আসাম হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা মহাবিদ্যালয়, নগাঁও

আসাম হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা মহাবিদ্যালয়, নগাঁও আসামের নগাঁও জেলার হয়বরগাঁওতে অবস্থিত। ১৯৬৮ সালে এই মহাবিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের মধ্যে এটিই প্রথম হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা মহাবিদ্যালয।

আসাম হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা মহাবিদ্যালয়, নগাঁও
Assam Homoeopathic Medical College and Hospital, Nagaon
ধরনসরকারি
স্থাপিত১৯৬৮
অধ্যক্ষঅধ্যাপক ডঃ এ. কুমার
স্নাতক২৫০ (প্রায়)
অবস্থান
হয়বরগাওঁ, নগাঁও, আসাম
,
শিক্ষাঙ্গনউপ-চহরাঞ্চল
অধিভুক্তিশ্রীমন্ত শংকরদেব স্বাস্থ্য বিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয়
ওয়েবসাইটahmch.org

ইতিহাসসম্পাদনা

১৯৬৮ সাল ১৫ সেপ্টেম্বর তারিখে নগাঁও জেলার হলীবরগাওঁ বালিকা উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অস্থায়ীভাবে মহাবিদ্যালয়টির ক্লাস আরম্ভ হয়েছিল। পরে নগাঁওর বিখ্যাত ব্যবসায়ী মেঘরাজ আগরবালাদেবের দান করা জমিতে স্থায়ীভাবে মহাবিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করা হয়। ১৯৭২ সাল ২৯ নভেম্বরে গৌহাটী চিকিৎসা মহাবিদ্যালয়-এর অধ্যক্ষ ডাঃ যোগেশ মহন্ত এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। ১৯৭৮ সালে আসাম হোমিওপ্যাথিক সন্থা একে শনাক্ত করায় এটি হোমিওপ্যাথি শিক্ষা দেওয়া আসামের প্রথম প্রতিষ্ঠান হয়ে পরে। ১৯৮৮ সালের ১ জুলাইতে এই মহাবিদ্যালয়টি আসাম চিকিৎসা সঞ্চালকালয়ের অন্তর্ভুক্ত হয়। ১৯৬৮ সাল থেকে মহাবিদ্যালয়টি হোমিওপ্যাথির ডিপ্লোমা দিতে থাকে। ২০০০ সাল থেকে হোমিওপ্যাথির স্নাতক ডিগ্রী দেওয়া আরম্ভ করে। প্রথমে মহাবিদ্যালয়টি গৌহাটী বিশ্ববিদ্যালয়-এর অন্তর্ভুক্ত ছিল, পরে ২০১১ সালে এটি শ্রীমন্ত শংকরদেব স্বাস্থ্য বিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয়-এর অন্তর্ভুক্ত হয়।[১]

শিক্ষাসম্পাদনা

মহাবিদ্যালয়টি পাঁচ বছর এবং ছয়মাসের হোমিওপ্যাথি পথ্য এবং শল্য চিকিৎসার স্নাতক ডিগ্রী দেয়। ২০১৬ সালে এর ভর্তি ডিব্রুগড় বিশ্ববিদ্যালয় অনুষ্ঠিত করা সংযুক্ত প্রবেশ পরীক্ষার দ্বারা করা হয়েছে। এখানে প্রতি বছরে ৫০ জন ছাত্র-ছাত্রীর ভর্তির সুবিধা আছে।[২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "about us"ahmch.org। ২০১৬-১১-০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১০-২৮ 
  2. "seat allotment"dmeassam.gov.in। ২০১৬-১০-২৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১০-২৮ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

টেমপ্লেট:আসামের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসমূহ