়া একটি শব্দ।প্রকৃত পক্ষে নিচে দেওয়া জনগোষ্ঠী গুলোই হচ্ছে আদিবাসী। তাদের রয়েছে নিজস্ব সংস্কৃতি, পোশাক -পরিচ্ছেদ,খাদ্যভ্যাস,ভাষা, নিজস্ব বর্ণমালা ইত্যাদি।মোট কথা হচ্ছে একটি আদিবাসী জনগোষ্ঠী যেসব বৈশিষ্ট্য থাকার কথা তার সব গুলোই নিচের দেওয়া জনগোষ্ঠীদের বৈশিষ্ট্য পাওয়া যায়

মনুমেন্ট ভ্যালিতে নেটিভ আমেরিকান উপজাতির নাভারোর দুর্দান্ত সীল

আদিবাসী বা নৃ-তাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীসমূহ হচ্ছেঃ- মগ, মুরং, মারমা, চাকমা, ত্রিপুরা, হাজং , তঞ্চঙ্গ্যা,বম, লুসাই,চাক ,পানখোয়া, গারো, সাঁওতাল, মণিপুরী ইত্যাদি। উপরোল্লেখিত আদিবাসী গুলোর বসাবাস বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম এবং সমতলের সিলেট, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা জেলায় বসাবাস করে আসছে যুগের পর যুগ ধরে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা