ইংল্যান্ডের রাণী প্রথম মেরি

রাণী প্রথম মেরি (১৮ ফেব্রুয়ারি ১৫১৬ - ১৭ নভেম্বর ১৫৫৮), (মেরি টিউডর নামেও পরিচিত) ১৫৫৩ সালের জুলাই থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত ইংল্যান্ড এবং আয়ারল্যান্ডের রানী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি সবচেয়ে বেশি আলোচিত তার পিতা অষ্টম হেনরির রাজত্বকালে শুরু হওয়া ইংল্যান্ডের ধর্ম সংস্কার আন্দোলনকে পরাভূত করার জন্য নানাবিধ আগ্রাসী পদক্ষেপ গ্রহণ করার কারণে। ইংল্যান্ড এবং আয়ারল্যান্ডে রোমান ক্যাথলিকিজমের পুনঃপ্রতিষ্ঠা ঘটানোর বাসনায় তিনি অসংখ্য প্রটেস্ট্যান্ট খ্রিস্টানকে মৃত্যুদণ্ড প্রদান করেন। তাই প্রটেস্ট্যান্ট প্রতিদ্বন্দ্বীরা নিন্দার্থে তার নামকরণ করেন "ব্লাডি মেরি"।

প্রথম মেরি
Maria Tudor1.jpg
আন্তনিও মর এর চিত্রকর্ম, ১৫৫৪
ইংল্যান্ডের এবং আয়ারল্যান্ডের রাণী (আরও...)
রাজত্বজুলাই ১৫৫৩[১] –
থেকে ১৭ নভেম্বর ১৫৫৮
রাজ্যাভিষেক১ অক্টোবর ১৫৫৩
পূর্বসূরিজেন (বিতর্কিত) অথবা ষষ্ঠ এডওয়ার্ড
উত্তরসূরিপ্রথম এলিজাবেথ
যুগ্ম শাসকফিলিপ
জন্ম১৮ ফেব্রুয়ারি ১৫১৬
প্লাসেন্টিয়ার রাজপ্রাসাদ, গ্রিনউইচ
মৃত্যু১৭ নভেম্বর ১৫৫৮, (৪২ বছর বয়সে)
সেইন্ট জেমসের প্রাসাদ, লন্ডন
সমাধি
দাম্পত্য সঙ্গীস্পেনের রাজা দ্বিতীয় ফিলিপ, (বিবাহ-২৫ জুলাই ১৫৫৪)
রাজবংশটিউডর
পিতারাজা অষ্টম হেনরি
মাতারাণী ক্যাথরিন
ধর্মরোমান ক্যাথলিক
স্বাক্ষরইংল্যান্ডের রাণী প্রথম মেরি স্বাক্ষর

প্রথম স্ত্রীর ক্যাথরিন অফ আরাগনের গর্ভে জন্ম নেওয়া রাজা অষ্টম হেনরির বেঁচে থাকা একমাত্র প্রাপ্তবয়স্ক সন্তান মেরি। তার কনিষ্ঠ সৎ-ভাই ষষ্ঠ এডওয়ার্ড (হেনরি এবং জেন সিমুরের পুত্র) ১৫৪৭ সালে নয় বছর বয়সে পিতার স্থলাভিষিক্ত হন। ১৫৫৩ সালে এডওয়ার্ড মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়ার পর মেরিকে উত্তরসূরির তালিকা থেকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। তিনি সঠিকভাবেই ধারণা করেছিলেন, মেরি চলমান ধর্ম সংস্কার আন্দোলনকে ধ্বংস করে দেবেন। এডওয়ার্ডের মৃত্যু হলে শীর্ষস্থানীয় রাজনীতিবিদেরা লেডি জেন গ্রেকে রানী হিসেবে ঘোষণা করেন। মেরি এ পরিস্থিতিতে দ্রুত পূর্ব আঙ্গলিয়ায় একটি যোদ্ধাবাহিনী প্রস্তুত করে জেনকে বহিষ্কার করেন এবং শেষ পর্যন্ত তার শিরোশ্ছেদ করা হয়। ঐতিহাসিকভাবে বিতর্কিত লেডি জেন এবং সম্রাজ্ঞী মাতিলদা -র শাসনামলকে বাদ দিলে মেরিই ছিলেন ইংল্যান্ডের প্রথম রানী শাসক। ১৫৫৪ সালে মেরি দ্বিতীয় ফিলিপকে বিয়ে করেন। ১৫৫৬ সালে স্পেনের রাজা হিসেবে ফিলিপের অভিষেক হলে মেরি হন স্পেনের রাজরাণী।

মেরি তার পাঁচ বছর মেয়াদী শাসনকালে ২৮০ জনেরও বেশি প্রটেস্ট্যান্ট ধর্মাবলম্বীদের পুড়িয়ে মেরেছিলেন যা কুখ্যাত হয়ে আছে মেরীয় নিপীড়ন হিসেবে। ১৫৫৮ সালে মেরির মৃত্যুর পরে, তার ছোট বোন হেনরি এবং অ্যান বোলেনের কন্যা প্রথম এলিজাবেথ রাণী হিসেবে অভিষিক্ত হন এবং তার ৪৫ বছর ব্যাপি শাসনামলের শুরুতেই রোমান ক্যাথলিকিজমের পুনঃপ্রতিষ্ঠার সমাপ্তি নিশ্চিত করেন।

জন্ম ও পরিবারসম্পাদনা

  1. ৬ই জুলাই তার সৎ ভাই মৃত্যুবরণ করেন; ১৯এ জুলাই লন্ডনে তাঁর অভিষিক্ত হন মেরি; রাজত্বকাল ২৪ জুলাই ১৫৫৩ (উইয়ার, পৃ.১৬০।)