আল কিফাহ

জমিয়ত উলামায়ে হিন্দের ভূতপূর্ব পাক্ষিক আরবি মুখপত্র

আল কিফাহ (আরবি: الكفاح‎‎) ছিল জমিয়ত উলামায়ে হিন্দের একটি পাক্ষিক আরবি মুখপত্র।[১] স্বাধীনতার পরবর্তী সময়ে জমিয়ত উলামায়ে হিন্দের দায়িত্বশীলরা উপসাগরীয় দেশগুলোতে জমিয়তের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য প্রচার করার জন্য একটি পাক্ষিক পত্রিকা চালু করার সিদ্ধান্ত নেয়। এই উদ্দেশ্যে ১৯৭৩ সালের জানুয়ারিতে দিল্লি থেকে এই মুখপত্রটি প্রকাশিত হয়, এর সম্পাদক ছিলেন আলতাফুর রহমান আজমি। মুখপত্রটির পৃষ্ঠা সংখ্যা ছিল মাঝারি আকারের ৮।[২] ওয়াহিদুজ্জামান কিরানবি মুখপত্রটিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল। পরবর্তী কিছু কারণে ১৯৮৭ সালের ডিসেম্বরে এটি বন্ধ হয়ে যায় কিন্তু ভারতে আরবি ভাষার প্রসারে এটি অবদান রেখেছে।[৩] প্রায়শই দারুল উলুম দেওবন্দের মুখপত্র আদ দাঈ–এর সম্পাদকরাই মুখপত্রটি সম্পাদনা করতেন যদিও আল কিফাহ–এর সাথে দারুল উলুম দেওবন্দের কোনো আনুষ্ঠানিক সম্পর্ক ছিল না।[৪]

আল কিফাহ  
আল কিফাহ- ১৪ রজব ১৩৮৪ সংখ্যার প্রচ্ছদ.jpg
১৪ রজব ১৩৮৪ (আনু. ১৬ এপ্রিল ১৯৮৪) সংখ্যার প্রচ্ছদ
বিষয়ইসলাম
ভাষাআরবি
সম্পাদকআলতাফুর রহমান আজমি
প্রকাশনা বিবরণ
প্রকাশক

লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যসম্পাদনা

এই মুখপত্রটির লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য:[৫]

  1. আরব দেশগুলোতে জমিয়ত উলামায়ে হিন্দের প্রচার করা।
  2. জমিয়তের দৃষ্টিকোণ থেকে এখানে সংঘটিত ঘটনাগুলি প্রকাশ করা।
  3. ইসলামি নিবন্ধ প্রকাশ করা।
  4. ভারতে আরবি ভাষা ও সাহিত্যের প্রচার করা।

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

উদ্ধৃতিসম্পাদনা

  1. নদভী, সরওয়ার আলম (২০০০)। Development of Arabic journalism in India after independence [স্বাধীনতার পর ভারতে আরবি সাংবাদিকতার বিকাশ] (গবেষণাপত্র)। ভারত: আরবি বিভাগ, আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়। পৃষ্ঠা ২৪১–২৪৬। hdl:10603/57825 
  2. নদভী, ডক্টর আইয়ুব (১৯৯৮)। Origin and Development of Arabic Journalism in India [ভারতে আরবি সাংবাদিকতার উৎপত্তি ও বিকাশ]। জম্মু ও কাশ্মীর: দারুল হিজরাহ। পৃষ্ঠা ১৭৫–১৭৬। 
  3. খান, সালিমুর রহমান (২০০৭)। Evolution & History of Islamic Journalism in India [ভারতে ইসলামি সাংবাদিকতার বিবর্তন ও ইতিহাস]। নতুন দিল্লি: কিতাব ভবন। পৃষ্ঠা ৩৯৮। 
  4. আলংগদন, আনিস (২০১৪)। Relocating Arabic language and literature with reference to Arabic journalism in India 1950 to 2000 [১৯৫০ থেকে ২০০০ ভারতে আরবি সাংবাদিকতার উল্লেখ সহ আরবি ভাষা ও সাহিত্যের বিকাশ] (গবেষণাপত্র)। ভারত: মহাত্মা গান্ধী বিশ্ববিদ্যালয়। পৃষ্ঠা ২১৯। hdl:10603/30548 
  5. দেসাই, আহমদ (২০১৫)। Development Of Indo Arabic Literature And The Contribution Of Dr Sayeedur Rahman Al A Zmi Al Nadwi To Al Baas Al Islami [ইন্দো আরবি সাহিত্যের বিকাশ এবং আল বাসুল ইসলামিতে ডক্টর সাঈদুর রহমান আল আজামি আন নদভীর অবদান] (গবেষণাপত্র)। ভারত: গৌহাটি বিশ্ববিদ্যালয়। পৃষ্ঠা ১০৩। hdl:10603/93172 

গ্রন্থপঞ্জিসম্পাদনা